শামলিতে বিষাক্ত গ্যাসকাণ্ডে
চিনিকলের মালিক-সহ গ্রেপ্তার ২

সংবাদসংস্থা

মুজফফরনগর, ১১ই অক্টোবর — উত্তর প্রদেশের শামলি জেলায় বিষাক্ত গ্যাসে ৩০০ছাত্রছাত্রীর অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় চিনিকলের মালিককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। এছাড়াও ওই চিনিকলের কর্তৃপক্ষের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দূষণ নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের থেকে চিনিকলটি বন্ধও করে দিয়েছে বলে বুধবার সরকারি সূত্র জানিয়েছে।

মীরাট-কারনাল রোডে স্যার শাদি লাল চিনিকলের পথেই দুটি স্কুল রয়েছে। প্রতিদিনের মতো ওই রাস্তা দিয়েই সরস্বতী বিদ্যামন্দির এবং সরস্বতী হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রীরা যাচ্ছিল। স্কুলে যাওয়ার পথেই অসুস্থ হয়ে পড়ে তারা। ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগ বেশ কিছু বর্জ্য চিনিকলের বাইরে রাস্তায় জড়ো করে রাখা ছিল। ওই বর্জ্য পোড়ানোর জন্য রাসায়নিক ঢালতেই সেখান থেকে বিষাক্ত গ্যাস বেরতে থাকে এবং চিনিকল থেকেও বিষাক্ত গ্যাস লিক করে ছড়িয়ে পড়ে পার্শ্ববর্তী এলাকায়। এতে অসুস্থ হয়ে পড়ে ছাত্রছাত্রীরা। তাদের শ্বাসকষ্ট হতে থাকে। বিষাক্ত গ্যাসের জেরে অনেকেই শরীরে জ্বলুনি বোধ করে। সঙ্গে সঙ্গে তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে, চিকিৎসকদের দ্রুত হস্তক্ষেপে কোনও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি।

এদিন শামলির জেলাশাসক ইন্দ্রবীর সিং জানিয়েছেন, এই ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৮নম্বর ধরায় (খুনের চেষ্টায়) মামলা রুজু করা হয়েছে।

Featured Posts

Advertisement