স্বপ্নের ভিয়েতনাম

দীপক নাগ

৩০ জুন, ২০১২

Image

+

ভিয়েতনামের স্বপ্ন এখনও বহু মানুষকে দোলা দেয়। সেই স্বপ্ন আর বাস্তব ফুটে উঠেছে তাঁর লেখায়।

‘‘তোমার নাম আমার নাম, ভিয়েতনাম — ভিয়েতনাম’’। গত শতাব্দীর ছয়-সাতের দশকে যাদের ছাত্র জীবন কেটেছে, তাদের পক্ষে এই স্লোগানটি একেবারে ভুলে যাওয়া সম্ভব নয়। ভিয়েতনামের স্বপ্ন এখনও তাদের মনে দোলা দেয়।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

চলচ্চিত্রে সঙ্গীত, আবহসঙ্গীত

সুরেন মুখোপাধ্যায়

২৩ জুন, ২০১২

Image

+

ক্যামেরা, লাইট, অ্যাকশন সিনেমার প্রাথমিক শর্ত হলেও চলচ্চিত্রে সঙ্গীত এবং আবহসঙ্গীত এক গুরুত্বপূর্ণ ও অনিবার্য অধ্যায়।

সিনেমার আবহ সঙ্গীতকে হতে হয় অনেকটাই অশ্রুত সঙ্গীত, দৃশ্য, শব্দ সংলাপের সঙ্গে নিরুচ্চারে মিশে থাকা। সিনেমায় সঙ্গীতের কাজ অনেকটাই ইমেজের পরিপূরক বা ‘কমপেনসেটরি’।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

স্বপ্নপূরণের কথা

অশোক দাস

১৬ জুন, ২০১২

Image

+

তিনি কোন ব্রিটিশ আমলের স্বাধীন বা করদ রাজ্যের রাজার কুমার নন, তিনি পতৌদির নবাব মনসুর আলির মতো ছিলেন না, ছিলেন না নওয়ানগরের রঞ্জিৎ সিংজী বা দিলীপ সিংজীর মতো জামসাহেব, অথবা অযোধ্যার রাজ্যচ্যুত নবাব ওয়াজেদ আলি শাহের মতো শাহজাদা, তিনি ছিলেন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির শাসনাধীন একজন জমিদার মাত্র, যাঁর জমিদারি ছিল পাতিসরে, শিলাইদহে বিরাহিমপুর পরগনায়।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

মাটির মানুষের জীবন আঁকার চিত্রী

রাধামাধব মণ্ডল

৯ জুন, ২০১২

Image

+

‘হারিয়ে গেলে মনের মানুষ

খুঁজলে মেলে না...’

ভরা গলায়, গুরুগম্ভীর রোদে দাঁড়িয়ে আকাশের দিকে তাকিয়ে গাইতেন রামকিঙ্কর। শান্তিনিকেতনে সবার প্রাণের মানুষ, আত্মার আপনজন, এক রক্তিম প্রাণউচ্ছ্বাস মাখা কর্মনিপুণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী। চিত্রী-ভাস্কর শিল্পী রামকিঙ্কর বেইজ। আশ্রমের ফাঁকা আকাশের নিচে, পাখির কাকলিতে গলা মিলিয়ে গাইতেন কখনো লালন, কখনো রবীন্দ্রনাথ। হাতে নরম মাটির তাল, কখনো বা সিমেন্টের মতো কিছু একটা।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

কো-বিপক্ষ পালন

সীতানাথ বন্দ্যো

২ জুন, ২০১২

Image

+

প্রথমেই বলে রাখি এটি একটি সাংস্কৃতিক প্রতিবেদন। সংস্কৃতি মানে যাকে বাংলায় বলে কালচারাল অ্যাক্টিভিটি, তারই বর্ণনা। তাই প্রথমেই বিধিসম্মত সতর্কীকরণ হিসেবে জানিয়ে রাখতে চাই যে কোনও ‘হিউম্যান বিয়িং’-এর সঙ্গে এই লেখার কোনও চরিত্রের সাদৃশ্য খোঁজার চেষ্টা করা এবং তা নিয়ে সাতকাহন করা গুরুতর অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে। সেক্ষেত্রে শাস্তি হিসাবে জেল, এমনকি ফাঁসি পর্যন্ত হতে পারে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

মধুবংশীর কবি

শুভপ্রসাদ নন্দীমজুমদার

২৬ মে, ২০১২

Image

+

তাঁর স্বপ্ন ছিল দরবারী কানাড়াকে রাজদরবার থেকে নামিয়ে আনবেন জনতার দরবারে। স্বপ্ন ছিল গড়ে তুলবেন একটি খামারবাড়ি, যেখানে নানা শিল্পমাধ্যমের স্রষ্টারা শ্রমজীবী জনতার ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্যে একটি কমিউনে থেকে সমবেতভাবে মজে থাকবেন শিল্পচর্চায়। প্রথম স্বপ্ন তাঁর মনে অঙ্কুরিত হয়েছিল যৌবনের প্রথম পর্বে প্রগতিশীল চিন্তাচর্চার সাথে যুক্ত হয়ে। আর দ্বিতীয় স্বপ্নটি ছিল তাঁর জীবনের অন্তিম স্বপ্ন।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

