দেশে শিশুদের যৌন হেনস্তা,
হত্যার ঘটনা বেড়েই চলেছে

গণশক্তির প্রতিবেদন

৬ নভেম্বর, ২০১১

যৌন অপরাধের শিকার হচ্ছে শিশুরাও। দিনে দিনে এর প্রবণতা বাড়ছে। বাড়ছে শিশু হত্যার ঘটনাও। কেন্দ্রীয় সরকারের সাম্প্রতিক প্রকাশিত তথ্যে জানা যাচ্ছে, ২০১০সালে দেশের নানা প্রান্তে যৌন নিগ্রহের শিকার হয়েছেন ৫হাজার ৪৮৪শিশু। আর অপরাধীরা হত্যা করেছে ১৪০৮শিশুকে।

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো’র প্রকাশিত তথ্য সত্যিই আতঙ্কের। শুধু যৌন নিগ্রহ বা হত্যা নয়, গোটা দেশের বিভিন্ন রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল মিলে ২০১০সালে অপহৃত হয়েছে ১০,৬৭০টি শিশু। এসব তথ্যই অবশ্য পুলিসের কাছে দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রাপ্ত। এর বাইরেও নথিভুক্তহীন বহু অপরাধের ঘটনা নিত্যদিনই ঘটে চলে এদেশের শিশুদের ওপর। সেসব কথা রেকর্ডহীন বলে স্থান পায় না সরকারী তথ্য-বইয়ে।

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো প্রকাশিত তথ্যে জানা যাচ্ছে, সারা দেশের ১,৪০৮শিশু হত্যার ঘটনার মধ্যে উত্তর প্রদেশেই হত্যা করা হয়েছে ৩১৫শিশুকে। হত্যায় গোটা দেশে যেমন উত্তর প্রদেশ এগিয়ে তেমনই শিশুদের ওপর যৌন নিগ্রহের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে মধ্য প্রদেশ। ঐ রাজ্যে গত বছর যৌন অত্যাচারের ঘটনা ঘটেছে ১,১৮২টি। উত্তর প্রদেশের পর শিশু হত্যার ঘটনা সর্বাধিক ঘটেছে মহারাষ্ট্রে, ২১১টি। এরপর বিহারে ২০০টি এবং মধ্য প্রদেশে ১২৪টি শিশু হত্যার ঘটনা ঘটেছে। ২০১০সালে মধ্য প্রদেশের পরে যৌন নিগ্রহের ঘটনায় রয়েছে মহারাষ্ট্র (৭৪৭), উত্তর প্রদেশ (৪৫১) এবং অন্ধ্র প্রদেশ (৪৪৬)। তেমনই ৩৮২শিশুর ওপর যৌন অত্যাচার চালানো হয়েছে ছত্তিশগড়ে এবং রাজস্থানে এমন ঘটনা ঘটেছে ৩৬৯টি। রাজধানী দিল্লিতে ২০১০সালে হত্যা করা হয়েছে ২৯শিশুকে, ধর্ষিত হয়েছে ৩০৪শিশু।

শিশু অপহরণের ঘটনায় আবার এগিয়ে রয়েছে দিল্লি। গত বছর রাজধানীতে অপহরণের শিকার হয়েছে ২,৯৮২শিশু। এরপরেই রয়েছে বিহার (১,৩৫৯), উত্তর প্রদেশ (১,২২৫), মহারাষ্ট্র (৭৪৯), রাজস্থান (৭০৬), অন্ধ্র প্রদেশ (৫৮১) এবং গুজরাট (৫৬৫)।

উল্লেখ্য, ২০০৯সালের তুলনায় ২০১০সালে সারা দেশে নথিবদ্ধ অপরাধের সংখ‌্যা মাত্রাতিরিক্ত হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃদ্ধির হার ৪.৯শতাংশ। সংখ‌্যাতত্ত্বের হিসাব বলছে, ২০০৯সালে গোটা দেশে নথিবদ্ধ সংগঠিত অপরাধ ছিল ২১লক্ষ ২১হাজার ৩৪৫টি, সেই সংখ‌্যা ২০১০সালে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২লক্ষ ২৪হাজার ৮৩১। এই এক বছরে খুন হয়েছে ৩৩হাজার ৩৩৫জন। ২০০৯সালে সেই সংখ‌্যা ছিল ৩২হাজার ৩৬৯। বৃদ্ধির হার ৩শতাংশ। শুধু খুন নয়, খুনের চেষ্টা সংক্রান্ত অভিযোগের সংখ‌্যাও বেড়েছে ১.৩শতাংশ। শহরের তালিকায় ধর্ষণে গোটা দেশে পয়লা নম্বরে রয়েছে দেশের রাজধানী। শুধু দিল্লিতেই ২০১০সালে ৪১৪টি ধর্ষণের ঘটনা নথিবদ্ধ হয়েছে। গোটা দেশে ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে ৩.৬শতাংশ। সর্বোচ্চ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে মধ্য প্রদেশে। এরপর রয়েছে আসাম, মহারাষ্ট্র, উত্তর প্রদেশ, অন্ধ্র প্রদেশ। তথ্যে দেখা যাচ্ছে, অপহরণের সংখ‌্যাও উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে সারা দেশে। এক বছরের তফাতে অপহরণ বেড়েছে ১৩.৫শতাংশ। চুরি, ডাকাতি, রাহাজানি বেড়েছে ৪.৪শতাংশ, পণ-মৃত্যুর হার বৃদ্ধি পেলেও অন‌্যান্য অপরাধের তুলনায় তা নগণ্য। বৃদ্ধির হার ০.১শতাংশ। তবে মহিলাদের ওপর অত‌্যাচার বেড়েছে ভয়ঙ্করভাবে। ২০০৯সালে যেখানে মহিলাদের ওপর অত‌্যাচারের অভিযোগ নথিভুক্ত হয়েছিল ২লক্ষ ৩হাজার ৮০৪, সেখানে ২০১০সালে এই সংখ‌্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২লক্ষ ১৩হাজার ৫৮৫। অর্থাৎ বৃদ্ধির হার ৪.৮শতাংশ। শিশুদের ওপর অত‌্যাচারের সংখ‌্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ১০.৩শতাংশ।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement