আজকের দিনে



 

ছবির খাতা

জনতার ব্রিগেড

আরো ছবি

ভিডিও গ্যালারি

Video

শ্রদ্ধাঞ্জলি

আন্তর্জাতিক

 

শতবর্ষে শ্রদ্ধা

আপনার রায়

গরিবের পাশে থেকেছে বামফ্রন্টই

হ্যাঁ
না
জানি না
 

ই-পেপার

সমস্বর

বিশেষ সংবাদদাতা১৫ই, জানুয়ারি ২০১২
‘‘আমি আমার আসল মা-কে জানাতে চাই যে, যে মেয়েকে সে জন্মাবার কয়েক ঘণ্টায় পরিত্যাগ করেছিল সে এখন সুপ্রতিষ্ঠিত। আমি দেখাতে চাই যে মেয়েরা সমাজের পাপ বা পরিবারের বোঝা নয়’’ — বলছিল ‍‌শিবা। মুসৌরি কনভেন্ট স্কুলের প্রথম স্থানাধিকারী ছাত্রই যার ইচ্ছা‍‌ চিকিৎসক হবার। তারই মতো আরেক ছাত্রী লুসি। ১৯ বছর বয়সী লুসির একমাত্র ইচ্ছা ইংরাজীর অধ্যাপিকা হওয়ার।...

>>>

মধুজা সেনরায় ৮ই, জানুয়ারি ২০১২
কয়েক বছর আগেকার কথা। সংবাদমাধ্যম মারফত খবর পেয়ে গোটা দেশে ঝড় বয়ে গিয়েছিল। খবরটা ছিল— রাজস্থানের একটি গ্রামে কোনো বিবাহযোগ্যা মেয়ে নেই। আর অন্য গ্রাম থেকে সচরাচর বাবা-মায়েরা এই গ্রামে মেয়ের বিয়ে দিতেও রাজি হন না। কারণ এই গ্রামের রীতি ছিল এই যে, মেয়ে জন্মালে তাকে নুন খাইয়ে বা উথলানো দুধের কড়াইতে ফেলে মেরে ফেলা হতো। আর তার ফলেই এই বিপত্তি। আসলে, এই পিতৃতান্ত্রিক সমাজে মেয়েরা বরাবরই ‘Second Sex’ বা দ্বিতীয় লিঙ্গ হিসাবে বিবেচিত হয়েছে। সারা পৃথিবীতে কম-বেশি সর্বত্রই কন্যা সন্তানের থেকে পুত্র সন্তান অধিক কাম্য বলে বিবেচিত হয়েছে।...

>>>

পিয়ালী দাস১লা, জানুয়ারি ২০১২
দুই বছরের সন্ধিক্ষণকে ঘড়ির কাঁটায় অথবা ক্যালেন্ডারের পাতায় পৃথক করা যায়। কিন্তু আসলে তো বর্ষ বদলের সঙ্গে সঙ্গেই সব কিছুর পরিবর্তন হয় না, বিগত সময়ের রেশ থেকে যায়। তবুও নতুন বছরের সূচনায় পুরনোকে ফিরে দেখা একটা অভ্যাসের মতো। এবারেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। আর ‘ফিরে দেখা’র তালিকায় বাজারী সংবাদ মাধ্যমের শীর্ষে আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। সাড়ে তিন দশক পর পশ্চিমবঙ্গ থেকে বামফ্রন্ট সরকারকে সরিয়ে দেওয়ার ‘মুখ’ তো তিনিই।...

>>>

সত্যেন সরদার২৫শে, ডিসেম্বর ২০১১
বিপন্ন নারী-১: বিয়েতে পণ হিসাবে এক লক্ষ টাকা নগদ এবং ছয় লক্ষ টাকার গয়না ও আসবাব পেয়েও শ্বশুর বাড়ির খাই মেটেনি। আরো অর্থের জন্য শ্বশুর বাড়ি থেকে চাপ দেওয়া হতে থাকে মৌ হালদার (মণ্ডল)-য়ের উপর। চলতে থাকে নানা নির্যাতন, মারধর। এমনকি বিয়ের তিন বছরের মাথায় মৌ সন্তান সম্ভবা হলে শ্বশুর বাড়ির লোকজন ভুল ওষুধ খাইয়ে তাঁর গর্ভপাতও ঘটায়।...

>>>

জয়দীপ সরকার১১ই, ডিসেম্বর ২০১১
মেঘের টুকরো পাহাড়ে ধাক্কা খেয়ে সবুজ বনের ভেতরে ঢুকে যাচ্ছে ,গীর্জার ঘন্টার শব্দ ধাক্কা পাচ্ছে এক পাহাড় থেকে আরেক পাহাড়ে প্রতিধ্বনির সুর ছড়িয়ে দিচ্ছে পাহাড়ি গ্রামের পর গ্রামে । মানুষ উৎসব মুখর ,হতদরিদ্র আদিবাসী মানুষ ,এই শীতে ছাদহীন এক বুক ক্ষোভ নিয়ে বাঁচা মানুষ বুকে ক্ষোভের আগুন নিয়ে হাটছেন বাজারের দিকে । রঙ্গীন বেলুন দিয়েছে ফাদার, সেজেছে বাড়ি এলাকা। কুয়াশা আর মেঘ এর চাদর থেকে পাহাড় জাগবে সেই দুপুরে রোদ্দুর উঠলে ।...