আমার বাবা, আমার প্রেরণা

সুস্মিতা রায়চৌধুরী (মৈত্র)

২৬ মে, ২০১২

Image

+

জ্যোতিরিন্দ্র মৈত্রের জন্ম হয়েছিল অধুনা বাংলাদেশের পাবনা জেলায়, ১৯১১ সালের ১৮ই নভেম্বর। পিতা যোগেন্দ্রনাথ মৈত্র ছিলেন শিতলাই এস্টেটের জমিদার, যা বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থিত। মাতা সরলা দেবী শ্রীরামপুরের রাজা কিশোরিলাল গোস্বামীর কন্যা। পিতৃ এবং মাতৃকুল উভয়ই ধনী এবং সম্ভ্রান্ত পরিবার। মামা তুলসীচন্দ্র গোস্বামী ছিলেন তুখোড় ব্যারিস্টার, সুবক্তা এবং কংগ্রেসের ‘বিগ ফাইভ’-এর অন্যতম সদস্য।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

মালিনী ভট্টাচার্য

১৯ মে, ২০১২

Image

+

তিনি প্রতিদিন অজস্র প্রতিশ্রুতি দেন। তারপর পলক পড়তে না পড়তেই দেখা যায় ঐ প্রতিশ্রুতির ১০০ % ভাগ বা নিদেন পক্ষে ৯০% পালন করে ফেলেছেন। অথচ পুরুষপ্রধান রাজনীতির ক্ষেত্রে সমানে সমানে লড়াই করে মসনদ দখল করার পরেও কিন্তু তাঁর রাজত্বে বসবাসকারী মেয়েদের জন্য এখনও তিনি বিশেষ কোনো প্রতিশ্রুতি দেন নি; এতে যে সব নারীবাদীরা তাঁর ওপর অনেক ভরসা করেছিলেন তাঁরা কিছুটা আশাহত হলেও...

বিস্তারিত বিবরণ >>

আজও অম্লান পিতা-পুত্র

সোমনাথ ভট্টাচার্য

১২ মে, ২০১২

Image

+

বাংলা সাহিত্য যখন সবে হাঁটি হাঁটি পা পা। সেসময় ছোটদের জন্য পৃথক সাহিত্যের ভাবনা সবেমাত্র অঙ্কুরিত অবস্থায়। বিদ্যাসাগর মশায়ের ‘বর্ণপরিচয়’ ও মদনমোহন তর্কালংকারের শিশুশিক্ষাই ছিল ছোটদের পাঠযোগ্য প্রথম পুস্তক। এর পাশাপাশি নীতিকথামূলক অনুবাদ বই ও হাতে গোনা দু’চারটে ঐ ধরনের বই নিয়েই গ‍‌ড়ে উঠেছিল শিশু কিশোর সাহিত্য। এসময়ে ছোটদের জন্য পৃথক একটি পত্রিকা প্রকাশ হলো (১৮৮৩) মূলত ব্রাহ্মসমাজের কয়েকজন বিদগ্ধ ব্যক্তির উদ্যোগে। পত্রিকার নাম ‘সুখা’, তার প্রথম সম্পাদক হলেন প্রমদাচরণ সেন।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

যে ক্ষত লড়তে শেখায়

৫ মে, ২০১২

Image

+

সকাল দশটা কুড়ি। দেওয়ানদিঘিতে সি পি আই (এম) বর্ধমান সদর জোনাল দপ্তরের সামনে প্রায় ৪০জনের সশস্ত্র উন্মত্ত তৃণমূল বাহিনী তখন ঘিরে ধরেছিল তাঁদের।

কোন কথা বলারও সুযোগ দেয়নি। প্রথমেই পাথরের বোল্ডার দিয়ে মাথার পিছন দিকে সজোরে মারা হয়। টাল সামলাতে না পেরে ছিটকে পড়েন প্রদীপ তা। এরপরে একইরকম ভাবে মারা হয় কমল গায়েনক। পরে তাঁরা দুজনেই নিহত হন। কেমন ছিল তার আদরের বাপী। সেরকমই টুকরো টুকরো কথা উঠে এসেছে পৃথা তা’য়ের ভাষায়।

মায়ের কর্মসূত্রে আমার ছোটবেলা কেটেছে কালনায়। বাবার উপস্থিতি তখনকার জীবনে ছিল বড় অনিয়মিত। বাবাকে আমি ‘বাপি’ বলেই ডাকতাম।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

Featured Posts

Advertisement