বাসের ধাক্কায় মোটরবাইক
আরোহীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি   ১১ই ডিসেম্বর , ২০১৮

কলকাতা, ১০ডিসেম্বর— রাজাবাজার ট্রাম ডিপোর সামনে বেসরকারি বাসের ধাক্কায় সোমবার বিকালে এক মোটরবাইক আরোহীর মৃত্যু হলো। নিহত ওই মোটরবাইক আরোহীর নাম সঞ্জয় পণ্ডিত(৩০)। উত্তর ২৪পরগনার বাঙ্গুর অ্যাভিনিউয়ের নয়াপট্টির বাসিন্দা ওই বাইক আরোহীর মাথায় হেলমেট থাকলেও দুর্ঘটনার আগে তা খুলে যায়।

ঘাতক বাসের ধাক্কায় প্রথমে রাস্তার এক পাশে ছিটকে পড়েন ওই বাইক আরোহী। এরপর তাঁকে কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা সঞ্জয় পণ্ডিতকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় ঘাতক বাসটিকে পুলিশ আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছে। চালকের খোঁজ চালাচ্ছে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ।

এদিকে, ইস্টার্ন মেট্রোপলিট্যান বাইপাস সংলগ্ন পাটুলির ঘোষপাড়ার সংযোগস্থলে রবিবার রাতে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় একজনের প্রাণ গেল। গভীর রাতে সন্তোষপুরের সাউদার্ন পার্কের বাড়িতে ফেরার পথে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হন গাড়ির চালক সুমন্ত চৌধুরি(৪২)।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গাড়িটি অত্যন্ত গতিতে চলছিল। হঠাৎই গাড়িটির গতি কমাতে গিয়ে সেটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যায়। বাইপাসের মিডিয়ান ডিভাইডারে গাড়িটি ধাক্কা মেরে বসে। গাড়িটি চালাচ্ছিলেন সুমন্ত চৌধুরি। গাড়িটির সামনের দিকটা ধাক্কা খেয়ে পুরো চেপ্টে যায়। চালকের সিটে আটকা পড়ে যান ওই চালক।

এরপরে পাটুলি থানার পুলিশ, কলকাতা বিপর্যয় মোকাবিলা দল ও দমকলের কর্মীরা একসঙ্গে মিলে দুর্ঘটনায় চেপ্টে যাওয়া ওই গাড়িটি কেটে চালককে উদ্ধার করেন। কিন্তু সময় অনেকক্ষণ কেটে যাওয়ায় ওই ব্যক্তিকে টালিগঞ্জের এম আর বাঙ্গুর হাসপাতালে নিয়ে গেলেও চিকিৎসকরা কিছু করতে পারেননি। চিকিৎসকরা জানান, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের জেরেই সুমন্ত চৌধুরি মারা গেছেন।

আর একটি ঘটনায়, সোমবার দুপুরে বেহালার আর্যপল্লিতে ঝুলন্ত অবস্থায় এক যুবকের দেহ উদ্ধার করে বেহালা থানার পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে খবর পেয়ে বেহালা থানার পুলিশ আর্যপল্লির চণ্ডীতলা মেন রোডের বাড়িতে যায়। টিনের ছাউনির ওই বাড়িতে ঢুকে দেখা যায় ঘরের মধ্যে গামছা বেঁধে ঝুলছে এক যুবক। পরে জানা যায় ওই যুবকের নাম সোমনাথ দাস ওরফে বাবুসোনা(৩৫)। ওই যুবককে উদ্ধার করে বেহালার বিদ্যাসাগর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement