অভিযুক্ত শিক্ষকের পাঁচ
দিনের পুলিশি হেপাজত

নিজস্ব সংবাদদাতা

রায়গঞ্জ , ৬ই ডিসেম্বর — মোবাইল ফোনে ছাত্রীদের অশ্লীল ছবি দেখানো ও ছাত্রীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেপ্তার কালিয়াগঞ্জ ব্লকের ডালিমগাঁ নিম্ন বুনিয়াদি বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুরজিৎ ঘোষকে পাঁচ দিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দিল জেলা পকসো আদালতের অতিরিক্ত বিচারক সেলিম সাহি। বুধবার কালিয়াগঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে পকসো ধারায় মামলা রুজু করে রায়গঞ্জ পকসো আদালতে পেশ করে। অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের পুলিশি হেপাজতের আবেদন জানানো হয় আদালতের কাছে। বিচারক পুলিশের আবেদন মঞ্জুর করে পাঁচ দিনের পুলিশি হেপাজতের নির্দেশ দেন।

জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই স্কুলের ছাত্রীদের নিজের মোবাইল থেকে অশ্লীল ছবি দেখানো এবং ছাত্রীদের শরীরে হাত দিয়ে অভব্য ও অশালীন আচরণের অভিযোগ উঠছিল ডালিমগাঁ নিম্ন বুনিয়াদি বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুরজিৎ ঘোষের বিরুদ্ধে। ছাত্রীরা বাড়িতে গিয়ে মায়েদের কাছে এই অভিযোগ জানানোর পরেই মঙ্গলবার এলাকার বাসিন্দারা ও ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকেরা ডালিমগাঁ নিম্ন বুনিয়াদি বিদ্যালয়ে বিক্ষোভ দেখান।

অভিভাবকদের দাবি, এই ঘটনা আগেই শুনেছিলাম। তবে এবার শিশুদের থেকে অভিযোগ পেয়ে স্কুলে এসেছি অভিযোগ জানাতে। আমরা অভিযুক্ত শিক্ষকের চরম শাস্তি চাই। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট করা হয়েছে, জানালেন প্রধান শিক্ষিকা। অভিযোগ পেতেই মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে তদন্ত করতে বিদ্যালয়ে হাজির হয়েছিলেন কালিয়াগঞ্জ পূর্ব সার্কেলের অবর বিদ্যালয় পরিদর্শক প্রান্তিক চক্রবর্তী। তিনি জানান,অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ আছে। আগে যে স্কুলে ছিলেন, সেখানেও তার বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ উঠেছিল।  

Featured Posts

Advertisement