Qatar worldcup

কাতারে আর্জেন্টিনা ফ্যানসে উৎসাহ ভারত, পাকিস্তানীদের

খেলা

কাতারে তৈরি হয়েছে ‘আর্জেন্টিনা ফ্যানস কাতার’। ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, নেপাল থেকে কাজ করতে যাওয়া পরিযায়ীরাই মূলত তৈরি করেছেন এই সংগঠন। এ বছরের মে মাসে তৈরি হওয়া এই ফ্যান গ্রুপের আবার বেশির ভাগ অংশই কেরালা থেকে আসা। কেরালার বহু মানুষ কাতারে কাজ করেন। আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমও এই গ্রুপ গঠনের পিছনে কেরালার মানুষের উৎসাহের কথা জানাচ্ছে। এমনকি মনে করিয়ে দেওয়া হচ্ছে কমিউনিস্ট ঐতিহ্যের এই রাজ্যে মার্কস-লেনিনের ছবি সর্বত্রই দেখা যায়। চে গুয়েভারা, দিয়েগো মারাদোনা এবং মেসির ছবি, কাটআউটও প্রচুর।  
এই অনুরাগী বাহিনীর সংখ্যা হবে প্রায় ৬ হাজার। আর্জেন্টিনার সব সমর্থককেই তারা নানা বিষয়ে সাহায্য করবে। ম্যাচ হবে মূলত দোহায়। বস্তুত সব স্টেডিয়ামই দোহার ৬০ কিলোমিটারের মধ্যে। এত অল্প জায়গায় বিশ্বকাপ হয়েছিল একমাত্র ১৯৩০-এ, উরুগুয়ের মন্টিভিডিও শহরে। আর্জেন্টিনা ফ্যানদের সংগঠনের অনেক সদস্যই দোহার বাইরে থাকেন। সেখানেও যদি কোনও সাহায্যের প্রয়োজন হয়, তাঁরা করবে। 
দোহার ফ্ল্যাগ প্লাজায় পতাকা তোলা হয়েছে। সেখানে কয়েক হাজার সমর্থক জড়ো হয়েছিলেন আর্জেন্টিনার পতাকা তোলার সময়ে। সংগঠকদের এখন সুহেইল আলি বলেছেন, ‘অধিকাংশ প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কেরালার। কেরালায় ফুটবলের আবেগ রয়েছে। শৈশব থেকেই ফুটবলের প্রতি টান রয়েছে। অনেক বছর আগে থেকেই লাতিন আমেরিকান ফুটবলের প্রতি কেরালার আকর্ষণ রয়েছে। পছন্দের তালিকায় অন্যতম দেশ আর্জেন্টিনা।’ 
কাতারে টিকিট কেনার দিক থেকে আর্জেন্টিনার স্থান সপ্তম। আর্জেন্টিনার নাগরিকরা কিনেছেন ৬১ হাজার টিকিট। সংগঠক দেশ কাতারে বিক্রি হয়েছে প্রায় দশ লক্ষ টিকিট। তারপরেই রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে বিক্রি হয়েছে ১লক্ষ ৪৬ হাজার টিকিট। সৌদি আরবে বিক্রি হয়েছে ১ লক্ষ ২৩ হাজার। মেক্সিকোতে ৯১ হাজার বিক্রি হয়েছে। তবে ধরে নেওয়া হচ্ছে বহু আর্জেন্টিনীয় ওইসব দেশ থেকেও টিকিট কিনেছেন। 
কিন্তু এসবের থেকেও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে ব্রাজিলের এক পোর্টালের সমীক্ষা। তারা জানিয়েছে, ব্রাজিল বাদে সেদেশের ৩০ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন তাঁরা আর্জেন্টিনাকে সমর্থন করবেন। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ সম্পর্কে এমন সমর্থন আশাই করা হয়নি। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পর্তুগাল (২৪%), তৃতীয় জার্মানি (২২%)। কোনোভাবেই সমর্থন করবেন না এই তালিকায় মাত্র ১ শতাংশ ব্রাজিলীয় আর্জেন্টিনার নাম বলেছেন। সমীক্ষায় দেখা গেছে, কোপা আমেরিকায় মারাকানা স্টেডিয়ামে ব্রাজিলকে হারানোর পরে আর্জেন্টিনার সমর্থন সে-দেশে কয়েকগুণ বেড়ে গেছে। 
আর্জেন্টিনার সমর্থনের আরেক শক্ত ভিত ইতালি। এই বিশ্বকাপে ইতালি খেলছে না। ইতালির ফুটবলের উন্নত ঐতিহ্যের পক্ষে বেদনার। দেখা যাচ্ছে, ইতালীয়দের বেশির ভাগের সমর্থন আর্জেন্টিনার দিকেই। নাপোলিতে তো বটেই, সে শহরের ক্লাবে মারাদোনা খেলতেন। কিন্তু দেশের অন্যত্রও নীল-সাদা জার্সির প্রতি টানই বেশি। 
এই বিশ্বজোড়া টানের এক বড় কারণ লিওনেল মেসি।
 

0 Comments

Login to leave a comment