অবসরের জল্পনা ওড়ালেন
বিশ্বনাথন আনন্দ

নিজস্ব প্রতিনিধি   ৯ই নভেম্বর , ২০১৮

কলকাতা, ৮ই নভেম্বর — ঢাকে কাঠি পড়ছে কলকাতায় প্রথম আন্তর্জাতিক দাবা প্রতিযোগিতার। শুক্রবার থেকে বুধবার পর্যন্ত আই সি সি আরে এই প্রতিযোগিতার আসর বসবে। ২৬ বছর পর কলকাতায় খেলবেন পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বিশ্বনাথন আনন্দ। র‌্যাপিড এবং ব্লিটজ ফর্মে খেলবেন তিনি। প্রথমেই তাঁর প্রতিপক্ষ আমেরিকার গ্র্যান্ডমাস্টার ওয়েসলি সো। আন্তর্জাতিক দাবা প্রতিযোগিতায় খেলার আগে অদ্ভুত পরিস্থিতির সামনে বিশ্বনাথন। দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের খেতাব জিততে পারেননি। সম্প্রতি খুব একটা ভালো ফলও করতে পারেননি। শীঘ্রই অবসর নিতে পারেন তিনি? প্রশ্নের সহজ উত্তরে বললেন, ‘এই মুহূর্তে এসব নিয়ে তিনি ভাবতে রাজি নই। বরং খেলাকে উপভোগ করতে চাই।’

কলকাতায় আন্তর্জাতিক দাবা প্রতিযোগিতায় এই প্রথম দাবার বোর্ডে টক্কর হবে ভারতের অন্যতম দুই সেরা গ্র্যান্ডমাস্টারের। বৃহস্পতিবার কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলের বিশ্বনাথনের স্বীকারোক্তি, ‘সূর্য আমার সঙ্গে দীর্ঘদিন খেলেছে। ও আমার শক্তি এবং দুর্বলতা খুবই ভালোভাবে জানে। এই টুর্নামেন্টে সূর্যই আমার সব থেকে কঠিন প্রতিপক্ষ।’ পাশাপাশি জানালেন, ‘প্রায় দুশোর কাছে দেশ এই খেলার সঙ্গে যুক্ত। দাবাকে অলিম্পিকের অংশ করলে অবশ্যই খেলার উন্নতি হবে।’ ভারতের দুই তরুণ গ্র্যান্ডমাস্টার প্রজ্ঞানন্দ এবং নিহালের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ দেখছেন বিশ্বনাথন। আবার ‘বন্ধু’ আনন্দকে নিয়ে বেশ খোলামেলা সূর্যশেখর। জানালেন, ‘আনন্দের সঙ্গে দীর্ঘদিন খেলেছি। অবশ্যই ভালো খেলোয়াড়। এই প্রথম আমরা একে অপরের বিরুদ্ধে খেলব। আমি উচ্ছ্বসিত।’ ভারতের অন্যতম গ্র্যান্ডমাস্টার সূর্যশেখর গাঙ্গুলি খেলবেন ভারতের গ্র্যান্ডমাস্টার পেনাতালা হরিকৃষ্ণর বিরুদ্ধে। আনন্দের মতে দাবার উন্নতিতে ক্লাসিকাল দাবা টুর্নামেন্টের সংখ্যা বাড়াতে হবে। দেশে প্রচুর ভালোমানের দাবা খেলোয়াড় আছে। তাদের সঠিক দিশা দেখানোর প্রয়োজন।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement