সিলিকোসিস আক্রান্তদের পাশে বিজ্ঞান মঞ্চ

 সিলিকোসিস আক্রান্তদের পাশে বিজ্ঞান মঞ্চ
+

গণশক্তির প্রতিবেদন: পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ উত্তর ২৪ পরগনা জেলা কমিটির পক্ষ থেকে শুক্রবার মিনাখাঁর ধুতুরদহ গ্রাম পঞ্চায়েতের গোয়ালদহ গ্রামে সিলিকোসিসে আক্রান্ত মানুষ ও তাদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য চাল, ডাল, নুন, আঁটা, তেল, চিনি বিস্কুট, সাবান, শাড়ি, গেঞ্জি, লুঙ্গি, প্রয়োজনীয় ইনহেলার, ক্যাপসুল, ট্যাবলেট ইত্যাদি নিয়ে উপস্থিত হল আজ। ২০০৯ সালের ২৫ শে মে আয়লার পরে মিনাখাঁর গোয়ালদহ,দেবিতলা,জয়গ্রাম, জীবনতলার পারগাঁথি,সন্দেশখালির ঝুপখালি,জেলিয়াখালি,রাজবাড়ির একদল যুবক এলাকায় কাজ না পেয়ে পেটের টানে চলে যায় বর্ধমানের কুলটি, জামুরিয়া, রানীগঞ্জ ও আসানসোলের পাথর খাদানে। কিছুদিন কাজ করার পর তারা অসুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে বুঝতে পারলো মৃত্যু তাদের ডাকছে। তারা যেখানে কাজে গিয়েছিলো আসলে সেটা একটা মরনফাঁদ। সিলিকোসিসে আক্রান্ত হয়ে ইতিমধ্যে মারা গেছে ২৬ জন, প্রবল শ্বাসকষ্ট ও অকাল বার্ধক্য নিয়ে এখনো মৃত্যুর প্রমাদ গুনছে প্রায় ২০০ জন। সিলিকোসিসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়ার পর থেকেই পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ, উত্তর ২৪ পরগনা জেলা কমিটি বার বার ছুটে এসেছে এই অসহায় মানুষগুলির কাছে। কখনো স্বাস্থ্যদপ্তরের কাছে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার জন্য ডেপুটেশন, আবার কখনো বিশেষজ্ঞ ডাক্তারবাবুদের নিয়ে মেডিক্যাল ক্যাম্প কখনো আক্রান্তদের জন্য আন্দোলন করে চলছে এত বছর ধরে। সবুজের অভিযানের কর্নধার পরিবেশবিদ বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়ের সাথে যৌথভাবে ৪ লক্ষ টাকা মৃত ৯ টি পরিবারকে পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে। বাকি পরিবারগুলিকে আর্থিক অনুদান পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। গত ৩ রা অক্টোবর কলকাতা হাইকোর্ট সিলিকোসিসে আক্রান্ত পরিবারগুলির পাশে সাহায্যের হাত বাড়ানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। এক্ষেত্রে শান্তি গনতন্ত্র সংহতি মঞ্চের আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য ও শামিম আহমেদের দীর্ঘদিনের লড়াইয়ে এই অসহায় দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী পরিবারগুলিকে কিছুটা আশ্বস্থ করা গেছে। আজ প্রায় দেড়লক্ষ টাকার সামগ্রী নিয়ে আসেন বিজ্ঞান মঞ্চের কর্মীরা। সারাদিন মেডিক্যাল ক্যাম্পের ব্যবস্থাও করা হয় সংস্থার পক্ষ থেকে। উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বিডিও কামরুল ইসলাম , জয়েন্ট বিডিও অভিজিৎ মন্ডল, পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চের, উত্তর ২৪ পরগনা জেলা কমিটির সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তী, সম্পাদক সফল সেন, জেলা কমিটি সদস্য মিলন গায়েন,ডঃ সুকুমার ঘোষ,মায়া মিত্র, তরুন মুখার্জী, প্রদীপ্ত সরকার, শিক্ষিকা পিঙ্কি দে সরকার, অনিন্দিতা ভৌমিক, চন্দনা মল্লিক, তাপস সাহা, প্রদ্যুৎ রায়,ডঃ দিব্যেন্দু রায়, ডঃ অশোক সরকার প্রমুখ। যদিও গ্রামবাসীদের বিস্তর অভিযোগ আছে সরকারের প্রতি। যথাযথ চিকিৎসা ও আর্থিক সাহায্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা।গ্রাম পঞ্চায়েতের কোন ভ্রক্ষেপ নেই। আগামীদিনেও বিজ্ঞান মঞ্চ তাদের পাশে দাঁড়ানোর বিষয়ে আশ্বাস দিয়েছেন।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement