রায়পুর চা-বাগানে তালা
মালিক পলাতক

রায়পুর চা-বাগানে তালা<br>মালিক পলাতক
+

গণশক্তির প্রতিবেদন: শারোদোৎসবের আগে ফের বাগানে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে গেল মালিকপক্ষ। ফলে শারোদোৎসবের মুখে ফের অচলাবস্থা তৈরি হল জলপাইগুড়ির রায়পুর চা-বাগানে। শুক্রবার সকালে কাজে যোগ দিতে এসে চা শ্রমিকেরা দেখতে পান বাগানের গেটে সাসপেননশন অফ ওয়ার্কের নোটিশ ঝোলানো রয়েছে। বাগান খোলার আর্জি নিয়ে শনিবার জেলা প্রশাসনের দারস্থ হবেন রায়পুর বাগানের শ্রমিকরা। এই চা বাগানে মোট ৬৭৮ জন্য স্থায়ী শ্রমিক সহ ১১০০ জন শ্রমিকের রুজিরুটি আজ প্রশ্ন চিহ্নের মুখে এসে পড়েছে। সব মিলিয়ে প্রায় চার হাজার মানুষের বসবাস এই বাগানে। ২০০৩ সালে প্রথম বন্ধ হয় রায়পুর চা বাগান। এরপর টানা সাত বছর বন্ধ থাকার পর ২০১১ সালে ফের চালু হয় বাগান। ফের ২০১৩ সালে আবার ও বন্ধ হয় এই বাগান। ২০১৪ সালে পুনরায় খুলে যায় বাগান। চা শ্রমিকেরা জানান, ''পুজোর আগে মালিক বাগানে তালা ঝুলিয়ে দিলো। কী করে চলবে আমাদের? একবারও তো আমাদের কথা কেউ ভাবলো না। এবার পুজোর মুখে এতো বড়ো ধাক্কা কী হবে জানি না আমরা।'' উল্লেখ্য, গত তিন মাস ধরে বাগানের চা শ্রমিক কর্মচারীরা বেতন পাচ্ছে না। ম্যানেজার কে বললে আজ দেবেন, কাল দেবেন বলে ঘুরিয়ে চলছেন। পুজোর মুখে বোনাস সহ বকেয়া টাকা পাবার আশায় দিন গুনছিলেন শ্রমিক কর্মচারীরা। কিন্তু সব আশায় জল ঢেলে দিয়ে মালিক পক্ষের প্রতিনিধি বাগান ম্যানেজার বাগানে তালা ঝুলিয়ে বাগান ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। দ্রুত বাগানের অচলাবস্থা কাটাতে প্রশাসনের দারস্ত হবেন শ্রমিকরা। শনিবার জেলা প্রশাসন কে বিষয় টি জানাবেন তারা। সদর মহকুমা শাসক রঞ্জন সাহা বলেন, এ বিষয়ে তার না কি কিছু জানা নেই। শ্রম দফতরকে খোঁজ নিতে বলবেন বলে জানান মহকুমাশাসক।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement