বারাকপুরে স্কুল ভাঙল
সেনা,তীব্র প্রতিক্রিয়া

নিজস্ব সংবাদদাতা

বারাকপুর, ১৩ই মার্চ— মঙ্গলবার বিকালে সেনাবাহিনীর লোকজন এসে বারাকপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এলাকাতে দীর্ঘদিনের চালু একটি স্কুল ভেঙে দিয়েছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকাতে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয়। স্কুলের প্রিন্সিপাল, শিক্ষক, শিক্ষিকা, ছাত্রছাত্রী, অভিভাবকরা দীর্ঘক্ষণ বারাকপুর রাস্তা অবরোধ করে রাখেন। পুলিশ ও সেনাবাহিনীর লোকজন এসে এই অবরোধ তুলে দেয়।

কেন্দ্রের প্রতিরক্ষা দপ্তরের অধীন বারাকপুর ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড এলাকাতে প্রায় ষাট বছর ধরে এই স্কুল চলছিল। মডার্ন স্কুল নামে স্কুলটিতে আই সি এস ই অনুমোদিত ইংরেজি মাধ্যমে পড়াশুনা করানো হয়। স্কুলটিতে তিন হাজারের মতো ছাত্রছাত্রী পড়াশুনা করে। স্কুলটির যথেষ্ট সুনাম আছে।

প্রতিরক্ষাদপ্তর থেকে বেশ কয়েক মাস আগে স্কুল কর্তৃপক্ষকে নোটিস দেয়। বলা হয়, স্কুলটি বন্ধ করে দিতে হবে। মঙ্গলবার বিকালের পর আচমকা সেনাবাহিনীর লোকজন একটি জে সি বি নিয়ে স্কুলের সামনে আসে। বর্তমানে স্কুলে আই সি এস ই-র দশম শ্রেণির পরীক্ষা চলছে। কাউকে কিছু না বলেই জে সি বি দিয়ে স্কুলের পাঁচিল ভাঙতে শুরু করে। এই ঘটনা ঘটতে দেখে স্কুল কর্তৃপক্ষ সেনাবাহিনীর লোকজনকে জিজ্ঞাসা করে স্কুলটি ভাঙছেন কেন? সেনাবাহিনীর লোকজন স্কুল কর্তৃপক্ষের কথার কোনও জবাব না দিয়েই ভাঙতে শুরু করে।

এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই স্কুলের ছাত্রছাত্রী, অভিভাবকরা স্কুলের সামনে এসে জড়ো হতে থাকেন। এবং রাস্তায় বসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তারা। ঘটনাস্থলে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর লোকজন আসে। বেশ খানিকক্ষণ অবরোধ চলতে থাকে। অভিভাবকদের অভিযোগ বুধবার ছাত্রছাত্রীদের দশম শ্রেণির আই সি এস ই-র ‍হিন্দি পরীক্ষা আছে। সেই পরীক্ষার কী হবে? ছাত্রছাত্রীদের কী হবে? তাদের ভবিষ্যতের প্রশ্ন এর মধ্যে জড়িয়ে আছে। পুলিশ অভিযোগ গ্রহণ করবে এই আশ্বাস পাওয়ার পর অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। আপাতত স্কুলটি এদিনের মতো ভাঙা বন্ধ হলেও বুধবার আবারও ভাঙা শুরু হবে কিনা এই ভেবে স্কুল কর্তৃপক্ষ চিন্তিত।

এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করে সি পি আই (এম) রাজ্য কমিটির সদস্য গার্গী চ্যাটার্জি বলেন, অত্যন্ত অন্যায় অমানবিক কাজ করা হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালীন একটা স্কুল এভাবে ভাঙার তিনি তীব্র নিন্দা করেন। বিকল্প ব্যবস্থা না করে ভাঙা উচিত নয় বলে তিনি জানান।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement