পুকুরের জলে বিদ্যুতের তার,
দুই সন্তানসহ মায়ের মৃত্যু দেগঙ্গায়

নিজস্ব সংবাদদাতা

দেগঙ্গা, ১১ই আগস্ট — পুকুরে বিদ্যুতের ছোবল। পুকুরে স্নান করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলো চার শিশু। তাদের বাঁচাতে গিয়ে আরো দু’জন বিদ্যুতের ছোবলে আচ্ছন্ন হলো। ঘটনাটি হয়েছে বেড়াচাঁপা ১নং গ্রাম পঞ্চায়েতের দক্ষিণ কাউটেপাড়া গ্রামে। এই ঘটনায় দুই ‍‌শিশুসহ নিহত হয়েছে তিনজন। আরো তিনজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে। গ্রামের চার শিশু সুমাইয়া পারভিন, সাইফুদ্দিন মোল্লা, আবুজার মোল্লা, জুলফিকার মোল্লা স্নান করতে নামে পুকুরে। পুকুরের উপর দিয়ে যাওয়া রাজ্য বিদ্যুৎ পর্ষদের ২২০ ভোল্টের একটি তার ছিঁড়ে পুকুরে পড়লে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তারা চিৎকার করতে থাকে। আবুজার মোল্লা আর জুলফিকার মোল্লার মা সাহিদাবিবি ও অপর এক যুবক ফিরোজ মণ্ডল ছুটে এসে পুকুরে নামেন তাদের বাঁচা‍‌তে। তারাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে চিৎকার করতে থাকায় গ্রামের লোকজন বিপদ বুঝে ছুটতে থাকে ট্রান্সফর্মারের দিকে। সেখানে একজন ট্রান্সফর্মারে বিদ্যুৎ সংযোগ ছিন্ন করতে সমর্থ হলে পুকুরে এসে ছয়জনকে তোলা সম্ভব হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায় জুলফিকার মোল্লা (১২)। বারাসত হাসপাতালে প্রাণ হারান মা সাহিদাবিবি (৪২)। বারাসত হাসপাতাল থেকে তিনজনকে স্থানান্তরিত করতে হয় আর জি করে। সেখানে প্রাণ হারায় আবুজার মোল্লা (৭)। ঘটনাস্থলে পুলিস আসে। গোটা ঘটনায় গ্রামের মানুষ শোকাহত।