রথযাত্রায় স্থগিতাদেশ কলকাতা
হাইকোর্টের আদালতে বড়
ধাক্কা বিজেপি-র

রথযাত্রায় স্থগিতাদেশ কলকাতা <br>হাইকোর্টের আদালতে বড় <br>ধাক্কা বিজেপি-র
+

গণশক্তির প্রতিবেদন: কলকাতা হাইকোর্ট খারিজ করল বিজেপি-র রথ যাত্রার আবেদন। বৃহষ্পতিবার কলকাতা হাইকোর্ট সাফ জানিয়ে দেয় যে ৭ই ডিসেম্বর সকাল ৯.৩০ টায় কোচবিহার থেকে বিজেপি কোনও মিছিল করতে পারবে না। এদিন হাইকোর্টের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তী জানান বিজেপি যে মিছিল করবে বলে আবেদন তা এত অল্প সময়ের মধ্যে আদালতের এত মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টি দেখা সম্ভব নয়। তা ছাড়াও তিনি বলেন যে ইন্টালিজেন্সের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা ব্যাহত হতে পারে বলে মনে করছে তিনি তাই এই আবেদন মঞ্জুর করার ব্যাপারে পুলিশ প্রশাসনের ক্ষমতা খতিয়ে দেখার প্রয়োজন আছে বলে মনে করে মহামান্য আদালত। এছারাও আদালত আরও জানায় যে এই মিছিল যেহতু এক বা দুদিনের ব্যাপার নয় দীর্ঘ সময় ধরে রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে দিয়ে যাবে তাই সেক্ষেত্রে রাজ্য কতটা পুলিশী নিরাপত্তা দিতে পারবে সেই দিকটি দেখবার বিষয়। সাধারণ মানুষের প্রাণ ও সম্পত্তি নাশের আশঙ্কা থেকে বর্তমান পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে এই মুহুর্তে আবেদন মঞ্জুর করা সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দেন বিচারপতি। এদিন আইনজীবী অর্ক কুমার নাগ বলেন যে আদালত জানিয়েছে আগামি ২১ ডিসেম্বর পুলিশ বিভিন্ন জেলার বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসে আইন শৃঙ্খলার বিষয়ে একটি রিপোর্ট তৈরি করবে এবং সেই রিপোর্ট আগামি ৯ ডিসেম্বর পরবর্তি শুনানির দিন জমা দিতে হবে আদালতে। সেই রিপোর্ট বিশ্লেষন দেখবেন বিচারপতি তারপর নেওয়া হবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। এত অল্প সময়ে এত মানুষের নিরাপত্তা দেওয়া যাবে না বলেই মনে করেছে আদালত। ফলত পরবর্তী শুনানির আগে পর্যন্ত কোনও রথযাত্রা করতে পারবে না বিজেপি।

 

যদিও এদিন ওই মামলাকে চ্যলেঞ্জ জানিয়ে বৃহষ্পতিবারই কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে যায় বিজেপি। কলকাতা হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতি দেবাশিস করগুপ্তের ডিভিশন বেঞ্চ বিজেপি-র রথযাত্রা মামালার আর্জি গ্রহন করে এদিন বিকেলে। শুক্রবার সকাল ১০.৩০টায় সেই মামলার শুনানি হবে।