কৃষিদপ্তরে পুনর্নিয়োগের
দাবি শিক্ষানবিশদের

নিজস্ব সংবাদদাতা   ১২ই জুলাই , ২০১৮

মেদিনীপুর, ১১ই জুলাই— পুনর্নিয়োগের দাবি নিয়ে মঙ্গলবার কৃষি ভবনে ডেপুটেশনে হাজির হয় কর্মরত শতাধিক কৃষি অ্যাপ্রেনটিস। তখনই জানতে পারেন তাঁদের পরিবর্তে সাধারণ প্রশিক্ষণহীন ব্যক্তিদের চুক্তির মাধ্যমে নিয়োগ করবে রাজ্য কৃষিদপ্তর। প্রতিবাদ জানিয়ে সোমবার সন্ধ্যা সাতটা থেকেই জেলা মুখ্য কৃষি আধিকারিক দপ্তরের গেটে শুরু হয় অবস্থান বিক্ষোভ। দপ্তরের আধিকারিকরা জল, লাইট বন্ধ করে চলে যায়। গ্রাম থেকে আসা এই কর্মীরা সারারাত অন্ধকারের মধ্যেই অভুক্ত অবস্থায় অবস্থান চালায়। সেই অবস্থান বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত চলেছে। বেলা দশটা থেকে দুপুর ২টো পর্যন্ত কৃষি ভবন ক্যাম্পাসের মূল গেট অবরোধ করে। পুলিশি হস্তক্ষেপে শেষ পর্যন্ত গেট ‍ছেড়ে দিয়ে ক্যাম্পাসের মধ্যেই অনশন অবস্থান শুরু হয়েছে। গত ছয় মাস ধরে রাজ্য কৃষিদপ্তরে কর্মরত কৃষি অ্যাপ্রেনটিসদের কোনও কাজ না দিয়ে বসিয়ে রাখা হয়। পুনর্নিয়োগের দাবিতে গত মঙ্গলবার জেলা মুখ্য কৃষি অধিকর্তা দপ্তরে বিক্ষোভসহ ডেপুটেশন দেয় এমন কর্মীরা। এই শূন্যপদে রাজ্য সরকার তাদের পছন্দের লোকদের চুক্তি কর্মী হিসাবে নিয়োগ করবে। সেই প্রস্তুতিতে এমন এগ্রিকালচার ভোকেশনাল বিষয় নিয়ে স্নাতক এবং ন্যাটস্‌ বিজ্ঞাপন অনুযায়ী পরীক্ষায় পাশ করে কাজে যোগ দেয়। সেই কাজের নিয়োগপত্র দেওয়া হয়েছিল কৃষিদপ্তর থেকে।

এখন এমন কর্মীদের বাদ দিয়ে সাধারণ লেবেলের অপ্রশিক্ষণপ্রাপ্ত লোকদের কাজে নিয়োগ করার জন্য চেষ্টা চলছে। অ্যাপ্রেনটিসদের গত দুই বছর ধরে নামমাত্র ভাতা দিয়ে খাটিয়ে আখেরে কর্পোরেটসহ কৃষি ম্যানেজমেন্ট হর্তা-কর্তাদের।

শ্রমিকনেতা কীর্তি দে বক্সী, কৃষক নেতৃত্ব সুভাষ দে প্রমুখ যান। আন্দোলনকারীদের নৈতিক সমর্থনসহ সহযোগিতা করেন। সাহায্যের আশ্বাস দেন। গেটের মুখে এমন অবস্থানে কৃষি ভবনের আধিকারিকবৃন্দসহ কর্মচারীগণ বেলা ২টা পর্যন্ত অফিসে ঢুকতে পারেনি। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে প্রথমে মারমুখী হয়। নেতৃবৃন্দ বলেন, পানীয় জল ও খাবারের ব্যবস্থা করায় পুলিশের প্রস্তাব তাঁরা প্রত্যাখ্যান করেন। বিকালে বৃষ্টির মধ্যেও গাছের তলায় ছাপা নিয়ে সেই অবস্থান চলছে।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement