কোহলির একাদশ নিয়ে প্রশ্ন উঠলো

সংবাদসংস্থা

সেঞ্চুরিয়ন, ১৩ই জানুয়ারি — ‘নিজেকেই বাদ দেওয়া উচিত কোহলির।’ বক্তা বীরেন্দ্র সেওয়াগ।

এক ম্যাচে ব্যর্থতার কারণে বাদ ধাওয়ান। ভুবনেশ্বরকে কোনো কারণ ছাড়াই বসানো হলো। কোহলির পূর্বসূরি সেওয়াগ যারপরনাই ক্ষুব্ধ। বলছেন, ‘এক টেস্ট ব্যর্থতার জন্য ধাওয়ানকে বাদ। ভুবনেশ্বরকে দলে না রাখার কোনো কারণ নেই। দ্বিতীয় টেস্টে ব্যর্থ হলে তৃতীয় টেস্টে নিজেকেই বাদ দেওয়া উচিত কোহলির।’ ভারতীয় দলের প্রাক্তন এই ওপেনার আরও বলেন, ‘উচ্চতার কারণেই যদি খেলাতে হয়, অন্য যে কোনো বোলারের পরিবর্তে ঈশান্তকে খেলানো যেতো। ভুবনেশ্বরের আত্মবিশ্বাসে আঘাত করলেন কোহলি।’

ম্যাচের আগের অনুশীলনেই পরিষ্কার হয়েছিলো দ্বিতীয় টেস্টে বাদ পড়তে চলেছেন ঋদ্ধিমান সাহা এবং শিখর ধাওয়ান। এই তালিকায় থাকার সম্ভাবনা ছিলো ভুবনেশ্বর কুমারেরও। সম্ভাবনাই সত্যি হলো। ঘাসহীন উইকেটে ভুবির বদলে ঈশান্ত শর্মা। সব মিলিয়ে দলে তিনটি বদল। তাতেও জায়গা হলো না আজিঙ্ক রাহানের।

কেপ টাউন টেস্টে উইকেটকিপিং গ্লাভস হাতে নজির গড়েছেন ঋদ্ধিমান সাহা। প্রথম ভারতীয় হিসেবে এক টেস্টে দশটি ক্যাচ নিয়েছেন তিনি। ব্যাট হাতে দুই ইনিংসেই ব্যর্থ। বিশেষত প্রথম ইনিংসে। স্টেইনের বল জাজমেন্ট দিয়ে লেগবিফোর হন ঋদ্ধি। টেস্টে ঋদ্ধি শেষ অর্ধশতরানের ইনিংস খেলেছিলেন শ্রীলঙ্কা সফরের দ্বিতীয় টেস্টে। ব্যাটিং শক্তি বাড়াতেই পার্থিবের দলে আসার সম্ভাবনা ছিলো। টসের সময় বিরাট কোহলি অবশ্য জানালেন, দলে একটা পরিবর্তনে বাধ্য হয়েছেন তিনি। ঋদ্ধিমান সাহার হ্যামস্ট্রিং চোট থাকায় ঝুঁকি না নিয়ে বিশ্রাম দেওয়া হচ্ছে। বাকি পরিবর্তনগুলি সম্পর্কে জানালেন, শিখর ধাওয়ানের পরিবর্তে লোকেশ রাহুল এবং ভুবনেশ্বের জায়গায় ঈশান্ত। এই পরিবর্তন সম্পর্কে কোহলি জানালেন, পিচ থেকে অতিরিক্ত বাউন্স আদায় করতেই ঈশান্ত।

বিরাটের প্রথম একাদশ অবাক করার মতোই। সেঞ্চুরিয়নের কিউরেটর জানিয়েছিলেন, প্রথম দিন থেকেই কিছুটা হলেও টার্ন পাবেন স্পিনাররা। শেষ দুদিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবেন স্পিনাররাই। অথচ কোহলির একাদশে সব মিলিয়ে চার পেসার। একমাত্র স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ভুবনেশ্বর কুমার প্রথম টেস্টে বল হাতেই শুধু সেরা ছিলেন তা নয়, ব্যাট হাতে সবচেয়ে বেশি বল সামলেছেন ভুবনেশ্বর কুমারই। দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ছিলেন ভুবি। অ্যালান ডোনাল্ড, ভিভিএস লক্ষ্মণরা অবাক ভুবনেশ্বর না থাকায়। কোহলির একাদশ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সুনীল গাভাসকারও। কিংবদন্তি এই ভারতীয় ক্রিকেটার বলছেন, ‘কোনো একজনকে দায়ী করা দরকার, ধাওয়ানকেই বেছে নেওয়া হলো যেন। একটা খারাপ ইনিংসেই বাদ দেওয়া হলো। কেপ টাউন টেস্টের শুরুর দিনেই তিন উইকেট নেওয়া ভুবিকে বাদ নিয়ে কেন ঈশান্তকে নেওয়া হলো সেটাও বুঝতে পারছি না। সামি কিংবা বুমরার জায়গায় খেলানো যেতে পারতো ঈশান্তকে। ভুবনেশ্বরকে দলে না রাখার কারণ বোধগম্য হচ্ছে না।’ দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন পেসার অ্যালান ডোনাল্ড অবাক রাহানের না থাকা নিয়ে। নিজের টুইটারে ডোনাল্ড বলেছেন, ‘ভুবি দলে নেই! কেউ কি মজা করছেন?’ আরেকটি পোস্টে লিখেছেন, ‘একজন লম্বা বোলারের (ঈশান্ত) চেয়ে বেশি বাউন্স আদায় করতে পারবে না বলে এমন একজন বোলারকে (ভুবনেশ্বর) বাদ দেওয়া হলো যার দক্ষতা অনেক বেশি এবং বল হাতে নিখুঁত। এ যেন ফিলান্ডারকে দলের বাইরে রাখার মতো।’

Featured Posts

Advertisement