কলেজে আটকে এস এফ আই
নেত্রীকে বেধড়ক মারধর তৃণমূলের,
রেহাই পায়নি বাবা-মা’ও

কলেজে আটকে এস এফ আই <br>নেত্রীকে বেধড়ক মারধর তৃণমূলের, <br> রেহাই পায়নি বাবা-মা’ও
+

গণশক্তির প্রতিবেদন: শিলিগুড়ির কলেজে আটকে রেখে এস এফ ‌আই নেত্রীকে বেধড়ক মারধর করল টিএমসিপি-র দুষ্কৃতীরা। প্রহৃত এস এফ আই-র নেত্রী শিলিগুড়ি মহিলা কলেজ শাখার আহ্বায়ক অনিন্দিতা চক্রবর্তী। এদিকে, বোনকে কলেজে আটকে রেখে মারধরের খবর পেয়ে কলেজে ছুটে আসেন অনিন্দিতার দিদি অয়ন্তিকা চক্রবর্তী। অয়ন্তিকার দিদিকেও কলেজের বাইরে বেধড়ক মারধর করে টিএমসিপি-র বহিরাগতরা। দুই মেয়ে কলেজে টিএমসিপির হাতে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন অনিন্দিতা চক্রবর্তীর বাবা ও মা। টিএমসিপির আক্রমণের হাত থেকে রেহাই পাননি তাঁরাও। তাঁদেরকেও বেধড়ক মারধর করে তৃণমূল। বৃহস্পতিবার টিএমসিপির দলীয় কর্মসূচীতে জোর করে শিলিগুড়ি মহিলা কলেজ থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় দুশো ছাত্রীকে। প্রতিবাদে শিলিগুড়ি মহিলা কলেজের টিচার ইন-চার্জ সাথী ব্যানার্জীকে এস এফ আই-র পক্ষ থেকে একটি স্মারক লিপি দেওয়া হয়। এস এফ আই-র শিলিগুড়ি মহিলা কলেজ শাখার আহ্বায়ক হিসেবে অনিন্দিতা চক্রবর্তীর নেতৃত্বেই এই স্মারকলিপি পেশ করা হয়। জানা গেছে, তারই প্রতিশোধ নিতে টিএমসিপি এই হামলা চালিয়েছে। এই ঘটনার প্রতিবাদে এদিন শিলিগুড়ি শহরে বিশাল প্রতিবাদ মিছিল হয়। মিছিলে ছিলেন শিলিগুড়ির মেয়র ও বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্যসহ বহ বিশিষ্ট ব্যাক্তি। অনিল বিশ্বাস ভবন থেকে মিছিল বের হয়ে শিলিগুড়ি থানার সামনে অবস্থান ও বক্তব্য রাখা হয়।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement