আজ ম্যাচের স্থান নিয়ে ফয়সালা
শিলঙ ম্যাচে নেই এডুয়ার্ডো

নিজস্ব প্রতিনিধি

কলকাতা, ১১ই জানুয়ারি — আশা-আকাঙ্খার দোলাচলে মোহনবাগান। রবীন্দ্র সরোবরের পর বারাসতেও জলঘোলা তৈরি হয়েছে মোহনবাগানের খেলা নিয়ে। মঙ্গলবারই জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে মোহনবাগানকে জানানো হয়েছিলো শুক্রবার বারাসতে মুখ্যমন্ত্রীর অনুষ্ঠান থাকায় মাঠে পর্যাপ্ত পুলিশ দেওয়া সম্ভব নয় তাঁদের পক্ষে। মোহনবাগান যদি ফাঁকা স্টেডিয়ামে খেলতে চায় তাহলে অবশ্য অসুবিধা নেই তাঁদের। এবিষয়ে বুধবার মোহনবাগান সচিব অঞ্জন মিত্র জানিয়েছেন ফাঁকা মাঠে খেলার কোনো প্রশ্নই নেই। বৃহস্পতিবারই আবার গ্রিন ট্রাইব্যুনালের ডিভিসন বেঞ্চে মোহনবাগানের আবেদনের শুনানি হওয়ার কথা। রবীন্দ্র সরোবরে আদৌ মোহনবাগান খেলতে পারবে কিনা তা অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে যাবে এদিন। মোহনবাগান সচিব অবশ্য ডিভিসন বেঞ্চের রায়ের বিষয়ে আশাবাদী। তিনি জানালেন, ‘আমারা রবীন্দ্র সরোবরে খেলার বিষয়ে যথেষ্ট আশাবাদী। আশা করবো বৃহস্পতিবার দুপুরের মধ্যেই চিত্রটা অনেকটা পরিষ্কার হয়ে যাবে।’

অন্যদিকে বেঙ্গালুরুর কাছে হারলেও লাজঙকে যথেষ্ট সমীহই করছেন মোহনবাগান কোচ সঞ্জয় সেন। ‘লাজঙ ম্যাচ টিভিতে দেখেছি। ওরা প্রথম ম্যাচ হেরেছে মানেই দুর্বল ভাবার কারণ নেই। গত দু’দিন ধরেই লাজঙ সম্বন্ধে খেলোয়াড়দের সঙ্গে আলোচনা করছি। ভিডিও বিশ্লেষকের সাহায্যে ম্যাচের আগের দিন আরও ভালো করে ওদের শক্তি-দূর্বলতা সম্বন্ধে আলোচনা করবো। পাহাড়ি দলটা বরাবরই আমাদের বেগ দেয়। তাই হালকা ভাবে নেওয়ার প্রশ্নই উঠছে না’, জানিয়েছেন তিনি। বুধবার জ্বরের জন্য অনুশীলন করেননি সবুজমেরুনের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার এডুয়ার্ডো। লাজঙয়ের বিরুদ্ধে যে তাঁর মাঠে নামার কোনো সম্ভাবনাই নেই এদিন তা আরও একবার স্পষ্ট করে দেন মোহনবাগান কোচ।

লাজঙ ম্যাচে দুটি পরিবর্তন হতে চলেছে মোহনবাগান দলে। লাল কার্ড দেখায় শুভাশিস বোসের জায়গায় বহুদিন পর সবুজ মেরুন জার্সি পড়ে খেলবেন শৌভিক ঘোষ। অনূর্ধ্ব ২২ খেলোয়াড় হিসাবে শৌভিক চক্রবর্তীর জায়গায় শুরু করতে পারেন রবিনসন সিং। পরে নামবেন শৌভিক। বুধবার মধ্যরাত্রেই কলকাতায় পা রাখার কথা মোহনবাগান সমর্থকদের নয়নের মণি সোনি নর্ডির। তৃতীয় ম্যাচেই সম্পূর্ণ দল হাতে পেয়ে যাবেন সঞ্জয় সেন। সোনির আসার খবরে স্বভাবতই খুশি মোহনবাগান কোচ। ‘সোনির মতো গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় যে কোনো দলেরই শক্তি বৃদ্ধি করে। সোনির অন্তর্ভূক্তি অবশ্যই দলের শক্তি বাড়াবে’, জানিয়েছেন সঞ্জয় সেন।

Current Affairs

Featured Posts

Advertisement