ধূপগুড়ি হাসপাতালকে স্টেট
জেনারেলে উন্নীতকরণের দাবি

নিজস্ব সংবাদদাতা

ধূপগুড়ি, ১৩ই সেপ্টেম্বর — ধূপগুড়ি হাসপাতালকে রাজ্য সাধারণ হাসপাতালে পরিণত করার দাবি বহু দিনের। এই দাবিতে বামপন্থী ছাত্র যুব সংগঠন জেলা ও ব্লক প্রশাসনকে বহুবার ডেপুটেশন দিয়েছে। মিছিল, সভা করেছে। এই দাবিকে বর্তমান রাজ্য সরকার কোন গুরুত্ব দেয়নি। অথচ ধূপগুড়ি হাসপাতালে দিন দিন বাড়ছে রোগীর চাপ। প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী। বাড়তি রোগীর দিশেহারা অবস্থা চিকিৎসকদের। ছুটির দিন বাদে বহির্বিভাগে গড়ে প্রতিদিন প্রায় ৯০০ রোগী চিকিৎসা করাতে আসেন। বহির্বিভাগের সময় শেষ হওয়ার পরেও জরুরি বিভাগে আসেন প্রতিদিন গড়ে ৪০০ রোগী। বহির্বিভাগের মতো সাধারণ জ্বর, হাত ব্যথা, গলা ব্যথা, সর্দি নিয়েও জরুরি বিভাগে চলে আসছে রোগীরা। বহির্বিভাগ বাদেও সন্ধ্যা পর্যন্ত সাধারণ রোগীদের দেখতেই সময় চলে যাচ্ছে জরুরি বিভাগে। ফলে হাসপাতালের ভর্তি থাকা মুমূর্ষু রোগীদের চিকিৎসা ব্যাহত হচ্ছে। ধূপগুড়ি ব্লকের জনসংখ্যা প্রায় ৫ লক্ষ। ৮টি চা বাগান রয়েছে এই ব্লকে। অবিলম্বে এই হাসপাতালকে দ্রুত স্টেট জেনারেল হাসপাতাল করা প্রয়োজন বলে দাবি ধূপগুড়ির বাসিন্দাদের।

ধূপগুড়ির ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক সব্যসাচী মণ্ডল বলেন, যে সমস্ত রোগীর বহির্বিভাগে এসে চিকিৎসক দেখালেও চলে সেই রোগীরাও জরুরি বিভাগে এসে ভিড় করায় ভর্তি থাকা রোগীদের পরিষেবা দিতে অসুবিধা হচ্ছে। সাধারণ রোগীদের পরদিন বহির্বিভাগে আসার জন্য বার বার অনুরোধ করলেও কেউ শুনছে না। ফলে ভর্তি থাকা রোগীদের চিকিৎসা করার মতো সময় পাওয়া যাচ্ছে না। আরও চিকিৎসক পেলে অবশ্য অবস্থা কিছুটা সামলান যেত। এই হাসপাতালের সব বিভাগে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, উন্নত ল্যাবরেটরি স্থাপন আরও স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগ করার দীর্ঘদিনের দাবিও উপেক্ষিত থেকে যাচ্ছে।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement