কেন্দ্রের নির্দেশিকা সামনে রেখে
জবকার্ড বাতিল করায় ক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা   ৯ই নভেম্বর , ২০১৮

মাথাভাঙা, ৮ই নভেম্বর —দিনহাটা, কোচবিহার-১ ব্লকের অধিকাংশ গ্রাম পঞ্চায়েতে এখন উন্নয়নের কাজ বন্ধ। একদিকে দ্রুত কমছে ১০০দিনের কাজ, অন্যদিকে রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তর ১০০দিনের জব কার্ডধারীদের নাম কেটে দিচ্ছে বলে গ্রামগুলি থেকে অভিযোগ আসছে। জব কার্ডধারীদের অভিযোগ, ব্লক প্রশাসনই নাম কাটার সঙ্গে যুক্ত। বিশেষত যারা কাজের সন্ধানে ভিন রাজ্যে রয়েছে সেই পরিবারগুলির সদস্যদের নামই কাটা পড়ছে।

সাবেক ৫১টি ছিটমহলের যে ১৪হাজার ২১৫জন নতুন ভারতীয় নাগরিকত্ব পেয়েছেন, তাঁদেরও জবকার্ড রয়েছে। বাস্তবে এখানকার মানুষ বছরে ৪০দিনও কাজ পাচ্ছেন না। বাধ্য হয়েই বেকার মানুষজন কাজের খোঁজে এখন ছুটছেন ভিন রাজ্যে। একইভাবে ছিটমহল বিনিময়ের ফলে ওপার বাংলা থেকে আসা ৯৮৮জন নাগরিক জবকার্ড পেলেও মাত্র কয়েকদিন কাজ পাচ্ছেন। বাধ্য হয়েই দিনহাটা, মেখলিগঞ্জ ও হলদিবাড়ির অস্থায়ী ক্যাম্পের নাগরিকদের কেউ কেউ পরিবার নিয়ে ভিন রাজ্যে চলে গেছেন। অনেক পরিবারের বয়স্ক মানুষেরা বাড়িতে রয়েছেন। যুবকরা চলে গেছে ভিন রাজ্যে।

মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য জেলা সফরে এসে দাবি করেছেন, রাজ্যে নাকি কোচবিহার জেলা ১০০দিনের কাজে এগিয়ে রয়েছে! জবকার্ড বাতিল করা নিয়ে পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরের আধিকারিকদের বক্তব্য, বাতিল করার নির্দেশিকা কেন্দ্রীয় সরকারের। এটি নিরবচ্ছিন্ন প্রক্রিয়া। কাজ চলবে।

কেন জবকার্ড বাতিল করা হচ্ছে? রাজ্যের গ্রামোন্নয়ন দপ্তরের কমিশনার একটি চিঠি দিয়েছিলেন প্রতি জেলাশাসককে। চলতি বছরের ৫ই জুলাই সেই চিঠি দিয়ে বলা হয়েছে ‘ভুয়ো জব কার্ড’ বাতিল করতে হবে। প্রতি রাজ্যেই নাকি ভুয়ো জবকার্ড আছে। সেই কার্ড বাতিল করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন দপ্তর।

ভুয়ো কার্ড বাতিলের সেই চিঠিকে হাতিয়ার করে প্রতি মাসেই নিয়ম করে জবকার্ড বাতিল করা হচ্ছে। যাদের কার্ড বাতিল করা হচ্ছে তাঁরা মৃতও নন, ভুয়োও নন। মাথাভাঙার শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অনেক গ্রামেই এমন বহু মানুষ রয়েছেন যারা এলাকায় বসবাস করলেও তাঁদের জবকার্ড বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। এভাবে জবকার্ড বাতিলের ঘটনার নিন্দা করেছেন সারা ভারত কৃষকসভার জেলা সম্পাদক তমসের আলি।

তাঁর অভিযোগ, গ্রামে শাসকদলের অনেক নেতার কাছেই ভুয়ো জবকার্ড আছে। সেগুলি দিয়ে ১০০দিনের কাজের টাকা লুট করা হচ্ছে। শিতলকুচি, মাথাভাঙা, মেখলিগঞ্জ, দিনহাটা মহকুমার ব্লকগুলিতে জবকার্ড নিয়ে বহু দুর্নীতি প্রকাশ্যে এসেছে। প্রতি ক্ষেত্রেই তা ধামাচাপা দেওয়া হয়েছে। প্রশাসন সেগুলি বাতিল করুক চায় কৃষকসভা।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement