বিধানসভা নির্বাচনে অপ-শক্তির জোটকে চুরমার করে দাও

সুকোমল সেন

১ মে, ২০১১

মে দিবসের বৈপ্লবিক উৎস ১৮৮৬ সালে শিকাগোতে সংঘটিত ৮ঘণ্টা শ্রমের দাবিতে শ্রমিকের রক্তাক্ত সংগ্রাম ও কাঁটার মঞ্চে নেতৃবৃন্দের আত্মদান।

পৃথিবীর দিকে দিকে মে দিবস পালিত। এই বৈপ্লবিক ঘটনাকে স্মরণ করে এবং পুঁজিবাদী শোষণভিত্তিক সমাজকে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তনের লক্ষ্য নিয়ে।

ভারতেও এই বৎসর মে দিব‍‌স পালিত হতে চলেছে এই পুঁজিবাদী শোষণের হিংস্র রূপের বিরুদ্ধেই এবং এক নতুন শোষণমুক্ত সমাজ গঠনের আহ্বানকে কার্যকর করার দিক নির্দেশেই।

ঊনবিংশ শতকের আশি বা নব্বই দশকের বিশ্বপুঁজিবাদে শোষণের চরিত্র আজ একবিংশ শতাব্দীর প্রথম দশকে এবং দ্বিতীয় দশকের শুরুতে ভয়ঙ্কর ভাবেই পালটে গিয়েছে এবং বিগত তিন দশক ধরেই বিশ্বপুঁজিবাদ শোষণের চরিত্র ও পদ্ধতি এক অতি হিংস্র রূপ ধারণ করেছে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

লড়াইয়ের পটভূমি

রথীন সেন

১ মে, ২০১১

মানব ইতিহাসে শ্রেণীসংগ্রাম এক অবিচ্ছেদ্য প্রবাহ। কার্ল মার্কস বলেছিলেন, এতকাল পর্যন্ত মানুষের লিখিত ইতিহাস আসলে শ্রেণীসংগ্রামেরই ইতিহাস। শ্রেণীবিভক্ত সমাজে শ্রেণীতে শ্রেণীতে যে দ্বন্দ্ব ও সংগ্রাম বিরাজ করে তা মানব সভ্যতার অপ্রতিহত চালিকাশক্তি। আধুনিক বিশ্বে, কার্ল মার্কস ও ফ্রেডেরিক এঙ্গেলস সব থেকে সফলভাবে এই সত্যকে তাত্ত্বিক বিশ্লেষণের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা দিয়েছিলেন।

অকস্মাৎ প্রবল পুঁজিবাদী প্রচার শুরু হয়েছে যে, মার্কসীয় তত্ত্ব বর্তমান পৃথিবীতে অপ্রাসঙ্গিক। এই তত্ত্ব বর্তমান পুঁজিবাদী অপপ্রচারের সামনে সত্যিই কি অপ্রাসঙ্গিক? মার্কসের মৃত্যুর ১২৮ বছর পর আজ বুঝতে হবে যে, দ্বান্দ্বিক ও ঐতিহাসিক বস্তুবাদের দর্শনকে তীক্ষ্ণ বিশ্লেষণের মধ্য দিয়ে তিনি প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

দুটি নদী, একটি ‘বিশ্ববিদ্যালয়’,আর হাজারো দুর্বলের মহাকাব্য নির্মাণ

চন্দন দাস

১ মে, ২০১১

‘‘ পার্টি কর্মসূচীতে উল্লিখিত ‘ বিকল্প নীতি ’ প্রণয়ন ও রূপায়ণের বামফ্রন্ট সরকারের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন থেকে এই ব্যবস্থার মধ্যে দাঁড়িয়ে সর্বাপেক্ষা দুর্বলতর অংশকে যথাসম্ভব রক্ষা করার দায়িত্ব বামফ্রন্ট সরকার অস্বীকার বা অবহেলা করতে পারে না।’’ — সি পি আই(এম) পশ্চিমবঙ্গ একবিংশতিতম সম্মেলনের ‘বামফ্রন্ট সরকার ও আমাদের কাজ’ শীর্ষক প্রস্তাব।

