আজ পৌরভোটে
মানুষকে লড়াই
করতে হবে 

আহ্বান বিমান বসুর 

আজ পৌরভোটে<br>মানুষকে লড়াই<br> করতে হবে 
+

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতা, ১২ই আগস্ট— রবিবার রাজ্যের ৭টি পৌরসভার নির্বাচন। এই নির্বাচনকে কার্যত প্রহসনে পরিণত করার জন্য ওইসব এলাকায় পুলিশ ও প্রশাসনের মদতে ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি করেছে শাসকদলের দুষ্কৃতীবাহিনী। গণতন্ত্রকে রক্ষা ও পুনরুদ্ধার করার জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডের ভোটদাতাদেরই লড়াইয়ে নামতে হবে। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু শনিবার একথা বলেছেন। 
এদিন সকালে মুজফ্‌ফর আহ্‌মদ ভবনে রাজ্য বামফ্রন্টের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বামফ্রন্টের শরিক দলগুলির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকের পর সাংবাদিক সম্মেলনে ৭টি পৌরসভার নির্বাচন ও দুটি ওয়ার্ডের উপনির্বাচনের কথা উল্লেখ করে বিমান বসু বলেন, রবিবার এই নির্বাচন হবে। কিন্তু শাসকদল এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করেও মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিতে চাইছে, গণতন্ত্রকে ধ্বংস করতে চাইছে। নির্বাচিত সংস্থায় কোনও নাগরিকের নির্বাচিত হওয়ার অধিকারই থাকছে না তৃণমূল সরকারের আমলে। বিমান বসু এইসব পৌর এলাকায় যেভাবে তৃণমূলের বাইকবাহিনী সন্ত্রাস নামিয়ে এনেছে, তা তুলে ধরে বলেন, বিশেষ করে গত বৃহস্পতিবার থেকে দুর্গাপুরের ১৪ থেকে ২৫নং ওয়ার্ডে কার্যত সন্ত্রাসের রাজত্ব তৈরি করেছে তৃণমূল। এমনকি, ৮৫বছর বয়সি মানুষকেও রেহাই দেয়নি এই দুষ্কৃতীরা। বামফ্রন্ট প্রার্থীদের সমস্ত ব্যানার, ফ্লেক্স ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রার্থীর বাড়ির সামনে বোমাবাজি করা হচ্ছে। বামফ্রন্ট কর্মীদের ওপর আক্রমণ করে আবার তাঁদের নামেই মিথ্যা মামলা করা হচ্ছে। বিমান বসু উদাহরণ হিসাবে দুর্গাপুরের সি পি আই (এম) নেতা পঙ্কজ রায় সরকারের কথা বলেন। তৃণমূলী দুষ্কৃতীদের মারে তিনি এমনভাবে আহত হয়েছেন যে তাঁকে সেখানকার মিশন হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। আবার তাঁর নামেই মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। 
বিমান বসু এদিন বলেন, রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে এর সমস্ত কিছুই জানানো হয়েছে। কিন্তু কমিশন স্বাধীন, নিরপেক্ষ ভূমিকা গ্রহণ করছে না। তিনি বলেন, দুর্গাপুরের নির্বাচনে ভোট লুটের জন্য শাসকদলের পক্ষ থেকে বহিরাগত দুষ্কৃতীদের নিয়ে এসে বিভিন্ন হোটেল, লজ ও গেস্ট হাউসগুলিতে রাখা হয়েছে। আসানসোল, জামুড়িয়া, রানীগঞ্জ, বাঁকুড়া, বীরভূম এমনকি ঝাড়খণ্ড থেকে পর্যন্ত লোক নিয়ে আসা হয়েছে, যাদের সঙ্গে এই ভোটের কোনও সম্পর্ক নেই। বিমান বসু বলেন, হলদিয়া এবং পাঁশকুড়াতেও একইভাবে বাইরে থেকে দুষ্কৃতীদের নিয়ে এসে বিভিন্ন জায়গায় রাখা হয়েছে। আমরা যেখানে এদের রাখা হয়েছে, তার তালিকা করে প্রশাসন ও রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছি। কিন্তু পুলিশ কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি। হলদিয়া এবং পাঁশকুড়াতে শুক্রবার রাতে বিভিন্ন এলাকায় তাণ্ডব করেছে এই দুষ্কৃতীরা। বিমান বসু বলেন, সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন করতে রাজ্য সরকার কোনও ব্যবস্থাই নেয়নি। পুলিশ ও মাসলম্যানদের দিয়ে ভোট করাচ্ছে শাসকদল। শাসকদলের নির্দেশে হলদিয়া সূর্য মিশ্রের পদযাত্রা এবং পাঁশকুড়ায় আমার পদযাত্রার অনুমতি বাতিল করেছে পুলিশ। ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি করা হয়েছে। রাজ্য বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে আমরা এর তীব্র নিন্দা করছি এবং ভোটদাতাদের কাছে আবেদন করছি, বামফ্রন্ট কর্মীদের সঙ্গে গণতন্ত্রকে রক্ষা ও পুনরুদ্ধার করার জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডের আপনাদেরই লড়াইয়ে নামতে হবে। 
এদিন বামফ্রন্টের বৈঠকে ১৫ই আগস্ট দেশের ঐক্য, সংহতি, ধর্মনিরপেক্ষতা ও সম্প্রীতি রক্ষায় রাজ্যের সর্বত্র ‘মানববন্ধন’ কর্মসূচি পালন এবং স্বাধীনতা দিবসের শপথ গ্রহণ করার বিষয়ে আলোচনা হয়। বিমান বসু জানান, রাজ্যের জেলায় জেলায় এই কর্মসূচি পালন হবে। কলকাতাতে কেন্দ্রীয়ভাবে সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার থেকে রফি আহমেদ কিদোয়াই রোড, এস এন ব্যানার্জি রোড, এ জে সি বসু রোড, মল্লিকবাজার, পার্ক স্ট্রিট হয়ে পার্ক সার্কাস সাত মাথার মোড় পর্যন্ত ৪কিলোমিটার দীর্ঘ একটানা একটি মানববন্ধন হবে। সর্বত্র সকাল সাড়ে ১০টায় জমায়েত হয়ে ১১টা থেকে ১১টা ১০মিনিট পর্যন্ত শপথগ্রহণ হবে। বিমান বসু জানান, কলকাতায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে ৬টি জায়গায় রাজ্য বামফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ অংশ নেবেন। এই ৬টি জায়গা হলো: সুবোধ মল্লিক স্কোয়ার, তালতলা বাজার, মৌলালি, জোড়া গির্জা, মল্লিকবাজার ও পার্ক সার্কাস সাত মাথার মোড়। 
বিমান বসু এদিন আরও জানান, দার্জিলিঙ-এর জনজীবন যেভাবে বিপর্যস্ত হয়ে রয়েছে তাকে স্বাভাবিক করার দাবিতে, অবিলম্বে কেন্দ্রীয় সরকার, রাজ্য সরকার ও আন্দোলনকারীদের নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক ডেকে সমস্যার সমাধান করার দাবিতে এবং পাহাড় ও সমতলের বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষের ঐক্য ও সংহতি রক্ষা করা ও এই ঐক্য ভাঙার চেষ্টা প্রতিহত করার লক্ষ্যে আগামী ১৭ই আগস্ট কলকাতায় কেন্দ্রীয় মিছিল হবে। দুপুর আড়াইটের সময় ধর্মতলায় লেনিন মূর্তির সামনে থেকে এই মিছিল শুরু হবে এবং এন্টালি বাজারে এসে শেষ হবে। মিছিল শেষে এন্টালিতে সভা হবে। 

Featured Posts

Advertisement