স্মৃতির কোলাজে অরবিন্দ মুখোপাধ্যায়

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়

২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৬

কত স্মৃতি বলা যাবে তাঁকে নিয়ে? বহু বছর নাগাড়ে তাঁর বাড়িতে গিয়ে বিভিন্ন সময় নানাভাবে তাঁকে আবিষ্কার করা গেছে। একজন উচ্চ শিক্ষিত মানুষ, অমন জনপ্রিয় চলচ্চিত্র পরিচালক অথচ যারাই তাঁকে কাছ থেকে দেখেছেন তারাই জানেন মানুষটাকে দেখলে বোঝার উপায় থাকত না। একেবারে সাদামাটা মানুষ ছিলেন। ছিলেন সত্যিকারের বাঙালিয়ানায় ভরপুর। তাঁর কথাবার্তা, চালচলন থেকে পরিচালন সবই বাঙালিয়ানায় বাঁধা ছিল।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

বইপড়া, বইপাড়া

সুরেন মুখোপাধ্যায়

৩০ মে, ২০১৫

Image

+

কলেজ স্ট্রিট কি কেবলমাত্র বইপাড়া? কেবলই মনে হয় এ এক চলমান সংস্কৃতির নাম। এই সংস্কৃতির সঙ্গে জ‍‌ড়িয়ে আছে কলেজ স্ট্রিট, বঙ্কিম চ্যাটার্জি স্ট্রিট, শ্যামাচরণ দে স্ট্রিট, কলেজ রো, সীতারাম ঘোষ স্ট্রিট, প্রেসিডেন্সি কলেজ, কলকাতা ইউনিভারসিটি, কফি হাউস, পাতিরাম, পুঁটিরাম, ইউনিভারসিটি ইনস্টিটিউট, মহাবোধি সোসাইটি, হিন্দু স্কুল, সংস্কৃত কলেজ সমেত আরও অনেক কিছু।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

দেশপ্রেম কোমল গান্ধার

চন্দন দাস

২৩ জানুয়ারী, ২০১৬

(১) তোমরা মন্ত্রী হবে। প্রধান, মুখ্য, স্বরাষ্ট্র, বিদেশ — নানা রকম। তাই আমি ‘দ্যাশ’ ছেড়ে এসেছি।

ইছামতীর এ’পারে দাঁড়ালে আমার নজর এখনও ওপারের গাছ, আবছা রাস্তা, নদী ঘাটে ঘোরাফেরা করে। এখনও, কোচবিহার-মুর্শিদাবাদ, বনগাঁ-বসিরহাটের পশ্চিমপাড় থেকে আমি, আমাদের সেই বাড়িটাই খুঁজি। মাটির ছিল, নাকি দালান কোঠা — কী যায় আসে? তবু আমার বাড়ি। ...

বিস্তারিত বিবরণ >>

মার্কিন গণমাধ্যম, পুঁজিবাদ-উত্তর গণতন্ত্রের জন্য শ্রেণিসংগ্রাম

পল্লব মুখোপাধ্যায়

১৬ জানুয়ারী, ২০১৬

মার্কস-এর সময় থেকেই সাম্যবাদীরা গণতন্ত্রের পক্ষে সওয়াল করে এসেছেন। কিন্তু যুক্তি তথ্য দিয়ে প্রমাণ করেছেন পুঁজিবাদী সমাজে গণতন্ত্র মৌলিকভাবেই ত্রুটিপূর্ণ। পুঁজিবাদী সমাজে শ্রমিকশ্রেণিকে বঞ্চিত করে বিত্তশালীরা প্রভূত সামাজিক ও অর্থনৈতিক সুবিধা ভোগ করেন। বিঘ্নিত হয় রাজনৈতিক সাম্যাবস্থা যা যে কোনও সজীব, গতিশীল, প্রাণবন্ত গণতন্ত্রের অন্যতম শর্ত।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

তমসা হতে আলোকে

সঞ্চারী সেন

৯ জানুয়ারী, ২০১৬

যারা ইতিহাস ভুলে যায় তারা তার পুনরাবৃত্তির দায় বহন করে।

কে বেশি শক্তিশালী, বিশালদেহী ধূসর রঙের শুয়োরটা না নাথ্‌থু চামার, তার পরীক্ষা চল‍‌ছিল।

সে এক অসম লড়াই, বরাহের দিক থেকে, নাথ্‌থুর দৃষ্টিকোণ থেকেও।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

ভয় মুক্ত করে জয় ছিনিয়ে আনতে হবে

অশোক ভট্টাচার্য

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

Image

+

শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের নির্বাচন হতে চলেছে ৩রা অক্টোবর। যদিও সংবিধান ও আইন অনুযায়ী এই নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল ২০১৪ সালের জুন-জুলাই মাসে। সেদিক দিয়ে বলতে গেলে নির্বাচন হচ্ছে প্রায় ১৫ মাস বিলম্বে। উল্লেখ করা প্রয়োজন মহকুমা পরিষদ সেই অর্থে আমাদের রাজ্য তো বটেই, সারা ভারতের কোনো রাজ্যেই নেই। একটু পেছন দিকে যেতে চাইছি।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

উদ্দীপক আরম্ভ : দ্বন্দ্বিত যবনিকা

চন্দন সেন

২৫ জুলাই, ২০১৫

Image

+

আকাশজুড়ে কালো মেঘের তর্জন আর বৃষ্টিসম্ভব আষাঢ়ের আবহে মধ্য-জুলাইয়ে তাঁর জন্ম আর সাঁইত্রিশ বছর আগে রুক্ষ জানুয়ারির হৈম ধূসরতায় তাঁর প্রায় নিঃশব্দ প্রস্থান। তেষট্টির পরমায়ুতে কুড়িটি নাটকও লিখে যেতে পারেননি বিজন, বাংলার আধুনিক জনগণতান্ত্রিক নাট্যমঞ্চে যাঁর ঝোড়ো ইতিহাস সৃ‍‌ষ্টিকারী আবির্ভাব নবান্ন-র নাট্যকার হিসেবে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

ব্রাত্যজনের মুক্তি

জয়ন্ত সাহা

২৭ জুন, ২০১৫

Image

+

নামেই রানী। ওর কোনো দেশ ছিল না। নিজেকে ভারতীয় বলে পরিচয় দিলেও ছিটমহলের বাসিন্দা বলে কলেজের বন্ধুরা রানী খাতুনকে করুণার চোখে দেখতো। মিথ্যে পরিচয় দিয়ে রানি শীতলকুচিতে পড়ে। অবশেষে ছিটমহল চুক্তি হওয়ার পর আর মিথ্যে পরিচয় নিয়ে ‍বেঁচে থাকতে হবে না। এবারে রানী সত্যিই ভারতের বাসিন্দা।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

পরিপাক ও বিবমিষা

শেখ শুভোদয়

৯ মে, ২০১৫

Image

+

রবিবাবু, আজ আপনার পরমধনতুল্য লিখনগুলির কথা পাড়িবই না। তাহারা মাথায় থাক, মার্জিত সহস্র সহস্র কণ্ঠে বিরাজ করুক, গুণীজনসভায় আলোচিত হইয়া পরিমল বিছাইয়া দিক। আমাদের মতো তুচ্ছ রাজনৈতিক কর্মী, যাহারা খবরের কাগজের কলামগুলি অতি-আগ্রহে গিলিতে থাকে, কোনো একটি সংবাদে আঘাত পাইয়া মুহূর্তে তর্কে উদ্যত হয়, ছুটিয়া যায়, অথবা নেহাত বিমূঢ় বিবশ হইয়া বসিয়া থাকে, কখনোবা অস্থির হইয়া দু-কলম লিখিয়াও ফেলে, সেইরূপ তুচ্ছাতিতুচ্ছ কর্মীরা আপনার তুচ্ছ একটি লিখনকে ধরিয়া কটি কথা পাড়িতে চায়।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

নেটিজেনদের সদর দরজা, কিন্তু . . .

সান্ত্বন চট্টোপাধ্যায়

১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫

Image

+

সোস্যাল মিডিয়া এখন নেটিজেনদের সদর দরজার মতো। চারপাশের শুধু নয়, গোটা পৃথিবীর ঘটমানতার দিকে নেটিজেনরা তাকাচ্ছে অনেকাংশেই এখন সোস্যাল মিডিয়ার মধ্য দিয়ে। সোস্যাল মিডিয়ার ধারণাটিও খুব পুরনো, এমন নয়। ডেরিল বেরি ১৯৯৪ সালে প্রথম এখনকার অর্থে এই শব্দবন্ধের প্রয়োগ করেন। ১৯৯৫ সালে তিনি ‘সোস্যাল মিডিয়া স্পেশেস’ নামে একটি গবেষণাপত্রেও ইন্টারনেট ব্যবহার করে তথ্য আদান-প্রদানের কথা বলেন। তবে এই দু’দশক সময়ে সোস্যাল মিডিয়া বহুগুণে বেড়েছে। তার প্রভাব সমাজে অন্যতম নির্ধারকরূপে পরিগণিত হচ্ছে — এটা মোটামুটি সকলেরই জানা।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

Featured Posts

Advertisement