২০তম গ্র্যান্ডস্ল্যামের
লক্ষ্যে ফেডেরার

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতে 

২০তম গ্র্যান্ডস্ল্যামের<br>লক্ষ্যে ফেডেরার
+

মেলবোর্ন, ১১ই জানুয়ারি — রড লাভের এরিনাকে নতুন রঙে সাজাতে টেনিস কোর্টে নামবেন কিংবদন্তি রজার ফেডেরার, রাফায়েল নাদাল, নোভাক জকোভিচরা। বৃহস্পতিবার তার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেছে টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটি। ৬ বারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন চ্যাম্পিয়ন নোভাক জকোভিচের সদ্য প্রকাশিত টেনিস তালিকায় ১৪ নম্বরে রয়েছেন। এক নম্বর খেলোয়াড় হিসাবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নামবেন রাফায়েল নাদাল। গতবারের চ্যাম্পিয়ন রজার ফেডেরার দুইয়ে। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রথম রাউন্ডে রজার মুখোমুখি আলজাজ বেদেনে। প্রথম রাউন্ডে নাদালের সামনে ভিক্টর এস্ত্রেলে বুর্গস। মেয়েদের এক নম্বরে থেকে প্রতিযোগিতায় নামবেন সিমোনা হালেপ। দুইয়ে ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। কনুইয়ের চোট থাকলেও বুধবার টেনিস কোর্টে খেলতে নেমেছিলেন জকোভিচ। ছয়মাস পর টেনিস কোর্টে প্রত্যাবর্তন করেছেন তিনি। ডমিনিক থিয়েমকে কুইয়ন ক্লাসিক টুর্নামেন্টে হারিয়ে আবার ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন সার্বিয়ান টেনিস তারকা। গত বছর জুলাইয়ে টমাস বার্ডিচের বিরুদ্ধে উইম্বলডনের কোয়ার্টারে হারের পর আবার খেলতে নামবেন ১২টি গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ী নোভাক।
বোঝাই যাচ্ছে, ফেডেক্স, নাদাল এবং জকোভিচই এবারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেতাবি দৌড়ে থাকবেন। অন্যদিকে উইম্বলডন জয় ছাড়াও এটিপি প্রতিযোগিতায় ভালো ফল করেছিলেন ফেডেরার। মরশুমের প্রথম গ্র্যান্ডস্ল্যামে নামার আগে চনমনে ফেডেক্স। তিনি একেবারে চোটমুক্ত। এবার ২০তম গ্র্যান্ডস্ল্যাম খেতাবের লক্ষ্য রজারের সামনে। এমনকি অনিশ্চয়তার আওতায় থাকা সুইস টেনিস খেলোয়াড় স্ট্যানিসলাস ওয়ারিঙ্কাও এই টুর্নামেন্টে খেলবেন। হাঁটুর চোট থাকলেও তিনি এখন অনেকটাই সুস্থ। উইম্বলডনের পরে আর কোনও টেনিস টুর্নামেন্ট খেলননি ওয়ারিঙ্কা। সেরেনা উইলিয়ামস না থাকায় মেয়েদের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নতুন চ্যাম্পিয়ন দেখা যাবে। উইম্বলডন জয়ী গ্যব্রিন মুগুরুজা, এবং ভালো ফর্মে থাকা সিমোনা হালেপদের সামনে নতুন খেতাব জয়ের সুযোগ থাকবে।

Featured Posts

Advertisement