সন্ত্রাস, ছাপ্পাতেও ৫০% ভোট
পায়নি তৃণমূল কংগ্রেস

গ্রাম পঞ্চায়েত, সমিতি

সন্ত্রাস, ছাপ্পাতেও ৫০% ভোট<br>পায়নি তৃণমূল কংগ্রেস
+

নিজস্ব প্রতিনিধি : কলকাতা, ২২শে মে— বারুদের গন্ধ আর লাশের মিছিলের পঞ্চায়েত ভোটেও শাসকদল ও তৃণমূল কংগ্রেস গ্রাম পঞ্চায়েত এবং পঞ্চায়েত সমিতিতে ৫০ শতাংশ ভোটে পৌঁছাতে পারল না। এরইসঙ্গে রয়েছে দেদার ছাপ্পাও। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে পঞ্চায়েতে ৬৬ শতাংশ বুথে ভোটগ্রহণ করা হয়। সেখানে ভোটার ছিলেন ৫কোটি ৮ লক্ষের সামান্য কিছু বেশি। গ্রাম পঞ্চায়েতে ৪৮৬৬০টি আসনের মধ্যে ৩১৭৭৭টি আসনে ভোট হয়েছে। তাতে তৃণমূল ২১ হাজার ২৬৮টি আসন পেলেও ভোট পেয়েছে ৪২.৪৪ শতাংশ ভোট। আর সব মি‍‌লিয়ে বিরোধীরা ১০ হাজার ৫০৯টি আসন পেলেও বিরোধী ঝুলিতে গিয়েছে ৫৭.৫৬ শতাংশ ভোট। 
পঞ্চায়েত সমিতিস্তরে ৯২১৭ টি আসনের মধ্যে ভোট হয়েছে ৬১১৮টি আসনে। সেখানে শাসকদল ৪ হাজার ৯৭২টি আসন পেলেও ভোটের নিরিখে তারা পেয়েছে ৪৪.২৯ শতাংশ ভোট। আর বিরোধীরা ১ হাজার ১৪৬টি আসন পেলেও পঞ্চায়েত সমিতিস্তরে বিরোধী ভোট ৫৫.৭১ শতাংশ। জেলা পরিষদে এসে তৃণমূল কিছুটা ভোট বাড়িয়েছে। জেলা পরিষদে শাসকদল ৫৬.০১ শতাংশ ভোট পেয়েছে। জেলা পরিষদে ৮২৫টি আসনের মধ্যে ৬২১টি আসনে ভোটগ্রহণ করা হয়। ৫৯০টি আসন অর্থাৎ ৯৪ শতাংশ আসন শাসকদলই দখল করে নিয়েছে। বিরোধীরা সব মিলিয়ে পেয়েছে মাত্র ৪ শতাংশ আসন অর্থাৎ মাত্র ৩১টি আসন পেয়েছে বিরোধীরা। আর ভোটের দিক দিয়ে ৪৩.৯৯ শতাংশ ভোট জেলা পরিষদে বিরোধীদের দি‍‌কে এসেছে। জেলা পরিষদে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে যে ৬২১টি আসনে ভোট হয়েছে তাতে বি জে পি পেয়েছে ২২টি, কংগ্রেস ৬টি, বামফ্রন্ট ১টি এবং নির্দল পেয়েছে ২টি আসন।
১৪ই মে ভোটগ্রহণের পর ১৭ তারিখ গণনা হয়। তারপর ৫দিন পর মঙ্গলবার রাজ্য নির্বাচন কমিশন এদিন পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করেছে। গ্রাম পঞ্চায়েতে ৩১ হাজার ৭৭৭টি আসনের মধ্যে বি জে পি পেয়েছে ৫ হাজার ৭৭৫টি , সি পি আই ৩৪টি, সি পি আই (এম) ১ হাজার ৪৮৬টি, কংগ্রেস ১ হাজার ৬৪টি, ফরওয়ার্ড ব্লক ৯৪টি, আর এস পি ১০০টি, অন্যান্য ১০০টি এবং নির্দল ১ হাজার ৮৫৩টি আসন। গ্রাম পঞ্চায়েতে সি পি আই (এম) সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে নদীয়াতে ১৭৯টি। তারপর দক্ষিণ ২৪ পরগনা ১৬৫টি, পুরুলিয়াতে ১৫৫টি, পূর্ব মেদিনীপুরে ১৩৫ টি, হুগলীতে ১১৫ টি। সবচেয়ে কম আসন পেয়েছে কোচবিহারে ৩টি, বীরভূমে ৫টি এবং পশ্চিম বর্ধমানে ১১টি, উত্তর ২৪ পরগনাতে ৮৯টি আসন পেয়েছে গ্রাম পঞ্চায়েতে। আর পঞ্চায়েত সমিতিতে সি পি আই (এম) সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে পুরুলিয়াতে ২১টি, কংগ্রেস পেয়েছে ৩৩টি। কংগ্রেস মালদহে পেয়েছে ৫৫টি এবং মুর্শিদাবাদে পেয়েছে ২২টি পঞ্চায়েত সমিতির আসন। সি পি আই (এম) ১৮টি পঞ্চায়েত সমিতি আসন পেয়েছে মালদহে, উত্তর দিনাজপুরে পেয়েছে ১০টি, দক্ষিণ ২৪ পরগনাতে পেয়েছে ১৭টি আসন। পঞ্চায়েত সমিতিতে সি পি আই (এম) মোট আসন পেয়েছে ১১১টি, সি পি আই ১টি, কংগ্রেস ১৩৩টি, ফরওয়ার্ড ব্লক ১৩টি, আর এস পি ৫টি অন্যান্য ৯টি এবং নির্দল ১১২টি আসন। 

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement