কলকাতার রাস্তায় দফায়
দফায় মারামারি
তৃণমূল-বি জে পি-র

নিজস্ব প্রতিনিধি   ১৩ই জানুয়ারি , ২০১৮

কলকাতা, ১২ই জানুয়ারি— সংঘর্ষ, ভাঙচুর, বাঁশ, লাঠিসোঁটা নিয়ে তাণ্ডব চালিয়ে শুক্রবার দিনভর প্রচারের আলোয় থাকল বি জে পি-র যুবমোর্চার মিছিল। খোদ মহানগরের বুকে সকাল থেকে তৃণমূল এবং বি জে পি দুই রাজনৈতিক দলেরই দাগীরা কোমর বেঁধে মারধর ও ভাঙচুরের কর্মসূচিতে নেমে পড়ল। বেলা বাড়তে পরিস্থিতি সামাল দিতে র‌্যাফ নামানো হয় জোড়াবাগান চত্বরে। শহরজুড়ে বিবেকানন্দ কার, এই টানাটানিতেই তৃণমূল-বি জে পি-র ধুন্ধুমার মকশো চলল শুক্রবার রাজপথে।

ঘটনার সূত্রপাত বৃহস্পতিবার রাত থেকে। শুক্রবার কলকাতায় বি জে পি-র যুব মোর্চার মিছিলের কর্মসূচিতে ঘিরেই কিছু বি জে পি সমর্থক আগের রাতে পাথুরিয়াঘাটে বিনানি ভবনে ওঠে। স্থানীয় সূত্রে দাবি, কয়েকজন বি জে পি সমর্থক রাতভর মদ্যপ অবস্থায় গালিগালাজ চালিয়েছে। উলটোদিকেই ছিল তৃণমূলনেতা গোপাল তেওয়ারির বাড়ি। এরপর শুক্রবার সকাল থেকে পাথুরিয়াঘাট স্ট্রিটে যখন বি জে পি-র কর্মীরা জড় হচ্ছিল তখনই কিছু তৃণমূলকর্মী দলবল জুটিয়ে মারধরের কর্মসূচিতে নামে। প্রথম দফায় আক্রমণকারী তৃণমূল কর্মীদের দাবি বি জে পি-র লোকজন নাকি পথচলতি মহিলাদের উদ্দেশ্যে কটূক্তি শুরু করে। তার প্রতিবাদ জানাতেই এই বিশৃঙ্খল হাঙ্গামা চলেছে।

এদিকে শহরে বি জে পি কর্মী সমর্থকরা আক্রান্ত হওয়ার খবর চাউর হলে অন্য এলাকা থেকে লাঠিসোঁটা নিয়ে বেশ কিছু বি জে পি কর্মী এসে পাথুরিয়াঘাট স্ট্রিটে আরেক দফা হামলা চালায়। এই সময়ে সাধারণ মানুষও বাদ পড়েননি হামলা থেকে। বেশ কয়েকজনের মাথা ফেটে যায়। বেশ কয়েকটা গাড়ি, চেয়ার ভাঙচুর করা হয় এই গোলমালের সময়। এরপর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিশাল পুলিসবাহিনী। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে প্রশাসনের তরফে নামানো হয় র‌্যাফ। অশান্তির আঁচ ছড়িয়ে পড়ে আচমকা সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউতে। সেখানেও বি জে পি আশ্রিত একদল দুষ্কৃতী বাইকবাহিনী তৃণমূলীদের ওপর আক্রমণ চালায়। পরস্পরকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি চলে। এর জেরে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা উবে যায়। মধ্য কলকাতার বুকে এমন গোলমালের জেরে শহরের নানা অংশেই যানজটের সৃষ্টিও হয়। এদিকে সংঘর্ষের পরে বি জে পি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ রাজ্যপালের কাছে টেলিফোনে বিস্তারিত জানিয়ে রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছেন। তিনি এদিন সাংবাদিকদের কাছে বলেন, রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement