বি জে পি-র বাধা ঠেলেই অনাহারক্লিষ্ট  মানুষের কাছে পৌঁছালেন মানিক সরকার

বি জে পি-র বাধা ঠেলেই অনাহারক্লিষ্ট  মানুষের কাছে পৌঁছালেন মানিক সরকার
+

নিজস্ব সংবাদদাতা: আগরতলা, ১২ই জুন— বি জে পি জোটের দুর্বৃত্তদের বাধা ঠেলে, প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেই ত্রিপুরার গণ্ডাছড়ার প্রত্যন্ত গ্রামে পৌঁছালেন সি পি আই (এম) পলিট ব্যুরো সদস্য এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার। সঙ্গে ছিলেন দুই বিধায়ক তপন চক্রবর্তী, প্রভাত চৌধুরি। ছিলেন প্রাক্তন বিধায়ক ললিতমোহন ত্রিপুরা। মঙ্গলবার ধলাই জেলার গঙ্গানগর এবং জগবন্ধুপাড়ার দুই গ্রামে গিয়ে মানুষের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। প্রত্যন্ত অঞ্চলের এই উপজাতিনিবিড় গ্রামগুলির নারী-পুরুষরা এগিয়ে এসে মানিক সরকারের কাছে খাবার এবং কাজের আকালের কথা জানান। 
সোমবারই মানিক সরকার গণ্ডাছড়ায় পৌঁছালে বি জে পি দুর্বৃত্তরা তাঁকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। এদিনও সেই একই কায়দায় বি জে পি দুর্বৃত্তরা মানিক সরকারকে বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া এলাকার জনপদগুলিতে যেতে বাধা দেয়। হাতিমাথা চৌমুহনিতে অল্প কিছু বি জে পি কর্মী রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। জানা যায়, এদের এখানে মোতায়েন করার জন্য সকাল থেকেই ব্যবস্থাপনা করেছে বি জে পি-র নেতারা। গণ্ডাছড়া থেকে এদের কাছে খাবারও পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এলাকার মানুষের ওপরেও চাপ তৈরি করা হয় অবরোধে যোগ দেওয়ার জন্য। যদিও মানুষকে আনা সম্ভব হয়নি। দুই শিশুকোলে মা জানালেন, খাবারের সংকট। দশদিনের রেগার কাজ পাওয়া গিয়েছিল কিন্তু মজুরি মেলেনি। মানিক সরকারকে রাস্তা আটকে ঢুকতে না দেওয়ায় গ্রামের মানুষ ক্ষোভ জানিয়ে বলেন, এভাবে তো সত্যকে চাপা দেওয়া যাবে না। আমাদের এখানে খাবারের সংকট। এখানের মানুষকে ছুঁটতে হচ্ছে সীমান্তের ওপারে। মানিক সরকার তাঁর সঙ্গে থাকা পুলিশ কর্তাদের জানিয়ে দেন বি জে পি কর্মীরা অবরোধ করলেও বলপ্রয়োগ করে তাদের না সরাতে। এখান থেকে জগবন্ধুপাড়ার দিকে যান তাঁরা। 
জগবন্ধুপাড়ায় বিকালে আসার কথা থাকলেও দুপুরেই এসে পড়েন মানিক সরকারসহ প্রতিনিধি দল। দুপুরে প্রবল বৃষ্টির মধ্যেই গ্রামের ভিতর থেকে বাজারে এসে হাজির হন মহিলা, পুরুষ, বয়স্করাও। প্রায় সকলের সঙ্গেই কথা বলেন মানিক সরকার। বিভিন্ন দূরবর্তী এলাকা থেকে আসা মানুষ সকলেই মানিক সরকারকে বলেন, কাজ নাই। খাবারও নাই। রেগার কাজ মিলছে না। দশদিনের কাজের অর্ডার হলেও কাজ দিচ্ছে না। কাজ নিয়ে বি জে পি- আই পি এফ টি-র সংঘাত চলছে। 
এখান থেকে ফেরার পথে গঙ্গানগরে আসে প্রতিনিধি দল। মানিক সরকার আসবেন শুনে প্রায় দুই শতাধিক মানুষ এখানের কমিউনিটি হলে জড়ো হয়েছিলেন। গঙ্গানগর ব্লকের পাঁচটি ভিলেজ কমিটির চেয়ারম্যানরা জানান গত তিন মাসে এ ডি সি ভিলেজগুলির কি অবস্থা হয়েছে। এখানেও মানিক সরকার মানুষের থেকে অভাব, অভিযোগ গুলি শোনেন। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, বি জে পি জোট সরকার তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করুক। গ্রাম-পাহাড়ের মানুষ যাতে অনাহারে না থাকেন, কাজের সংকটে না পড়েন সেটা নিশ্চিত করুক সরকার। বুধবার লঙতরাই মহকুমার থালছড়ায় যাবেন মানিক সরকারসহ প্রতিনিধি দল। 

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement