অস্বাভাবিক মৃত্যু সেই
ভাইয়ুজী মহারাজের

সংবাদসংস্থা   ১৩ই জুন , ২০১৮

ইন্দোর, ১২ই জুন— অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে স্বঘোষিত গুরু ভাইয়ু মহারাজের। কিছুদিন আগে তাঁকে মন্ত্রী করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মধ্য প্রদেশ সরকার। সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন তিনি। পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার সম্ভবত মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। বুধবার ইন্দোরে মধ্য প্রদেশ পুলিশের ডি আই জি জানান, নিজের বাড়িতে কপালে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ভাইয়ুজী মহারাজ। ঘরের দরজা ভেতর থেকে আটকানো ছিল। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়। ঘরে একটি নোটপ্যাড পাওয়া গিয়েছে। তাতে লেখা ছিল, পরিবারের দায়িত্ব অন্য কেউ সামলাক। প্রবল চাপ নিতে পারছি না। পরিবারের সদস্যরা হাতের লেখা ধর্মগুরুর বললেও তদন্ত করছে পুলিশ। সরকারি হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য দেহ পাঠানো হয়েছে।

প্রভাবশালী মহলে মসৃণ যোগাযোগ ছিল ভাইয়ু মহারাজের। যাঁর আসল নাম উদয় সিং দেশমুখ। ধর্মগুরুর পরিচিতি পাওয়ার আগে কিছুদিন মডেলিং করেন তিনি। গত এপ্রিলে মধ্য প্রদেশের বি জে পি সরকার পাঁচ ধর্মগুরুকে রাজ্যের প্রতিমন্ত্রী করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ভাইয়ু মহারাজ। রাজ্যে আসন্ন নির্বাচনের দিকে তাকিয়েই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং। সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয় সারা দেশে।

কেবল বি জে পি নয়। তাঁর অনুগামীদের মধ্যে ছিলেন কংগ্রেসসহ রাজনৈতিক বৃত্তের অন্য অংশও। শোনা যায়, লোকপাল আইনের দাবিতে আন্না হাজারের অনশনের সময় কেন্দ্রে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারের হয়ে মধ্যস্থতার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। বিলাসবহুল জীবনযাপনের জন্যও আলোচিত ছিলেন এই ধর্মগুরু। চৌহানের পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গড়করি শোক জানান। পৃথ্বীরাজ চৌহানসহ মধ্য প্রদেশ ও মহারাষ্ট্রে দলের অনেক নেতাই শোক জানিয়েছেন।

Featured Posts

Advertisement