মুখ বদলে ক্ষোভ সামলানোর
চেষ্টায় বি জে পি

সংবাদসংস্থা   ৯ই নভেম্বর , ২০১৮

ভোপাল ও নয়াদিল্লি, ৮ই নভেম্বর- তিন নম্বর তালিকাতেও একগুচ্ছ বিধায়ককে বাদ দিল বি জে পি। মধ্য প্রদেশের এই তৃতীয় প্রার্থী তালিকায় নাম নেই দলের অন্যতম জাতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের। বৃহস্পতিবার ৩২জনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে বি জে পি। সব মিলিয়ে তিনটি তালিকায় ২২৬আসনে প্রার্থী ঠিক করেছে রাজ্যে ক্ষমতাসীন বি জে পি।

২৩০আসনের বিধানসভায় ভোট ২৮শে নভেম্বর। মনোনয়ন জমার সময়সীমা শেষ হচ্ছে শুক্রবার। তার আগে ৬টি কেন্দ্রে প্রার্থী ঠিক করতে হবে বি জে পি-কে। বুধবার পঞ্চম প্রার্থী তালিকায় ১৬জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে কংগ্রেসও। রাজ্য বিধানসভার প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের প্রার্থী ঘোষণা বাকি রয়েছে এখন একটি আসনে। মধ্য প্রদেশে কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা ৫৭। কংগ্রেসের পঞ্চম তালিকায় প্রার্থী করা হয়েছে বি জে পি ছেড়ে যোগ দেওয়া প্রাক্তন মন্ত্রী সরতাজ সিং-কে।

এর আগে দুটি তালিকায় মোট ৩৮জন বিধায়ককে বাদ দেওয়া হয়। এদিন ৩২জনের তালিকায় মনোনয়ন মিলেছে এমন বিধায়কের সংখ্যা মাত্র ১১। বাকি আসনে গতবার জয়ী হয়ে বিধায়কদের কাউকে প্রার্থী করা হয়নি। তালিকায় নাম নেই এমন বিধায়কদের মধ্যে অবশ্য তেণ্ডুখেদার বিধায়ক সঞ্জয় সিংয়ের নামও আছে। যিনি কিছুদিন আগে বি জে পি ছেড়ে যোগ দিয়েছেন কংগ্রেসে। সরকারের বিরুদ্ধে অসন্তোষ যথেষ্ট তীব্র। প্রার্থী বদলে পরিস্থিতি সামলানোর পথ খুঁজছে বি জে পি। এদিন প্রকাশিত তালিকায় জায়গা পাননি রাজ্যের এক প্রতিমন্ত্রী সূ্র্যপ্রকাশ মীনা। বি জে পি-র দ্বিতীয় এবং তৃতীয় তালিকায় মোট ৩৮বিধায়কের নাম বাদ দেওয়া হয়েছিল।

বিজয়বর্গীয় ছাড়া এদিনের তালিকায় বাদ বিধায়কদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ নাম বাবুলাল গৌড়। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে প্রার্থী না করা হলেও তাঁর পুত্রবধূ কৃষ্ণা গৌড় লড়বেন গোবিন্দপুরা কেন্দ্রে। কৃষ্ণা গৌড় অতীতে ভোপালের মেয়র পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। বাদ পড়ার সম্ভাবনা থাকায় প্রবীণ বাবুলাল গৌড় ক্ষুব্ধ ছিলেন। এমনকি নির্দল প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতার হুমকিও দিয়েছিলেন তিনি। ক্ষোভ সামলাতে তাঁর পূত্রবধূকে প্রার্থী করা হয়।

বিজয়বর্গীয় ২০১৩-তে নির্বাচিত হয়েছিলেন মহু কেন্দ্র থেকে। এই কেন্দ্রে এবার বি জে পি-র প্রার্থী ঊষা ঠাকুর। বলিয়ে-কইয়ে ঠাকুরকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে ইন্দোর-৩ কেন্দ্র থেকে। এই কেন্দ্রটিতে প্রার্থী করা হয়েছে কৈলাসের পুত্র আকাশ বিজয়বর্গীয়কে। এই পর্বে ঘোষিত তালিকায় দুই বড় নেতা বিজয়বর্গীয় এবং গৌড়ের পরিবারের সদস্যদের প্রার্থী করেছে বি জে পি।

কংগ্রেস নেতার পুত্র অজিত বোরসাইকেও প্রার্থী করেছে বি জে পি। অজিতের বাবা প্রেমচাঁদ গুড্ডু কংগ্রেসের সাংসদ ছিলেন। কিছুদিন আগে অজিত যোগ দেন বি জে পি-তে। তাঁকে প্রার্থী করা হয়েছে তফসিলি জাতি সংরক্ষিত আসন ঘাট্টিয়ায়। এই কেন্দ্রে ২০১৩-তে জয়ী হয়েছিলেন সতীশ মালব্য। গত ২রা নভেম্বর বি জে পি-র প্রথম প্রার্থী তালিকায় সতীশ মালব্যকে সরিয়ে এই কেন্দ্রে প্রার্থী হিসাবে নাম ছিল অশোক মালব্যের। এদিনের তালিকায় তাঁকেও বদলেছে বি জে পি।

২০০৩ থেকে মধ্য প্রদেশে টানা সরকার চালাচ্ছে বি জে পি। মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement