বোরো চাষের ক্ষতিপূরণের
টাকা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা   ১৪ই ফেব্রুয়ারি , ২০১৮

বর্ধমান, ১৩ই ফেব্রুয়ারি— বর্ধমান সদর এলাকার বৈকুণ্ঠপুর-২ গ্রামপঞ্চায়েত বোরো চাষে ক্ষতিপূরণ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠল পঞ্চায়েত প্রধান ও শাসকদলের বিরুদ্ধে। তথ্য জানার অধিকার থেকে এলাকার মানুষ জানতে পেরেছেন প্রধান জবা মালিকের পরিবারই ১লক্ষ ৫৪ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ তুলেছেন অবৈধভাবে। অথচ তাঁদের জমির পরিমাণ মাত্র সাড়ে ৮ বিঘা। তাছাড়া তারা বোরো ধান চাষও করেনি। কিন্তু এই পরিবার মোট ২৮১৬শতক জমির হিসাব দেখিয়ে ক্ষতিপূরণ তুলেছে ১লক্ষ ৫৪ হাজার টাকা। অন্যদিকে প্রকৃত চাষি, চাষ করে ক্ষতি হয়েছে এমন বহু মানুষ ক্ষতিপূরণ পাননি। তাঁদের আবেদনপত্র পঞ্চায়েতেই পড়ে আছে। ব্লকেও পাঠানো হয়নি।

প্রধান ও শাসকদলের নেতারা ক্ষতিপূরণের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করে গ্রামে গ্রামে হাতে লেখা পোস্টার পড়েছে। হেলা বাউরি, বাবলু ঘোষ, সতীশ বাউরিরা পঞ্চায়েতে আবেদন জানালেও তাঁদের আবেদন গ্রাহ্য হয়নি। বৈকুণ্ঠপুর এলাকার কৃষকনেতা অভিজিৎ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, প্রকৃত কৃষকদের বঞ্চিত করে শাসকদলের নেতারা লুটে নিয়েছে ক্ষতিপূরণের টাকা। বৈকুণ্ঠপুর-২ গ্রাম পঞ্চায়েতকে লুটের পঞ্চায়েতে পরিণত করা হয়েছে। এই পঞ্চায়েতে মৃত্যু বা জন্মের সার্টিফিকেট নিতে গেলেও শাসকদলের নেতাদের ঘুষ দিতে হয়। এলাকার মানুষ পঞ্চায়েত থেকে কোনও পরিষেবা পান না। এই লুটের পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে গ্রামে গ্রামে মানুষকে সচেতন করে বড় আন্দোলনে নামা হবে বলে জানিয়েছে সারা ভারত কৃষকসভা।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement