বই প্রকাশেও শ্রেণীর লড়াই

রাহুল মজুমদার

৫ নভেম্বর, ২০১১

Image

+

এক নতুন পরিস্থিতির মুখে বাংলার কমিউনিস্ট আন্দোলন, বামপন্থা। বেনজির আক্রমণের মুখে দাঁড়িয়ে। আক্রমণ শারীরিক। বহু বামপন্থী কর্মীকে, দরদীকে শহীদের মৃত্যুবরণ করতে হয়েছে বামপন্থায়, কমিউনিজমে অটুট আস্থা রাখার মূল্য দিতেই। আক্রমণের ক্ষত এখনও হাজার হাজার বামপন্থী কর্মী, কমিউনিস্ট মতাদর্শে বিশ্বাসী কর্মী-সমর্থকের শরীরে। আক্রমণের ক্ষত এখন লক্ষ লক্ষ মননেও।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

সুন্দরের হাতছানি
ধ্বংসের ক্ষত

সত্যেন সরদার

৩০ অক্টোবর, ২০১১

Image

+

ঘুরতে যাওয়ার আগে প্রাকৃতিক বিপর্যয়। ঘুরে আসার পর আর এক বিপর্যয়। দুই বিপর্যয়ের শিকার সেই পাহাড়ী মানুষ। রাজ্য ভাগের আন্দোলনও পাহাড়ের ঢালে তৈরি করেছে ধ্বংসচিহ্ন। এত ধ্বংসের মাঝেও সৌন্দর্যের হাতছানি। সঙ্গে অকৃত্রিম আন্তরিকতা। সেই পাহাড় ঘুরে এসেই লিখেছেন সত্যেন সরদার।

বিস্তারিত বিবরণ >>

জঙ্গলের পরিবর্তন আর টুসু

চন্দন দাস

২২ অক্টোবর, ২০১১

Image

+

4Kab4Kas4Ka/OiDgprbgp43gpq/gpr7gpq7gprIg4Kau4Kac4KeB4Kau4Kam4Ka+4Kaw

কুর্চিবনীর রাজেন সেনাপতি ছিলেন জমি বাঁচাও কমিটির পাণ্ডা।

কুর্চিবনী নিমাইনগরে। নিমাইনগর নয়াগ্রামে। নয়াগ্রামের ওপারে কেশিয়াড়ি। মাঝে সুবর্ণরেখা।

সেতু হওয়ার কথা ছিল নদীর উপর। সেতুর সঙ্গে হওয়ার কথা ছিল ব্যারেজ। টাকার সহায়তা মিলতো কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে। ফলে সেচের জমি বাড়তো। আবার যোগাযোগও মসৃণ হতো। সুবর্ণরেখার উপর একটি সেতু আছে, সিদো-কানহু-বীরসা সেতু। আর একটির দরকার ছিল।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

সোনার চাকা

অলক বিশ্বাস

১৫ অক্টোবর, ২০১১

Image

+

প্রেমের অনুভবে কবিতার সৌরভ। নীলাকাশের গায়ে নক্ষত্ররা কথা বলে। পঙ্‌ক্তিতে পঙ্‌ক্তিতে হৃদয়ের প্লাবন। রাত গাঢ হলে কবি খোঁজেন অন্ধকার। অন্ধকারের সৌন্দর্য। রঙ ও রস। তিনি ইমেজবাদী নন। কৌশলে কোনদিন কবিতাকে রূপ দেননি। হৃদয়ের আকুতিতে এঁকেছেন কবিতার চোঁখ। সুনিপুণ অবয়ব। সার্থক শিল্পী আমাদের। নিসর্গ ও প্রেম হাত ধরাধরি করে হেঁটেছে কফিহাউস থেকে ঠাকুরনগরের মেঠো আলপথে। তারপর তৃপ্তির অবগাহন শিমূলতলায়। ভালোবাসার রঙ উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে জীবনের সত্যে কখনো বা উপমায়।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

মুক্তি সংগ্রামে প্রথম যুগের
বিপ্লবী আন্দোলনের অবদান

অমলেন্দু দে

৮ অক্টোবর, ২০১১

Image

+

ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের ইতিহাস আছে। কিন্তু সশস্ত্র সংগ্রামে বিশ্বাসী বিপ্লবীদের কোনো ধারাবাহিক ইতিহাস নেই। তাই নবভারত গঠনে এই ধারাটির অবদান অনেকের কাছেই সুস্পষ্ট নয়। অথচ বিপ্লবী আন্দোলনের সঙ্ঘবদ্ধ প্রয়াস শুরু হয়েছিল জাতীয় কংগ্রেস প্রতিষ্ঠার নয় বছর আগে। ১৮৭৬খ্রীষ্টাব্দে মহারাষ্ট্রে তার সূত্রপাত। তারপর মহারাষ্ট্রের সংলগ্ন অঞ্চলে, বাংলায় ও পাঞ্জাবে বিপ্লবী আন্দোলন সংগঠিত রূপ পায়। অবশ্য বাংলায় মহাবিদ্রোহের পরেই বৈপ্লবিক চিন্তার উন্মেষ ঘটে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

ভাটার টান—বাংলা গান

সুরেন মুখোপাধ্যায়

১ অক্টোবর, ২০১১

Image

+

‘কোথায় হারিয়ে গেল সোনালী বিকেলগুলো সেই, আজ আর নেই’ — শুধু কফি হাউসের আড্ডা নয়, শারদ উৎসবের অন্যতম শরিক বাংলা গানের কথা স্মরণ করলেই এই পংক্তি যেন বারবার ফিরে ফিরে আসে। বাংলা গানের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি পালাবদল ঘটেছে বিশ শতকে। রবীন্দ্র-নজরুলসহ পঞ্চকবির স্রোত পেরিয়ে আধুনিক গানের স্বর্ণযুগ থেকে তার ক্ষয় এবং নতুন করে ফিরে তাকাবার সঙ্কেতও এসেছে এই সময়ে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

ওঁর দাসত্ব মানবেন না

শঙ্কর ঘোষাল

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১১

Image

+

ভারী সুন্দর গ্রাম, নাম পুতুণ্ডা। জানি না কংসরাজের বংশধরেরা কখনও এখানে এসেছিলেন কিনা। তবে শক্তিগড়ের রেলগেট পেরিয়ে দু’ধারে সবুজ ধানের খেত চিরেই গ্রামে ঢুকেছে পাকা রাস্তা। এখানে এখন বাস চলে। গ্রামে ঢোকার পরেই চোখে পড়বে দিগন্তজুড়ে শুধু ফসলের মাঠ। ভাদরের বেলায় সেই সোনার ধান ওড়নার মতো হাওয়ায় দুলছে। এমন লকলকে ধান যে গ্রামে সেখানকার মানুষের মুখে হাসি নেই কেন? ফসলের কথা জিজ্ঞেস করলে গাঁয়ের মানুষের মুখ ফ্যাকাসে হয়ে যায়।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

পেটকাটি
চাদিয়াল

সুরঞ্জনা ভট্টাচার্য

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১১

Image

+

হাবুদা বললেন, ‘আমার নামটি দিবেন নাকো। বরং আমার কাকা গুপীর দোকান বললে সবাই চিনবে। এ জায়গাটিতে গুপীর ঘুড়ি বললে একডাকে সব চিনতো বটে! দোকানে বিশ খানেক ঘুড়ি টাঙাইছি তাই ভাবতেছেন, বড় ব্যবসা। এর সাথে কথা কওন যায়। যায় না তো, এক্কেবারেই না’। হাবুদা বলেই চলেছেন, ‘আমি হলাম গে কাটা সৈনিক।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

উৎসবের মিষ্টি-কথা

কবি বক্সী

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১১

Image

+

উৎসব মানেই বাঙালী। উলটে বললে বাঙালীর সঙ্গে উৎসব কথাটি প্রায় সমার্থক। আর সেই উৎসবের উচ্ছ্বাস-আনন্দের সঙ্গে পর্যাপ্ত খাওয়া দাওয়ার আয়োজন— চর্বচোষ্য লেহ্যপেয়-এর সঙ্গে শেষপাতে মিষ্টি চাই-ই। ছোটোখাটো অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে বায়োয়ারি আয়োজনে পাত পেড়ে পঞ্চব্যঞ্জনের সঙ্গে শেষপাতে মিষ্টি না পড়লে বাঙালীর আবার রসতৃপ্তি হয় না।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

আন্দামান যাত্রীর ডায়েরি থেকে

পঙ্কজকুমার চক্রবর্তী

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১১

Image

+

আজ থেকে ৫২বছর আগে শিক্ষামূলক ভ্রমণে আন্দামান গিয়েছিলেন এই কাহিনীর লেখক পঙ্কজকুমার চক্রবর্তী। ১৯৫৯সাল। তখন তিনি নেহাতই এক কলেজ ছাত্র। কেমন ছিল তখনকার আন্দামান, কি দেখেছিলেন তিনি তাঁর অনুসন্ধিৎসু চোখ দিয়ে —তারই বর্ণনা তুলে ধরেছেন এই লেখাটিতে। দিয়েছেন যাত্রাপথের এক নিখুঁত বর্ণনা। বার্ধক্যের প্রান্তে এসে স্মৃতির সরণি বেয়ে আবার যেন সেই কৈশোর-যৌবনের সন্ধিক্ষণে ফিরে গিয়েছেন তিনি। নতুন করে ফিরে পেয়েছেন নিজেকে। ভ্রমণ কাহিনীটির মাধ্যমে লেখক নিজের সেই অভিজ্ঞতাই এবার ভাগ করে নিতে চাইছেন সবার সঙ্গে।...

বিস্তারিত বিবরণ >>

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement