তালডাংরায় বাসের
সঙ্গে এ ডি এম-র
গাড়ির ধাক্কা, হত ৪

নিজস্ব সংবাদদাতা

বাঁকুড়া, ১৬ই জুলাই — রবিবার দুপুরে তালডাংরার শিবডাঙায় বাঁকুড়ার অতিরিক্ত জেলাশাসক (জেলাপরিষদ) নবকুমার বর্মণের গাড়ির সঙ্গে যাত্রীবাহী একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে জেলাশাসকের গাড়ির চালক, নিরাপত্তাকর্মী ও বাসের দুই মহিলা যাত্রীসহ চারজন প্রাণ হারান। এঁরা হলেন অতিরিক্ত জেলাশাসকের গাড়ির চালক উত্তম লোহার (২৮) বাড়ি বাঁকুড়া শহরের লালবাজার পালিত বাগান, নিরাপত্তাকর্মী কার্তিক গাঙ্গুলি (৩৭) বাড়ি পুরুলিয়ার পুঞ্চায় এবং বাসের একজন যাত্রীর পরিচয় পাওয়া গেছে তাঁর নাম সুমনি হাঁসদা (২৮) বাড়ি ইন্দপুর থানার গৌরবাজার অঞ্চলের মহিষডোবায়। অপর এক মৃত মহিলার নাম জানা যায়নি।

জেলার পুলিসসুপার সুখেন্দু হীরা জানান, এদিন দুপুরে পাঁচমুড়া থেকে বন মহোৎসবের একটি অনুষ্ঠান করে ফিরছিলেন অতিরিক্ত জেলাশাসক নবকুমার বর্মণ। তালডাংরার হর্টিকালচার ফার্মের কাছে উলটো দিক থেকে আসা খাতড়া-জয়রামবাটি রুটের কল্যাণী বাসটির সঙ্গে সরাসরি তাঁর স্করপিও গাড়ির ধাক্কা লাগে। ধাক্কার পরই বাসটি যাত্রীসহ উলটে যায়। ঘটনাস্থলেই বাসের তলায় চাপা পড়ে দুই মহিলা যাত্রী প্রাণ হারান। প্রাণ হারান গাড়ির চালকও। নবকুমার বর্মণ ও তাঁর নিরাপত্তারক্ষীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতলে নিয়ে আসা হলে হাসপাতালেই বিকালে নিরাপত্তাকর্মী মারা যান। অতিরিক্ত জেলাশাসকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এই ঘটনায় ২৩জন আহত হয়েছেন। তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাসটির চালক পলাতক। তালডাংরা-সিমলাপাল রাস্তার উপর এই ফাঁকা জায়গায় কি করে দুর্ঘটনাটি ঘটল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।