মেয়ে আরুষির হত্যা মামলায়
মায়ের জামিন

সংবাদ সংস্থা

নয়াদিল্লি, ১৭ই সেপ্টেম্বর — নিজের মেয়ে আরুষি হত্যা মামলায় অবশেষে জামিন মঞ্জুর হলো চিকিৎসক নূপুর তলোয়ারের। আগামী ২৫শে সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাঁকে জামিনে ছেড়ে দেওয়ার জন্য সোমবার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। জোড়া খুনের ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত নূপুর গত চার মাসেরও বেশি সময় জেলে রয়েছেন। বিচারপতি এ কে পট্টনায়েক এবং জে এস খেহারের ডিভিশন বেঞ্চ এদিন বলেছে, আগামী ২৫শে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই সমস্ত সাক্ষীকে জেরার কাজ সেরে ফেলতে হবে তদন্তকারী সংস্থা সি বি আই-কে। এই মামলায় আরেক অভিযুক্ত নূপুরের চিকিৎসক-স্বামী রাজেশ তলোয়ার অবশ্য ২০০৮সালের ১১ই জুলাই থেকেই জামিনে রয়েছেন।

২০০৮সালের ১৬-১৭মে’র রাতে নূপুর-রাজেশের ১৪বছর বয়সী মেয়ে আরুষিকে তাঁদের নয়ডার বাড়ির শোবার ঘরে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। তাঁদের পরিচারক হেমরাজের দেহও ঐ বাড়িতে মেলে পরদিন। গত ৩০শে এপ্রিল গাজিয়াবাদ আদালতে আত্মসমর্পণ করেন নূপুর। কিন্তু ৩১শে মে এলাহাবাদ হাইকোর্টে তাঁর জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে যায়। হাইকোর্টের রায় চ্যালেঞ্জ করে জামিনের জন্য পরে সর্বোচ্চ আদালতে আবেদন করেছিলেন নূপুর। সুপ্রিম কোর্টে তাঁর জামিনের আবেদনের বিরোধিতায় সওয়াল করেন অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল সিদ্ধার্থ লুথরা। উভয় পক্ষের সওয়াল শুনে ডিভিশন বেঞ্চ এদিন আগামী ২৫শে সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাঁকে জামিনে মুক্তির রায় দেয়।