আয়কর ডাকলে যাবেন না,
পুজো কমিটিকে উপদেশ মমতার

নিজস্ব সংবাদদাতা   ১২ই জানুয়ারি , ২০১৯

বারাসত, ১১জানুয়ারি— দুর্গাপুজা কমিটিগুলিকে আয়কর দপ্তরের বিরুদ্ধে সংঘাতে যেতে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। শুক্রবার বারাসতে যাত্রা উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, জনগণের টাকায় পুজো হয়। তার জন্য কীসের আয়কর! আমি ক্লাবগুলোকে বলছি, ওরা ডাকলেও আপনারা একজনও যাবেন না।

কলকাতার বিগ বাজেটের ৪০টা পুজো কমিটিকে আয়কর দপ্তর নোটিস পাঠিয়েছে। টিডিএস বা উৎসমূলে কর জমা দেওয়া হয়েছে কিনা, কত আয় ব্যয় হয়েছে ইত্যাদি জানতে চেয়েছে। আয়কর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বিগ বাজেটের আরও অনেকগুলি পুজো কমিটিকে এরকম নোটিস পাঠাতে পারে তারা। কর্পোরেট ইভেন্টের চেহারা নেওয়া কোটি কোটি টাকার বাজেটের পুজো কমিটিগুলিকে আয়কর দপ্তর স্ক্যানারে এনে সঠিক কাজ করেছে কিনা, পুজোর মতো বিষয়কে আয়কর আওতার বাইরে রাখা উচিত কিনা তা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সরকারিভাবে কোনও আপত্তি বার্তা পাঠানো হয়নি। তার বদলে রাজনৈতিকভাবে এই নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে লড়াই দেখাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুধু তাই নয়, এই বিরোধে পুজো নিয়ে মানুষের সংবেদনশীল অনুভূতিকেও তিনি চাগিয়ে তোলার চেষ্টা করেছেন। পুজো কমিটিগুলোর উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী সাফ বার্তা দিয়েছেন, জোট বাঁধুন। আয়কর বিভাগ থেকে ডাকলেও কেউ যাবেন না। একটাও ক্লাবের গায়ে যদি হাত পড়ে আমি ছেড়ে দেব না।

মোদী বিরোধী রাজনৈতিক লড়াই দেখাতে মুখ্যমন্ত্রী এদিন একথাও বলেছেন, পুজো মানুষকে আনন্দ দেয়। পুজো থেকে মুনাফা করা হয় না। চাঁদা দেয় মানুষ। তুমি মোদী বাবু টাকা দাও? তুমি পুজো বন্ধ করে দেওয়ার কে? নিজেরা নোটবন্দি করে টাকা লুটেছো, তার থেকে আয়কর জমা দিয়েছো?

মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, দেশজুড়ে অনেক মন্দির আছে। সেখান থেকে আয়কর নেওয়া হয়? পুজো ধর্মীয় প্রথা। সেখানে আয়কর দিতে হবে কেন? আমি বলছি, কেউ যাবেন না আয়কর দপ্তর ডাকলেও।





Current Affairs

Featured Posts

Advertisement