>>>

তাপসী প্রহরাজ৪ঠা, ডিসেম্বর ২০১১
সম্প্রতি আমাদের প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশে গ্রামীণ ব্যাঙ্কের প্রতিষ্ঠাতা ড. মহম্মদ ইউনুসকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যানের পদ থেকে। নয়া উদারনীতির ব্যবস্থায় দুর্নীতির এখন আর কোনো সীমানা নেই। একটা ব্যাঙ্ক কর্তার অপসারণ হয়তো তেমন কোনো আকর্ষণীয় খবর নয়। কিন্ত মাইক্রো ফিনান্স-এর প্রবর্তক, যার জন্য তিনি নোবেল পুরস্কার পান, যাকে ‘গরিবের ভগবান’ হিসেবে তুলে ধরা হয়, তেমন একজনকে যখন তাঁরই তৈরি প্রতিষ্ঠান থেকে জোর করে সরিয়ে দেওয়া হয়, তখন নিশ্চিতভাবে সেটা আর ছোটো ঘটনা থাকে না। অর্থনীতির এক উজ্জ্বল ছাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনার পাঠ শেষ করে দেশে ফিরে যোগ দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে।...

>>>

শানু সরকার২৭শে, নভেম্বর ২০১১
‘আমার মেয়ে কার্যত শৈশব হারিয়ে ফেলেছিল। বাধ্য হয়ে মেয়েকে এক স্কুল থে‍‌কে অন্য স্কুলে নিয়ে যেতে হয়, কারণ ঐ স্কুলের শিক্ষকরা আমার মেয়ের সঙ্গে পশুসুলভ আচরণ করত, গালিগালাজ করত, অন্যদের থেকে দূরে সরিয়ে রাখত।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ননাবাড়ি জেলার এক মহিলা কাতরভাবে জানালেন তাঁর অসহায়তার কথা। ছোট্ট শিশুকন্যার অপরাধ সে এইচ আই ভি/ এইডস আক্রান্ত। বাবা-মায়ের থেকেই তার শরীরে সংক্রামিত হয়েছে মারণ রোগ।...

>>>

প্রলয় হাজরা২০শে, নভেম্বর ২০১১
আর হয়তো কথা বলবে না ছোট্ট বিট্টু। তার রিনরিনে গলায় আর হয়তো মা শুনতে পাবেন না মা ডাক। মা-মাটি-মানুষের সরকারকে যারা মাথার ছাতা করে নিয়ে রাজ্যের নানা জায়গায় আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে সেই তৃণমূলী দৃষ্কৃতীদের বর্বর, হিংস্র চেহারা দেখে বাকশক্তি হারিয়েছে ঐ একরত্তি ছেলেটা। অচেনা মানুষ দেখলেই আতঙ্কে মা’র বুকে মুখ লুকোচ্ছে সে। গত ৮ই নভেম্বরের ঘটনা। তার আগের দিন অর্থাৎ ৭ই, নভেম্বর বিপ্লব বার্ষিকীর কর্মসূচীতে যোগ দিয়েছিল বিট্টুর মা-বাবা। ‘পরিবর্তনের’ জমানায় সেটাই হয়ে গেছে ভয়ঙ্কর অপরাধ।...

>>>

প্রশান্ত শিকদার২০শে, নভেম্বর ২০১১
তাদের গ্রামের মেয়ে সামরিকবাহিনীর জওয়ানের পোশাকে তাদের মাঝখানে আসবে এ স্বপ্নের অতীত ছিল কালচিনি ব্লকের উত্তর মেন্দাবাড়ি এলাকার মানুষের। অত্যন্ত দরিদ্র কৃষক পরিবারে জন্ম শান্তি টিগ্গার। বাবা প্রয়াত বন্দনা টিগ্গা ছিলেন গরিব কৃষক। স্ত্রী-সহ চারপুত্র ও তিন কন্যার সংসারে কৃষিকাজ করে কোনোমতে সংসার চলতো তাদের। আর্থিক অনটনের মধ্যেও ছেলেমেয়েদের লেখাপড়া শেখাতে কার্পণ্য করেননি বাবা বন্দনা টিগ্গা।...

>>>

রেশমী সিনহা১৩ই, নভেম্বর ২০১১
ও ‘বিমলের বউ’, ‘রহিতের মা’ এই ওঁর পরিচয়। জন্মের পর বাবা-মা মেয়ের সাধ করে একটা নাম দিয়েছিলেন, কিন্তু সেই নাম কাজে লাগছে কই? পাড়া -প্রতিবেশী, আত্মীয়-স্বজনের কাছে তাঁর পরিচয় যে শুধু এটুকুই, কারও মা, বা কারও বউ। শ্যামলী বড়ুয়া, বছর তিরিশের সাদামাটা গড়নের একটি মেয়ে।...

>>>

পৃষ্ঠা :  1 | 2 | 3 | 4 | 5 | 6 | 7 | 8 | 9 | 10 | 11 | 12 | 13 |