পথ দুর্ঘটনায় নিহত দুই

নিজস্ব প্রতিনিধি

কলকাতা, ১২ই ফেব্রুয়ারি — শহরজুড়ে বেপরোয়া গাড়ির দাপট চলছেই। সোমবার সন্ধ্যায় কলকাতায় দুটি বিক্ষিপ্ত পথ দুর্ঘটনায় এক মোটরবাইক আরোহীসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার রাত থেকে কলকাতা শহরে লাগাতার পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়ে চলেছে। গত শনিবারেও কলেজ স্ট্রিটে হেয়ার স্কুলের সামনের ফুটপাতে উঠে পড়েছিল বেপরোয়া গাড়ি। ওই ঘটনায় একজন গুরুতর জখম হয়েছিল। সকাল ও রাতের শহরে ট্রাফিক পুলিশের সংখ্যা কমে যাওয়ার জেরেই চলছে যাত্রীদের বেপরোয়া মনোভাব বাড়ছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহল মহল।

সোমবার সন্ধ্যা সওয়া ছটা নাগাদ প্রথম দুর্ঘটনার শিকার হন একজন স্কুটার আরোহী। কসবা থানা এলাকার ই এম বাইপাসের রুবি ক্রসিংয়ের স্কুটার আরোহী এক যুবককে পিছন থেকে একটি বেসরকারি বাস ধাক্কা মারে। গুরুতর আহত ওই যুবককে দ্রুত স্থানীয় বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। নিহত ওই স্কুটার আরোহীর নাম সুপ্রভাত সাউ (৩৪)। কসবা থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, নিহতের বাড়ি পশ্চিম মেদিনীপুরের বাজকুলে। স্কুটার আরোহীর মাথায় হেলমেট থাকলেও মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণেই এদিন তাঁর মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ ঘাতক গাড়িটিকে আটক করেছে। গাড়িটি ৩সি/২ রুটের বলে জানা গিয়েছে।

অন্য দুর্ঘটনাটি হয় গিরিশ পার্কে। এদিন সন্ধ্যায় সাতটা নাগাদ যতীন্দ্রমোহন অ্যাভিনিউতে লিবার্টি সিনেমা হলের সামনে বেসরকারি বাস থেকে পড়ে গিয়ে এক যুবকের মৃত্যু ঘটে। নিহত ওই যুবকের নাম তাপস পোড়েল (৩৫)। বিডন স্ট্রিটের যোগেন দত্ত লেনের বাসিন্দা এদিন বাস থেকে নামতে গিয়েই পড়ে যান।

স্থানীয়দের দাবি বাসটি কম সময়ে দাঁড়িয়েই হঠাৎ ছেড়ে দেওয়ায় টাল সামলাতে না পেরে রাস্তায় পড়ে যান ওই বাসযাত্রী। রাস্তায় রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা তাপস পোড়েলকে পুলিশ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এক্ষেত্রে ঘাতক বাসটি ৩০সি রুটের বলে জানিয়েছে পুলিশ। চালকসহ বাসটিকে আটক করা হয়েছে।

Featured Posts

Advertisement