কংসাবতী বা কাঁসাইয়ের চর এ’ কথা বিলক্ষণ মানে। হলদির অববাহিকাতেও সে কথা সত্যি। নদী মাতৃক দেশ। নদী নির্ভর সভ্যতা। নদীর অববাহিকা সমাজের এগিয়ে চলা কিংবা পিছিয়ে পড়ার গুরুত্বপূর্ণ অনুঘটক।

এই নিয়মেই গড়ে উঠেছে পশ্চিমবঙ্গ। তাই নদীর গতিপথের উপর এই রাজ্যের শ্রেণী সংগ্রামের উজানধারা অনেকটা নিয়ন্ত্রিত হয়েছে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

জল্লাদদের বিচার চাই

মেঘনাদ ভূঞ্যা

১ মে, ২০১১

অষ্টম বামফ্রন্ট সরকার প্রতিষ্ঠা নিশ্চিত করতে, রাজ্যের শ্রমজীবী মানুষের ঐতিহাসিক দায়িত্ব পালনের আহ্বান নিয়ে হাজির হয়েছে এবারের মে দিবস। শান্তি গণতন্ত্র সহ অর্জিত অধিকারগুলির রক্ষা করা, বামফ্রন্টের নির্বাচনী ইশ্‌তেহারে ঘোষিত কর্মসূচীগুলি বাস্তবে রূপায়ণের স্বার্থ ছাড়াও, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক ঘটনার প্রেক্ষিতে যার গুরুত্ব অপরিসিম। অর্পিত দায়িত্ব পালনে গোটা রাজ্যের সাথে সংগতি রেখে প্রস্তুত হচ্ছে জঙ্গলমহলের মানুষ।

শত্রুর এক ভয়ঙ্কর এবং বহুমুখী আক্রমণের সামনে দাঁড়িয়ে কাজ করতে হচ্ছে জঙ্গলমহলের মানুষদের। গত লোকসভা নির্বাচনেও এই এলাকায় বিপুল ভোটে জয়ী হয় বামফ্রন্ট।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

বামপন্থাকে রক্ষার চ্যালেঞ্জ

দীপেন ঘোষ

১ মে, ২০১১

মে দিবসের সংগ্রামের সাফল্যকে শ্রমিকশ্রেণী কখনওই ভুলতে পারে না। এই সংগ্রামেরই সাফল্যের শীর্ষে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তাঁদের দৈনিক সর্বোচ্চ আট ঘণ্টা কাজের দাবি। প্রসঙ্গত স্মরণে থাকতে পারে মার্কসের উক্তি : ‘‘যে-প্রাথমিক শর্ত ছাড়া শ্রমিকদের উন্নয়ন ও তাঁদের মুক্তির পরবর্তী সমস্ত প্রয়াসে সাফল্য অসম্ভব, সেটা হলো শ্রমদিবস সীমিতকরণ’’।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

সন্ত্রাস নয় জনগণই শেষ কথা বলবে

দীপক দাশগুপ্ত

১ মে, ২০১১

সি পি আই (এম) নেতৃত্বাধীন বামফ্রন্ট সরকারের এরাজ্যে সাড়ে তিন দশকের শাসনের নজিরবিহীন ঘটনায় দেশী, বিদেশী শাসক শোষক শ্রেণীগুলি ও তাদের রাজনৈতিক মুখপাত্র দক্ষিণপন্থী প্রতিক্রিয়াশীল ফ্যাসিস্ত তৃণমূল কংগ্রেস, কংগ্রেস, বি জে পি-সহ বিচ্ছিন্নতাবাদী মৌলবাদী শক্তিগুলি তীব্র ক্রোধ বিদ্বেষ ও আক্রোশের জ্বালায় দিশেহারা। বামফ্রন্ট সরকারের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ঐ শ্রেণীগুলির শোষণের স্বার্থহানি ঘটার কারণে বামফ্রন্ট সরকার বিরোধী ষড়যন্ত্র তারা শুরু করেছিলো। মরিচঝাঁপির ঘটনা থেকে শুরু করে ১৯৮১-র ৩রা এপ্রিলের কংগ্রেস পার্টি আহুত ১২ ঘণ্টার বন্‌ধের নামে এরাজ্যের সাধারণ মানুষের ও সরকারী সম্পত্তি ধ্বংসের জন্য কংগ্রেসী দুষ্কৃতীকারীদের দ্বারা সংগঠিত বীভৎস হত্যা ও ধ্বংসলীলা, ইন্দিরা গান্ধীর নিহত হওয়ার ঘটনায় সারা রাজ্যের কংগ্রেসী দুষ্কৃতকারীদের সন্ত্রাস সৃষ্টির ষড়যন্ত্র।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

ব্ল্যাক রেভলিউশন

প্রদীপকুমার ভাদুড়ি

২৪ এপ্রিল, ২০১১

Image

+

রবীন্দ্রনাথ লিখেছিলেন— ‘দিবে আর নিবে মিলাবে মিলিবে যাবে না ফিরে—’।

সত্যিই তো ভারতের দক্ষিণা দুয়ার শুধু নয়, সমস্ত দরজা জানালাই খোলা। দেওয়ার পাল্লা ভারী, নেওয়ার পাল্লা কম। এই দেশ হচ্ছে ত্যাগ স্বীকারের দেশ। তেন ত্যক্তেন ভুঞ্জিতাঃ। জনগণ, তুমি ত্যাগ করে যাও, তাতেই সুখ, তাতেই ধর্মরক্ষা, তাতেই অক্ষয় ‘স্বর্গলাভ’।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

লক্ষ হাতে কাজ লক্ষ্য বামফ্রন্টের

কৌশিক সরকার

২৪ এপ্রিল, ২০১১

শেষ পর্যন্ত অধিগৃহীত ৪০০একর জমি ফেরতের দাবিতেই অনড় থাকায় সিঙ্গুর থেকে পাততাড়ি গোটালো টাটা মোটরস্‌। যে প্রকল্পে সরাসরি ৪হাজার এবং পরোক্ষে আরও অন্তত হাজার ছয়েক মানুষের কাজের সুযোগ ছিল। তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির দাবি, সিঙ্গুরে ৬০০একর জমিতেই গাড়ি কারখানা তৈরি সম্ভব।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

বামফ্রন্ট সরকার: অভিজ্ঞতার মূল্যবান সংকলন

অনিরুদ্ধ চক্রবর্তী

২৪ এপ্রিল, ২০১১

১৯৭৭সা‍‌লের ২১শে জুন পশ্চিমবঙ্গে প্রথম বামফ্রন্ট সরকারের মু্খ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার অল্প পরেই জ্যোতি বসুকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হতে হয়েছিল কলকাতা প্রেস ক্লাবে। সেখানে জনৈক সাংবাদিক প্রশ্ন করেছিলেন, আপনি কি মনে করেন আপনাদের সরকার স্থায়ী হবে? জবাবে জ্যোতি বসু বলেছিলেন, হ্যাঁ। আমরা তাই মনে করি।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

মহাঝড়, মহাচক্রান্ত
ধ্বংস হতে পারতো বাদাবন

দীপঙ্কর দাস

২৪ এপ্রিল, ২০১১

জাপান দেখলো সমুদ্রের ভয়ঙ্কর রূপ। সাত বছর আগে এই দানবীয় চেহারা দেখেছিল বঙ্গোপসাগরের চারপাশের ভূখণ্ড। দু’বছর আগে সমুদ্র সেভাবে গর্জে না উঠলেও পশ্চিমবঙ্গ দেখেছিল তার ভয়াল থাবা। এরকমই দাবদাহ গরমে, মে মাসের শেষের দিকে। এক মহাঝড় আইলা এসে লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছিল বঙ্গোপসাগরের ধারে নদীনালা ঘেরা সুন্দরবনের জনজীবনকে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement