সচেতনতার পোস্টার গ্রামে, আরও
ট্রেনের স্টপেজ দাবি বেগুনকোদর

নিজস্ব সংবাদদাতা   ১৩ই জানুয়ারি , ২০১৮

পুরুলিয়া, ১২ই জানুয়ারি— স্টেশনে ভূতের তত্ত্ব বা গুজব ওড়াতে বিজ্ঞান মঞ্চের কর্মীরা একটি রাত স্টেশনে কাটিয়েই দায়িত্ব সারতে চান না, বেগুনকোদর স্টেশনে যে ধরনের গুজব ছড়ানো হচ্ছে—তাতে স্থানীয় মানুষজনকে নিয়ে তারা ধারাবাহিক প্রচার ও নজরদারি নিয়ে তারা ধারাবাহিক প্রচার ও নজরদারি শুরু করেছে। ভূত আছে এই গুজব ছড়িয়ে ১৯৬৭ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত রেলদপ্তর পুরুলিয়া-মুরী রেলপথে বেগুনকোদর স্টেশন বন্ধ করে দিয়েছিল। তৎকালীন রেলওয়ে স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান বাসুদেব আচারিয়ার উদ্যোগে ২০০৭ সালে ফের চালু হয়েছিল বেগুনকোদর স্টেশন। কয়েকমাস ধরে ফের সেই ভূতের গল্প শুনিয়ে একটা অস্থির পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হচ্ছে। ভূত স্টেশন দেখাবার জন্ম পর্যটক নিয়ে আসা হচ্ছে। স্থানীয় মানুষজন এবার এই গুজবের বিরুদ্ধে এককাট্টা হয়েছেন। পাশে পেয়েছেন বিজ্ঞান মঞ্চের কর্মীদের।

এবার গ্রামবাসীরা এই গুজবের বিরুদ্ধে স্টেশনসহ আশেপাশের এলাকায় পোস্টার সেঁটেছেন। দাবি তুলেছেন বেশ কিছু ট্রেনকে বেগুনকোদর স্টেশনে স্টপেজ দেওয়ার। স্টেশনে পানীয় জল ও পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা। প্ল‌্যাটফর্ম উঁচু করা। স্থায়ী রেলকর্মী নিয়োগের দাবিও। বহিরাগত কেউ এসে স্টেশনের ছবি তুললে বাধা দিচ্ছেন গ্রামবাসীরা

বিজ্ঞান মঞ্চের জেলা সম্পাদক ডাঃ নয়ন মুখার্জি জানিয়েছেন, অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে এই গুজব ছড়ানো হচ্ছে। সংগঠনের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই কিছু প্রস্তাব জেলা প্রশাসন ও রেলের কাছে পাঠানো হয়েছে। বিজ্ঞান মঞ্চ কর্মীরা এলাকার মানুষকে নিয়েই প্রয়োজনীয় নজরদারি চালিয়ে যাবেন।

Featured Posts

Advertisement