অবাক বিদায়
ফেডেরারের

অবাক বিদায়<br>ফেডেরারের
+

লন্ডন, ১১ই জুলাই— চার ঘণ্টা ১৩ মিনিটের রুদ্ধশ্বাস ম্যাচের ক্লান্তি পরিষ্কার ধরা পড়ছে চোখেমুখে। ৩৬ বছর বয়সি মহাতারকা ১ নম্বর কোর্টের পাশের ছায়াঘেরা সাইডলাইন দিয়ে দর্শকদের উদ্দেশে হাত নাড়লেন। মাথা তুললেন না। ফিরেও দেখলেন না। তাঁর গর্বের মাটিতে আজ তিনি পরাভূত। পক্ষান্তরে দক্ষিণ আফ্রিকার কেভিন আন্ডারসনের মুখে স্ফীত হাসি।
    ৬ ফুট ৮ ইঞ্চির দক্ষিণ আফ্রিকান প্রতিপক্ষের কাছে জেতা ম্যাচ ফেলে এলেন রজার ফেডেরার। প্রতিযোগিতার শীর্ষ বাছাই হার মানলেন ৬-২, ৭-৬ (৫), ৫-৭, ৪-৬, ১১-১৩ সেটে। তৃতীয় সেটের দশম গেমে ম্যাচ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছিলেন ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মালিক। আগের দুটি সেট জেতার পর ৫-৪ গেমে ফেডেরার অ্যাডভান্টেজে। সেখান থেকে একটা ছোট ভুলের মাশুল এভাবে দিতে হবে, কল্পনাতীত ছিল সুইস কিংবদন্তির কাছে। ব্যাকহ্যান্ডে ভুল করে বসলেন। খাদের কিনারা থেকে বাড়তি আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে ফিরে আসেন ৩২ বছরের দক্ষিণ আফ্রিকান। আটবারের উইম্বলডনকে হারালেন দুসেটে পিছিয়ে থেকে। এই প্রথম নয়। এর আগেও দুবার ০-২ পিছিয়ে থেকে জিতেছেন। বৃহস্পতিবার জিতলে টানা ৩৫টি সেট জিততেন উইম্বলডনে। কেরিয়ারের প্রথম উইম্বলডন কোয়ার্টার ফাইনাল খেলতে নামা আন্ডারসন টের পাওয়ালেন, ফেডেরার বাস্তবে রক্তমাংসে গড়া মানুষ। আন্ডারসন পরিশ্রান্ত ফেডেরারকে র‌্যালিতে বাধ্য করাচ্ছিলেন। সাধারণ স্লাইস বা রিটার্নও জায়গা রাখতে ব্যর্থ হচ্ছিলেন চতুর্থ সেটের পর। শেষ সেট ১১-১১ চলা অবস্থায় ফেডেরার চাপের মুখে ডাবল ফল্ট করে গেম ফসকান। আন্ডারসন নিজের সার্ভিস ধরে রেখে গতবারের চ্যাম্পিয়নকে ছিটকে দিতে কোনও ভুল করলেন না।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement