চোটে ছিটকে গেলেন ঝুলন
মিতালির ব্যাটে সহজ
জয় ভারতের

সংবাদসংস্থা

পচেস্ট্রুম, ১৩ই ফেব্রুয়ারি — জয় দিয়েই পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরু ভারতের মহিলা ক্রিকেট দলের। পচেস্ট্রুমে ম্যাচে নামার আগে ভারতীয় শিবিরে খারাপ খবর। চোটের কারণে সিরিজ থেকেই ছিটকে গেলেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ঝুলন গোস্বামী। এদিন, টসে জিতে ফিল্ডিং নেন ভারতীয় দলের অধিনায়ক হরমনপ্রীত কউর। দলে জেমিমা রডরিগেজ, অনুজা পাটিল, তানিয়া ভাটিয়া, রাধা যাদবের মতো একঝাঁক তরুণ। দক্ষিণ আফ্রিকা শিবিরে প্রথম ধাক্কা দেন শিখা পান্ডে। মিড অফে সহজ ক্যাচ হরমনপ্রীতের। অনবদ্য ক্যাচে সুনে লুসকে ফেরান শিখা পান্ডে। ভারতকে পালটা চাপে রাখেন দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ভ্যান নিকার্ক। এদিনের নিকার্ক যেন ডিভিলিয়ার্স। শটের বৈচিত্র অবাক করা মতো। ভয়ংকর নিকার্ককে লেগ বিফোর আউট করেন অনুজা পাটিল। ৩১ বলে ৩৮ রানে ফেরেন নিকার্ক। দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংসকে লড়াই করার মতো জায়গায় পৌঁছে দেন ক্লো ট্রিয়ন। টি-২০ ক্রিকেটে যার স্ট্রাইকরেট প্রায় দেড়শোর কাছাকাছি। এদিন মাত্র ৭ বলে অপরাজিত ৩২ রান করেন ট্রিয়ন। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৬৪ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

রান তাড়া করতে নেমে ভারতকে কখনোই চাপে মনে হয়নি। মিতালি ও স্মৃতি মান্ধানা ওপেনিং জুটি শুরুটা ভালো করেন। প্রথম ওভারেই আসে ২০ রান। অল্প সময়ের ব্যবধানে স্মৃতি মান্ধানা ক্যাচ আউট (১৫ বলে ২৮) এবং হরমনপ্রীতের রানআউটে সাময়িক চাপ ভারতীয় শিবিরে। অভিজ্ঞ মিতালি রাজ ও তরুণী জেমিমায় দ্রুত নিয়ন্ত্রণে। জেমিমার ক্যাচ ফেলেন ক্লার্ক। দ্বিতীয় সুযোগ পেয়ে দলের সবচেয়ে কম বয়সি সদস্য ২৭ বলে ৩৭ রানে আউট হন। শেষ ৩৬ বলে ৪৮ প্রয়োজন ছিল। বেদা কৃষ্ণমূর্তির ঝোড়ো ইনিংস এবং মিতালি রাজের দায়িত্বশীল ইনিংসে সহজ জয়। ৭ বল বাকি থাকতেই ছয় মেরে জয় সম্পূর্ণ করলেন মিতালি। ম্যাচের সেরা মিতালি রাজ বলেন, ‘বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে যে কোনও রানের লক্ষ্যের জন্যই তৈরি থাকতে হবে।’



সংক্ষিপ্ত স্কোর

দক্ষিণ আফ্রিকা ১৬৪/৪ (২০ ওভার) নিকার্ক ৩৮, ক্লো ট্রিয়ন অপরাজিত ৩২, অনুজা পাটিল ২/২৩।

ভারত ১৬৮/৩ (১৮.৫ ওভার) মিতালি রাজ অপরাজিত ৫৪, বেদা কৃষ্ণমূর্তি অপরাজিত ৩৭, ড্যানিয়েল ১/১৬।

ম্যাচের ফল : ভারত ৭ উইকেটে জয়ী। ম্যাচের সেরা : মিতালি রাজ

Featured Posts

Advertisement