বকেয়া বেতনের দাবিতে
ব্যাঙ্ক ধর্মঘট ৩০শে থেকে

সংবাদসংস্থা   ২৪শে মে , ২০১৮

হায়দরাবাদ, ২৩শে মে — দ্রুত এবং সম্মানজনক বেতন পরিকাঠামো সংশোধনের দাবিতে দুদিন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন ব্যাঙ্ক কর্মীরা। আর্থিক দাবি দাওয়া নিয়ে ৩০শে মে থেকে ১লা জুন পর্যন্ত এই ধর্মঘট চলবে। দীর্ঘদিনের বকেয়া বেতন কাঠামো পুনর্বিন্যাসের দাবিতে এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন তাঁরা। বুধবার বিভিন্ন ব্যাঙ্ক ইউনিয়নের মিলিত সংগঠন ইউনাইটেড ফোরাম অব ব্যাঙ্ক ইউনিয়ন (ইউ এফ বি ইউ)-এর তরফে জানানো হয়েছে, ১০লক্ষেরও বেশি কর্মী এই দুদিনের ধর্মঘটে অংশ নেবেন। স্বাভাবিকভাবেই দুদিনের এই ধর্মঘটের ফলে গোটা দেশের ব্যাঙ্ক পরিষেবায় বিরাট প্রভাব পড়বে। সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অর্থ মন্ত্রকের থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক অ্যাসোসিয়েশন (আই বি এ)-এর সঙ্গে তাদের আলোচনা এখনো পর্যন্ত ফলপ্রসূ হয়নি। গত বছর নভেম্বর মাস থেকে তাদের বেতন পুনর্বিন্যাস বকেয়া রয়েছে। আই বি এ মাত্র ২শতাংশ বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাব দিয়েছে। সেই প্রস্তাব তাদের পক্ষে গ্রহণযোগ্য নয়। একইসঙ্গে তাদের সংগঠনের আওতায় থাকা অফিসারদের বেতন সংশোধনের ক্ষেত্রে মাত্র স্কেল – ৩-এর অফিসারদের বেতন পর্যন্তই সংশোধনের কথা জানিয়েছে আই বি এ। এই প্রস্তাবও তাদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। ইউ এফ বি ইউ জানিয়েছে, ২বছর আগেই তাদের পক্ষ থেকে আই বি এ-কে তাদের দাবি সনদ সম্পর্কে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। গত বছরের শেষ থেকে এই নিয়ে আলোচনা শুরু করেছিল দুই সংগঠন। সংগঠনের পক্ষে আহ্বায়ক ভি ভি এস আর শর্মা জানিয়েছেন, আই বি এ-এর সঙ্গে তাঁরা ইতিমধ্যে ১২দফায় আলোচনা করেছেন। কিন্তু সমাধান সূত্র মেলেনি। আই বি এ অনড় থাকায় তাঁরা বাধ্য হচ্ছেন ধর্মঘটের পথে যেতে। আই বি এ তাদের প্রস্তাবে জানিয়েছে, ব্যাঙ্ক কর্মীদের বেতন ব্যাঙ্কের মুনাফার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাড়ানো হবে। ইউ এফ বি ইউ এই প্রস্তাব উড়িয়ে দিয়ে দাবি করেছে, গত কয়েক বছর ধরে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলি লাগাতার মুনাফা করেছে। কিন্তু ব্যাঙ্ক পরিচালনমণ্ডলীর সিদ্ধান্তের কারণে এই মুনাফার ৭০শতাংশ অর্থই বেরিয়ে গেছে ঋণ খেলাপী এবং অনাদায়ী ঋণ মেটাতে। শর্মা দাবি করেছেন, আর দেরি না করে অবিলম্বে তাঁদের বকেয়া বেতন মিটিয়ে দেওয়া হোক। কিন্তু আই বি এ তাঁদের কোনও দাবিই মেনে নেয়নি। ফলে তাঁরা দুদিনের ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হচ্ছেন।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement