আজকের দিনে



 

ছবির খাতা

জনতার ব্রিগেড

আরো ছবি

ভিডিও গ্যালারি

Video

শ্রদ্ধাঞ্জলি

 

শতবর্ষে শ্রদ্ধা

আপনার রায়

গরিবের পাশে থেকেছে বামফ্রন্টই

হ্যাঁ
না
জানি না
 

ই-পেপার

উত্তর সম্পাদকীয়

অরিন্দম কোঙার
২০১৪ সালের মে মাসে ষোড়শ লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষিত হয়েছে এবং নির্বাচনী ফল অনুযায়ী কেন্দ্রে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের পরিবর্তে বি জে পি নেতৃত্বাধীন জোট সরকার গঠিত হয়েছে। সরকারের পরিবর্তনে দেখা যাচ্ছে রাজ্যে রাজ্যে রাজ্যপালেরও পরিবর্তন হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল এম কে নারায়ণনও ইতোমধ্যে পদত্যাগ করেছেন। এইরকম রাজ্যপাল থাকা বা না থাকার সঙ্গে যে কেন্দ্রীয় সরকার ও শাসক রাজনৈতিক দলের সম্পর্ক থাকে, তা আর একবার প্রমাণিত হচ্ছে। আবার রাজ্য সরকারের নীতি ও কর্মসূচীতে যদি কেন্দ্রীয় সরকার বিরূপ হয়, তাহলে জনগণের দ্বারা নির্বাচিত একটা রাজ্য সরকারের স্থায়িত্ব অনিশ্চিত করে দিতে, এমনকি রাজ্য সরকারকে উৎখাত করে দিতেও রাজ্যপাল সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করেন, এমন দৃষ্টান্তও আছে। ...

>>>

ইন্দ্রজিৎ ঘোষ
রাজ্য সরকারের বদান্যতায় এস এস সি উত্তীর্ণরা গত ২৭শে জুন থেকে কলেজ স্কোয়ারে অনশন করছেন। তার আগে গত ২৫শে জুন থেকে তাঁরা অবস্থান করে সরকারকে বার্তা দিতে চেয়েছিলেন, কিন্তু সরকার তাদের কোনো বিষয়ে কর্ণপাত করছে না। গত মার্চ মাসে এই চাকরিপ্রার্থীরা এস এস সি-র দপ্তরের সামনে টানা ২১দিন অনশন করেছিলেন। তখন সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বাস পেয়ে অনশন প্রত্যাহার করে নেন। কিন্তু সরকার কথা রাখেনি। গত ১৮ই এপ্রিল ২০১৪ একজন আন্দোলনকারী রুমা দাস আত্মহত্যা করতে বাধ্য হন। গত ১৪ই জুলাই ২০১৪ আর একজন এস এস সি উত্তীর্ণ নিত্যগোপাল দাস মারা গেলেন। প্রতিদিন অনশনরত যুবক-যুবতীরা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। তাও সরকারের কানে জল ঢুকছে না। কিন্তু এই ছাত্র-ছাত্রীদের অনশন করতে হচ্ছে কেন?...

>>>