অকাল তুষারপাত দেখতে পাহাড়ে পর্যটকের ঢল

নিজস্ব সংবাদদাতা

শিলিগুড়ি, ২০শে মার্চ — মার্চ মাসের মোটামুটি শেষ। অকাল তুষারপাত দেখতে পাহাড়ে পর্যটকদের ঢল নেমেছে। সোমবার দার্জিলিঙ-সহ পার্বত্য এলাকায় ব্যাপক শিলাবৃষ্টি ও তুষারপাত হয়েছে। এদিন সারাদিনই আকাশ ছিল মেঘলা। মাঝেমধ্যেই ঝিরঝিরে বৃষ্টি। সেই সঙ্গে প্রবল ঝোড়ো হাওয়া। আবার কখনও শিলাবৃষ্টিও হয়েছে। প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় জবুথবু সকলেই।

ঝোড়ো হাওয়া ও শিলাবৃষ্টির কারণে দিনের অনেকটা সময় পর্যটকরা বন্দিদশায় থাকলেও, আকাশ একটু পরিষ্কার হয়ে বৃষ্টি কমতেই তাঁরা নেমে পড়েছেন পাহাড়ি রাস্তায়। একটু খোলা আকাশের নিচে মেঘলা দিনে পাহাড়ের মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে ম্যালসহ নানা জায়গায় পর্যটকরা ভিড় জমিয়েছিলেন। আবার বৃষ্টি শুরু হতেই এক ছুটে সকলেই আশ্রয় নিয়েছেন নিরাপদ জায়গায়।

এদিন দার্জিলিঙ, টাইগারহিল, ঘুম, জোরবাংলো, রিম্বিক, মানেভঞ্জন, মিরিকসহ পাহাড়ের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক শিলাবৃষ্টি হয়েছে। অকাল বর্ষণে এমন তুষারপাত ও শিলাবৃষ্টির আনন্দে মাতোয়ারা পর্যটকরা। চারিদিকে সাদা আর সাদা। এদিন ভোরে টাইগারহিলে পর্যটকরা ভিড় জমিয়েছিলেন সূর্যোদয় দেখতে। কিন্তু আকাশ ছিল মেঘে ঢাকা। গত তিনদিন ধরে পর্যটকরা টাইগার হিলে খুব কাছে থেকে সূর্যোদয় দেখার আশা নিয়ে গেলেও ব্যর্থ হয়েছেন। এদিনও আকাশে মেঘ থাকায় টাইগার হিলে সূর্যোদয় দেখা যায়নি।

টাইগার হিলের সূর্যোদয় দেখতে পায়নি তাই কি! তবুও পর্যটকদের মধ্যে খুশির হাওয়া। তাঁদের কথায়, মার্চ মাসের এই সময়ে পাহাড়ে অন্যরকম পরিবেশ থাকার কথা। পাহাড়ে এই সময়ে আমরা তুষারপাত দেখবো তা একেবারেই আশাতীত। উপচে পড়া ভিড়ে এখন জমজমাট দার্জিলিঙয়ের ম্যালসহ গোটা পার্বত্য অঞ্চল।

Featured Posts

Advertisement