পারিবারিক বিবাদের জেরে
অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ৩

নিজস্ব সংবাদদাতা

মালদহ, ১৩ই মার্চ— পারিবারিক বিবাদে একই পরিবারের ৩জনের অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হলো মঙ্গলবার মালদহের হাবিবপুর থানার ঋষিপুর অঞ্চলের কৃষ্ণনগর গ্রামে। জানা গেছে, চার বছরেরও আগে শংকর দাসের সাথে বিয়ে হয়েছিল নিরপা দাসের। চারজনের সংসারে রয়েছে মা শ্রীমতী দাস, ছেলে শংকর দাস ও তার স্ত্রী নিরপা দাস এবং তাদের আড়াই বছরের একমাত্র সন্তান সায়ন দাস। শংকর দাস পেশায় হকার। মুদিখানার সামগ্রী ঘুরে ঘুরে বিক্রি করেন।

গ্রামবাসীরা জানান, বিয়ের পর থেকেই এই পরিবারে অশান্তি লেগে থাকত। মঙ্গলবার সকালে অগ্নিদগ্ধ হয়ে তিনজনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে সেই বিবাদ চিরদিনের মতো থেমে গেল। অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হলো মা শ্রীমতী দাস (৬৫), পুত্রবধূ নিরজা দাস (২৮) ও আড়াই বছরের নাতি সায়ন দাসের। ঘটনার সময় অবশ্য শংকর দাস বাড়ি ছিল না।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে বিবাদের জেরে নিরপা ছেলে সায়নকে নিয়ে ঘরে ঢুকে কেরোসিন ঢেলে দুজনেই আত্মঘাতী হয়। দরজা ভিতর থেকে বন্ধ ছিল। খবর জানাজানি হতেই প্রতিবেশীরা বাড়িতে এসে দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকেন। ততক্ষণে অবশ্য সব শেষ। বাঁচানো যায়নি মা ও ছেলেকে। এদিকে পুত্রবধূ ও নাতির এই অবস্থা দেখে পাশের ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মঘাতী হন শংকর দাসের মা শ্রীমতী দাস। ঘরেই দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় তিনজনের। গ্রামবাসীরা তিনজনকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement