আজকের দিনে



 

ছবির খাতা

জনতার ব্রিগেড

আরো ছবি

ভিডিও গ্যালারি

Video

শ্রদ্ধাঞ্জলি

কলকাতা

 

শতবর্ষে শ্রদ্ধা

আপনার রায়

গরিবের পাশে থেকেছে বামফ্রন্টই

হ্যাঁ
না
জানি না
 

ই-পেপার

  • image1418886515.jpg
  • image1418886490.jpg
  • image1418820519.jpg
  • image1418820454.jpg
  • image1418740559.jpg
  • image1418740506.jpg
  • image1418540784.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি নয়াদিল্লি, ১৭ই ডিসেম্বর— কয়লা ক্ষেত্রে দেশজোড়া পাঁচদিনের ধর্মঘট। শুরু জানুয়ারির ৬তারিখ, মঙ্গলবার থেকে। চলবে শনিবার পর্যন্ত। বুধবার রাঁচিতে, চারটি ফেডারেশনের ..

>>>

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতা, ১৭ই ডিসেম্বর— কলকাতার নাগরিকদের কাছ থেকে কর বাবদ আদায় করা টাকা ঘুরপথে আগামী পৌর নির্বাচনে তৃণমূলের প্রচারে খাটবে না তো? বুধবার দক্ষিণ কলকাতায় লেক মার্কেটের সামনে..

>>>

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতা, ১৭ই ডিসেম্বর — যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক অভিজিৎ চক্রবর্তীকে অবিলম্বে তাঁর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য আচার্য ও রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিলেন...

>>>

নিজস্ব প্রতিনিধি: কলকাতা, ১৭ই ডিসেম্বর— ভোটের আগে কলকাতা শহরে ১৪৪০টি ক্লাবকে ২লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দিতে চলেছে কর্পোরেশন, প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে ১০টি করে ক্লাবকে বেছে নিতে বলা হয়েছে তৃণমূল কাউন্সিলরদের।..

>>>

নিজস্ব প্রতিনিধি
কলকাতা, ২০শে ডিসেম্বর—সারদার বিপুল পরিমাণ টাকা মন্ত্রী মদন মিত্রের হাত ঘুরে অন্যত্র পাচার হয়েছে। পাচার হওয়া টাকার পরিমাণ কোটির ওপরে এবং তা নগদে। মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ একাধিকজনের জিম্মায় রাখা হয়েছে সেই টাকা। রীতিমত চাঞ্চল্যকর তথ্য হাতে এসেছে সি বি আই-র। সেই সূত্রে তদন্ত চালাতে গিয়েই কলকাতা শহর ও লাগোয়া কয়েকটি জায়গায় মন্ত্রীর মদন মিত্রের ঘনিষ্ঠ একাধিকজনের নাম কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তদন্তকারী আধিকারিকদের হাতে এসেছে। সারদাকাণ্ডে বারেবারেই উঠে এসেছিল মন্ত্রী মদন মিত্রের নাম। রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থা সিট-র ‘নজর এড়িয়ে’ গেলেও সি বি আই তদন্তের স্বাভাবিক গতিতে তা বারেবারেই সামনে আসছিল।...

>>>

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি, ২০শে ডিসেম্বর— বিল পাস করাতে না পারলে প্রশাসনিক নির্দেশে আর্থিক সংস্কার চালাবে কেন্দ্র। বীমা এবং কয়লা খনি বিল রাজ্যসভায় পাস না হওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট থাকায় সংসদ এড়িয়ে চলা হবে। শনিবার, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি এমন ঘোষণা করলেন সরাসরি বণিকসভা ‘ফিকি’-র মঞ্চে। বীমা বিল রাজ্যসভায় পেশ হওয়ার কথা ছিল গত মঙ্গলবার। অন্যদিকে কয়লা খনি বিল ১২ই ডিসেম্বর লোকসভায় পাস হলেও রাজ্যসভায় পেশ করতে পারেনি সরকার। শীতকালীন অধিবেশন শেষ হতে বাকি মাত্র দু’দিন। চলতি অধিবেশনে এই দুই বিল রাজ্যসভায় পাস হওয়ার সম্ভাবনা কম। দেশী এবং বিদেশী বেসরকারী পুঁজির হাতে দেশের দুই গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র তুলে দেওয়ার নীতিতে আগাগোড়া বিরোধিতা করে আসছেন বামপন্থীরা। ...

>>>