ভোটকর্মী হত্যার বিরুদ্ধে আজ
প্রতিবাদে শিক্ষক, শিক্ষাকর্মীরা

নিজস্ব প্রতিনিধি   ১৭ই মে , ২০১৮

কলকাতা, ১৬ই মে— পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রিসাইডিং অফিসার শিক্ষক রাজকুমার রায়ের হত্যার তীব্র নিন্দা জানালো নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতি এবং নিখিলবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। ঘটনায় তীব্র ধিক্কার জানিয়ে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানালো রাজ্য কো-অর্ডিনেশন কমিটিও। বৃহস্পতিবার রাজ্যজুড়ে কালো ব্যাজ পড়ে প্রতিবাদে শামিল হবেন শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীরা।

উত্তর দিনাজপুর জেলার রহতপুর হাই মাদ্রাসার ইংরেজির শিক্ষক রাজকুমার রায় ইটাহার ব্লকের প্রিসাইডিং অফিসার হিসাবে ভোটের কাজে নিযুক্ত ছিলেন সোমবার। বিভিন্ন প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে সন্ত্রাসের মোকাবিলা করেও নিষ্ঠার সঙ্গে তিনি তাঁর দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এক প্রেস বিবৃতিতে একথা জানিয়ে এ বি টি এ-র সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণপ্রসন্ন ভট্টাচার্য এবং এ বি পি টি এ-র সাধারণ সম্পাদক সমর চক্রবর্তী বলেন, ভোট গ্রহণের কাজ সম্পূর্ণ করে তিনি বুথ থেকে একবারই বাইরে বেরিয়েছিলেন সন্ধ্যাবেলা। তখনই তাঁকে অপহরণ করে সরকারি দলের আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এই অপহরণের কারণ দর্শানোর বদলে নির্বিকার প্রশাসন। উলটে অপপ্রচার চালানো হয়েছে যে, তিনি ভয় পেয়ে নাকি পালিয়ে গিয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে তাঁর ক্ষতবিক্ষত দেহ মেলে রায়গঞ্জ ব্লকের সোনাডাঙা এলাকায়।

সংগঠনগুলির বক্তব্য, এই ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছেন মহকুমাশাসক। এই হত্যার দায় নির্বাচন কমিশনারের। অবিলম্বে তাঁর পদত্যাগ চাই। আগামী দিনে নির্বাচনে ভোটের কাজে নিযুক্ত কর্মীদের পূর্ণ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে। অন্যদিকে, রাজ্য কো-অর্ডিনেশন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিজয় শংকর সিনহা এক বিবৃতিতে বলেন, দুষ্কৃতীদের অবিলম্বে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। রাজ্যে গণতন্ত্র প্রবলভাবে বিপন্ন বোঝাই যাচ্ছে। আমরা সরকারি কর্মচারীরা ভোটের কাজে নিযুক্ত হলে নিরাপত্তা কেন পাব না তার জবাব দিতে হবে সরকারকে।

Featured Posts

Advertisement