বাংলাদেশকে হালকাভাবে
নিচ্ছেন না রোহিতরা

বাংলাদেশকে হালকাভাবে<br>নিচ্ছেন না রোহিতরা
+

কলম্বো, ১৩ই মার্চ — হরা দিয়ে সফর শুরু করেছিল ভারত। ত্রিদেশীয় সিরিজে এরপর টানা দুই ম্যাচে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে হারান রোহিতরা। গ্রুপ পর্বে ফের একবার বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নামছে তারা। ভারতকে টি-২০ তে কখনো হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রথম জয়ের খোঁজে। তবে বাংলাদেশকে হালকাভাবে নিচ্ছেন না রোহিত শর্মারা। বলা ভালো, নিতে পারছেন না। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ২১৪ রান তাড়া করে জিতেছে বাংলাদেশ। টি-২০-র ইতিহাসে অন্যতম বড় জয়। 
রোহিত শর্মার ব্যাটিং ছন্দ ছাড়া বেশি কিছু নিয়ে ভাবার প্রয়োজন নেই ভারতের। বোলিংয়ে কেউ না কেউ দায়িত্ব নিচ্ছেন। গত ম্যাচে যেমন অনবদ্য বোলিং করেছেন তরুণ পেসার শার্দুল ঠাকুর। রোহিত রান না পেলেও ছন্দে রয়েছেন শিখর ধাওয়ান। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও সীমিত ওভারের ফরম্যাটে ভালো ছন্দে ছিলেন ধাওয়ান। শ্রীলঙ্কাতেও। ভারতের জন্য ইতিবাচক দিক, মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানদের রান পাওয়া। গত ম্যাচে দুই ওপেনার দ্রুত ফিরলেও সুরেশ রায়না, দীনেশ কার্তিক, মণীশ পান্ডে ম্যাচ জেতাতে সাহায্য করেছেন। টানা ম্যাচ থাকায় এদিন আর অনুশীলনের পথে পা বাড়ায়নি ভারতীয় দল। সুরেশ রায়নার মতো অনেকেই অবশ্য জিমে সময় কাটিয়েছেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এই ম্যাচে দলে পরিবর্তনের সম্ভাবনা কম। তবে ফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে থাকায় একটা পরিবর্তন দেখা যেতে পারে। বিজয়শংকরের জায়গায় খেলানো হতে পারে দীপক হুদাকে। 
শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে রেকর্ড জয় পেলেও বাংলাদেশের বোলিং সুবিধাজনক হচ্ছে না। তাস্কিন আহমেদ ওভার প্রতি ১১-র উপর রান। বাকি দুই পেসারের পারফরম্যান্স আহামরি নয়। তাদের ব্যাটিং ভরসা জুগিয়েছে। আলাদা করে বলতে হয় লিটন দাসের কথা। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওপেনিংয়ে পাঠানো হয়েছিল তাঁকে। লিটনের ঝোড়ো ইনিংসে ছন্দ পায় বাংলাদেশ। বাকি কাজটা সম্পূর্ণ করেন মুসফিকুর রহিমরা। সেই জয় থেকে বাড়তি আত্মবিশ্বাস পেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। টুর্নামেন্টে এখনো অবধি নিজেদের পারফরম্যান্সে খুশি। এখানেই থেমে থাকতে নারাজ। ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করে সেদিকে এগতে বদ্ধপরিকর। ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘শ্রীলঙ্কায় আসার আগেই আমাদের লক্ষ্য পরিষ্কার ছিল। অন্তত ফাইনাল অবধি যেতে চাই। জেতার লক্ষ্য সকলেরই থাকে। একটা জয়ে আত্মতুষ্ট হতে চাই না। মাটিতে পা রেখেই চলছি। টি-২০ তে আমাদের যোগ্যতা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন। নিজেদের একটা ঘরানা তৈরি করতে চাই।’
 

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement