স্কলারশিপ থেকে পানীয় জল
একগুচ্ছ দাবিতে ছাত্রবিক্ষোভ

বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

নিজস্ব সংবাদদাতা   ১৪ই মার্চ , ২০১৮

কল্যাণী, ১৩ই মার্চ- সকালে প্রশাসনিক ভবনের মূল দরজায় তালা ঝুলিয়ে উপাচার্য সহ সমস্ত আধিকারিক, শিক্ষাকর্মীদের পথ রুখে দিল বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল ছাত্র। দীর্ঘক্ষণ দপ্তরে ঢুকতে পারেননি উপাচার্য সহ অন্যান্যরা। মঙ্গলবার, দুপুর ১টা নাগাদ ছাত্ররা প্রশাসনিক ভবনে ঢোকার দরজা খুলে দেয়।

এই ঘটনার পর চলতে থাকে দফায়-দফায় আলোচনা। ফের, বিকাল গড়াতেই উপাচার্যের দপ্তরের সামনে শুয়ে পড়ে রাস্তা আটকে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার ছাত্রদের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে উপাচার্য ড. ধরণী ধর পাত্র আটকে পড়েন দপ্তরের ভিতরে। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে কিছুক্ষণের জন্য তালা ঝুলিয়ে দিয়েছিল ছাত্ররা। যদিও পরে তা খুলে দেওয়া হয়। স্নাতকস্তরে স্কলারশিপ চালু, হস্টেলের ও পানীয় জলের সমস্যা, ছাত্র সংসদ না থাকায় ‘ছাত্র উৎসব’ না করতে পারার মতো একাধিক বিষয়কে সামনে রেখে এই বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে বলে বিক্ষোভরত ছাত্র-ছাত্রীরা জানিয়েছে।

ছাত্র-ছাত্রীদের অবস্থান কর্মসূচিতে বহিরাগত তৃণমূলের কয়েকজন দুষ্কৃতী এসে হুমকি দিয়ে কর্মসূচি তুলে নিতে চাপ দেয় বলে অভিযোগ। ক্যাম্পাস থেকে বের হলে পেটানো হবে বলে ভয় দেখানো হচ্ছে বলেও জানিয়েছে ছাত্ররা।

বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃণমূল ছাত্র সংগঠনের একটি গোষ্ঠী এই কর্মসূচি নিয়েছে বলে জানিয়েছে অন্য গোষ্ঠীর ছাত্ররা। বিরুদ্ধ গোষ্ঠীর ছাত্রদের অভিযোগ, মূলত ছাত্র উৎসবের জন্য আই সি এ আর (ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব এগ্রিকালচারাল রিসার্চ) প্রায় ২০লক্ষ টাকা দেবে। এই অর্থ কারা পাবে, আর কারা খরচ করবে তা নিয়েই দ্বন্দ্ব। যদিও কোনও ব্যানার ছাড়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন দাবি নিয়ে এই অবস্থান শুরু হয়েছে। অবস্থান কর্মসূচির ফলে স্নাতকস্তরে দু’দিন ধরে পঠনপাঠন বন্ধ রয়েছে।

Featured Posts

Advertisement