রাস্তায় দাঁড় করানোয় লরির
কাচ ভাঙল পুলিশ, পালটা
ইট পুলিশের গাড়িতে

নিজস্ব সংবাদদাতা   ১৪ই ফেব্রুয়ারি , ২০১৮

মুরারই, ১৩ই ফেব্রুয়ারি — গ্রামের লাগোয়া রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে বাড়িতে দুপুরের খাবার খেতে গিয়েছিলেন চালকরা। সেই অপরাধে পুলিশ এসে বেশ কয়েকটি লরির লুকিং গ্লাস ও জানালার কাচ ভেঙে দেয় বলে অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের নলহাটি-মুরারই রাস্তায় গুসকিরা গ্রামের কাছে। ক্ষুব্ধ লরি চালক ও গ্রামবাসীরা ইট পাটকেল ছুঁড়ে পুলিশের গাড়ির কাচ ভাঙে বলে পালটা অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে রামপুরহাট–মুরারই রাস্তায় গুসকিরা গ্রামের রাস্তার ধারে বেশ কয়েকটি পাথর বোঝাই লরি দাঁড়িয়ে ছিল। চালকরা গুসকিরা গ্রামের বাসিন্দা হওয়ায় রাস্তায় গাড়ি রেখে খেতে গিয়েছিলেন বাড়িতে। দুপুরের দিকে মুরারই থানার পুলিশ কাউকে দেখতে না পেয়ে দাঁড়িয়ে থাকা গাড়ির লুকিং গ্লাস এবং জানালার কাচ ভেঙে দেয়। খবর পেয়ে ছুটে আসেন গাড়ির চালক ও তাদের পরিবার। পুলিশ কেন লরির কাচ ভাঙল তার কৈফিয়ত চান। এরপরেই উত্তেজিত জনতা পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। কেউ কেউ পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়ে বলে অভিযোগ। উত্তেজিত জনতার ছোঁড়া ইটে পুলিশের গাড়ির কাচ ভেঙে যায়। লরির চালকরা বলেন, আমাদের লরি ছিল রাস্তা থেকে অনেক দূরে। আমরা বেকার ছেলে। জমিজমা বিক্রি করে লরি কিনেছি। সেই লরি পুলিশ অন্যায় ভাবে ভেঙে দিয়েছে। গ্রামের মানুষের অভিযোগ, চালকরা রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করালে যত দোষ। আর পুলিশ যখন এই গাড়ি থেকেই জোর করে তোলা তোলে তখন কিছু হয় না। ঘটনার পরই বিশাল পুলিশবাহিনী যায় এলাকায়। বিকালের পর থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে তল্লাশির নামে অত্যাচার শুরু করেছে বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। যদিও পুলিশের পক্ষে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

Featured Posts

Advertisement