বন্দিদের তল্লাসি করতে
গিয়ে আক্রান্ত জেলার

নিজস্ব সংবাদদাতা

জলপাইগুড়ি, ১৩ই ফেব্রুয়ারি — জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দিদের তল্লাসি করতে গিয়ে বন্দিদের হাতে আক্রান্ত হলেন জেলার। এলার্ম বাজিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে না পারায় বন্দিদের উপর লাঠি চার্জও করতে হয় বলে অভিযোগ। মঙ্গলবার সকালে এই ঘটনা ঘটেছে সংশোধনাগারে।

১৬ই জানুয়ারি এ আই জি কারা কল্যাণকুমার প্রামাণিক জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার পরিদর্শন করেন। সেদিন তাঁর নেতৃত্বে উদ্ধার হয়েছিল প্রচুর মোবাইল ফোন, গাঁজা, ধারাল ছুরি ও নগদ টাকা। এরপরই নড়েচড়ে বসে জেল কর্তৃপক্ষ। নেওয়া হয় বেশ কিছু নতুন পদক্ষেপ। মাঝে মধ্যেই চলতে থাকে বন্দিদের তল্লাশি। উদ্ধার হতে থাকে মোবাইল ফোনসহ প্রচুর নেশাজাতীয় সামগ্রী। এই তল্লাশি চালাতে গিয়ে প্রায় দিনই বন্দিদের সাথে বচসা বাধে কারারক্ষীসহ পদস্থ কর্তাদের। বন্দিদের হাতে এর আগে ও জেলার, জেলসুপার আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

সংশোধনাগার সূত্রে জানা গেছে, তল্লাশি চালানো নিয়ে আবাসিক বন্দিরা কারারক্ষীদের উপর ক্ষুব্ধ। সোমবার তাদের সঙ্গে গন্ডগোল হয়েছে। এদিন সকালে ও বন্দিদের মধ্যে বচসা হয়। শেষ পর্যন্ত তাদের হাতে আক্রান্ত হন জেলার। পরিস্থিতি এতটাই সাংঘাতিক হয়ে ওঠে যে ঐ সময় এলার্ম বাজাতে হয়। কারারক্ষীরা লাঠি নিয়ে ছুটে গিয়ে আবাসিকদের সেলে ফিরতে বলেন। রক্ষীদের দেখে বেশিরভাগরা সেলে ঢুকে গেলেও কয়েকজন বন্দি বাইরে রয়ে যায়। তারাই জেলারসহ কারারক্ষীদের উপর চড়াও হয়। জেলার আক্রান্ত হবার পরই কারারক্ষীরা বন্দিদের উপর লাঠি চার্জ করে। জলপাইগুড়ি কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দিদের কাছে কিভাবে এই ধরনের বেআইনি সামগ্রী আসছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে সংশ্লিষ্ট মহলে। সংশোধনাগারের কারারক্ষীদের একাংশ এই ঘটনায় বলেও অভিযোগ উঠেছে।

Featured Posts

Advertisement