আশারাম মামলার সাক্ষীর
ছেলেকে অপহরণের অভিযোগ

সংবাদসংস্থা   ১৪ই জুন , ২০১৮

শাহজাহানপুর, ১৩ই জুন- অপহরণকারীদের ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে এসেছে ১৬বছরের ধীরাজ বিশ্বকর্মা।এই কিশোরের বাবা রামশঙ্কর বিশ্বকর্মা গুরুত্বপূর্ণ মামলার সাক্ষী। যে মামলায় জড়িত স্বঘোষিত ধর্মগুরু আশারাম বাপু। কিশোরী ধর্ষণের দায়ে আশারামকে গত ২৪শে এপ্রিল আজীবন কারাবাসের শাস্তি দিয়েছে ‘পকসো’ আদালত।

অভিযোগ, গত সোমবার উত্তর প্রদেশের শাহজাহানপুরে বাড়ির সামনে থেকে ধীরাজকে অপহরণ করা হয়। নিয়ে যাওয়া হয় মীরাটে। অপহরণকারীদের ফাঁকি দিয়ে কোনোমতে বাড়ি ফিরে এসেছে ধীরাজ। কিন্তু পরিবার-পরিজনের আশঙ্কা, ফের নেমে আসতে পারে বিপদ।

আশারাম বাপুর বিরুদ্ধে চলছে ধর্ষণের সাক্ষী খুনের মামলাও। ধর্ষণের এক সাক্ষী কৃপাল সিং-কে খুনও হতে হয়। এই খুনের অন্যতম সাক্ষী রামশঙ্কর বিশ্বকর্মা। ৭ই জুন আদালতে সাক্ষ্য দিতে গেলেও বিশ্বকর্মার বয়ান নথিবদ্ধ করা হয়নি। ফের ২৮শে জুন তাঁকে হাজিরা দিতে বলেছে আদালত। বিশ্বকর্মার অভিযোগ, তাঁর উপর চাপ তৈরি করতেই প্রভাবশালী আশারামের দলবল ছেলেকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল। ধীরাজ নিজে সংবাদমাধ্যমে বলেছে, বাড়ির সামনে থেকে দুজন লোক তাকে তুলে নিয়ে যায়। গাড়িতে এসেছিল দুষ্কৃতীরা। তাকে অচৈতন্য করে গাড়িতে তোলা হয়েছিল। মীরাটে জ্ঞান ফিরতে দেখে তাকে গাড়িতে রেখে দোকানে গিয়েছে দুই দুষ্কৃতী। তখনই পালিয়ে মীরাট স্টেশনে যায়। রেল পুলিশ তাকে শাহজাহানপুরে পাঠানোর ব্যবস্থা করে।

তবে, জেলা পুলিশ সুপার দীনেশ ত্রিপাঠি জানিয়েছেন যে অপহরণের অভিযোগ পায়। মঙ্গলবার রাতে বিশ্বকর্মার বাড়িতে গিয়ে পুলিশ দেখে যে ছেলেটি বাড়িতেই রয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।

Featured Posts

Advertisement