পুরোনো ছাত্ররাই
আজ চিন্তা খালিদের

নিজস্ব প্রতিনিধি   ১২ই জানুয়ারি , ২০১৯

কলকাতা, ১১ জানুয়ারি— সাংবাদিক সম্মেলনের মঞ্চে অপেক্ষা করছিলেন এডুয়ার্ডো ফেরেইরা। খালিদকে আসতে দেখেই জড়িয়ে ধরলেন। না সেই আলিঙ্গন ক্যামেরার সামনে ‘পোজ’ দেওয়ার জন্য নয়। আলিঙ্গনে দু’তরফেই আন্তরিকতা ছিল। গত মরশুমে ইস্টবেঙ্গলে খালিদের বিস্বস্ত সৈনিক ছিলেন এডুয়ার্ডো। মরশুমের মাঝে হোক বা মরশুমের শেষে। বারবার খালিদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন এই ব্রাজিলিয় ডিফেন্ডার। সেই পুরো শিষ্যই এবার শত্রুশিবিরে। অবশ্য শুধু এডুয়ার্ডো কেন ? গত মরশুমে খালিদের দলের আরও এক সৈনিক কাটসুমিও নেরোকায়। খালিদের আরও এক পছন্দের ফুটবলার। আর এই দুই পুরানো ছাত্রই শনিবার কাঁটা খালিদ জামিলের সামনে। প্রথম ম্যাচটা জিতেই কলকাতায় দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছেন খালিদ জামিল। শনিবার ঘরের মাঠে নেরোকাকে হারাতে পারলেই সেটাই হবে আই লিগে টার্নিং পয়েন্ট। লিগ টেবলে উপরের দিকের দলগুলো পয়েন্ট নষ্ট করলেই আবার দৌড়ে চলে আসবে মোহনবাগান। আর টানা দু’ম্যাচ জিতলে সবুজ মেরুন কোচের কুর্শিতে জাঁকিয়ে বসবেন খালিদও। আর সেই লক্ষ্যে মূল বাঁধা গতবছরের ‘কাছের’ ফুটবলাররা।

এই আই লিগে বারবার সেটপিস থেকে গোল হজম করেছে মোহনবাগান। নেরোকার বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচে দু’টি সেট পিস থেকে হওয়া গোলেই হারতে হয়। তাই শুক্রবার সকালে মোহনবাগান অনুশীলনে দীর্ঘক্ষণ সেটপিস অনুশীলন করালেন খালিদ। মূলত বিপক্ষের সেটপিস কিভাবে আটকাতে হবে তাই অনুশীলন হল। নেরোকা দুরন্ত ফর্মে। শেষ ছটি ম্যাচের মধ্যে পাঁচটিতে জয়। প্রবলভাবে চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে। দলের গোল করার একাধিক ফুটবলার। সেটপিসেও বেশ ভয়ঙ্কর স্প্যানিশ কোচ ম্যানুয়েল রেতামেরোর দল। তাই রক্ষণ আরও জোরদার করছেন মোহনবাগান কোচ। জেতা দলে পরিবর্তন করতে পছন্দ করেন না খালিদ। তবে এই ম্যাচে দলরাজের জায়গায় ফিরতে পারেন কিমকিমা। তবে চিন্তা অন্য জায়গায়। আই লিগে এখনও অবধি ৩টে হলুদ কার্ড দেখেছেন ইয়ুটা কিনওয়াকি। নেরোকা ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখলে বড় ম্যাচে খেলতে পারবেন না কিনওয়াকি।

খালিদ জামিল সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন, ‘শেষ ম্যাচ জেতার আত্মবিশ্বাসটাই আমাদের ধরে রাখতে হবে। দলে আমাকে কিছু পরিবর্তন করতে হবে। কারণ আমরা পরপর দু’টো ম্যাচ খেলছি। নেরোকা খুব ভালো দল। আমাদের রক্ষণভাগ শক্তিশালী করতে হবে। প্রতিপক্ষে বেশ কয়েকজন ভালো ভারতীয় এবং বিদেশি ফুটবলার আছে। বিশেষত কাটসুমি এবং এডুয়ার্ডো খুবই ভালো। আমি ম্যাচের ফল নিয়ে ভাবছি না। ইতিবাচকভাবে ম্যাচটা আমাদের শুরু করতে হবে।’ নেরোকা রক্ষণের স্তম্ভ এডুয়ার্ডো জানিয়েছেন, ‘খালিদ খুব ভালো কোচ। তবে আমরা শুধুই আমাদের নিয়ে ভাবছি। নিজেদের খেলাটা খেলতে হবে। আর জয়ের লক্ষ্যেই খেলবো আমরা।’

মোহনবাগান – নেরোকা

যুবভারতী (দুপুর ২টা)



Current Affairs

Featured Posts

Advertisement