Bankshal court protest

আদালত চত্বরে ক্ষোভ উগরে দিলেন সরকারি কর্মীরা

রাজ্য

ছবি : রবীন গোলদার

সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছেন সরকারি কর্মীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে বকেয়া ডিএ চাইতে গিয়ে ৪৮ জন সরকারি কর্মীকে ব্যাঙ্কশাল আদালতে (city civil court) তোলা হয়। সেখানেই সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন আদালতে উপস্থিত সরকারি কর্মচারীদের একাংশ। তাদের অভিযোগ বুধবার তাদের ওপর পুলিশ এবং তৃণমূলের দুষ্কৃতীবাহিনী যৌথ ভাবে আক্রমণ চালিয়েছে। 

হাই কোর্টের অ্যাসিস্ট্যান্ট রেজিষ্ট্রার অজয় ঘোষ বলেন, ‘‘তৃণমূল এবং পুলিশ কাল আমাদের ওপর একসাথে আক্রমণ করেছে। মহিলা পুরুষ নির্বিশেষে চলেছে আক্রমণ। তবে ওরা যতই আক্রমণ করুক আমাদের লড়াই চলবে।’’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘‘এই সরকার কোনও আইন মানে না। আদালতের নির্দেশ মানে না। এদের সরাতেই হবে।’’

বকেয়া ডিএ র সহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে স্বচ্ছতার সাথে নিয়োগ এবং অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ী করার দাবিতে বিধানসভা অভিযানের ডাক দিয়েছিল ৩০ টি সরকারি কর্মচারী সংগঠন। সেই অভিযানকে কেন্দ্র করে উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা কলকাতা। বিধানসভার সামনে থেকে সরকারি কর্মীদের টেনে হিঁচড়ে ঘুষি মেরে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিন ক্ষোভের সাথে একজন কর্মী বলেন, ‘‘এরা ভাবে সবাই ঘুষ দিয়ে চাকরি পেয়েছে। তাই সবাই সরকারের কথা শুনবে। কিন্তু এরা ভুল ভাবছে।’’

ধৃত সব আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে। পুলিশের পক্ষ থেকে ধৃতদের তিনদিনের জন্য হোপাজতে নেওয়ার আবেদন করা হতে পারে। পুলিশের অভিযোগ বিক্ষোভকারীদের হাতে বহু পুলিশ কর্মী আহত হয়েছেন। তবে পুলিশের আক্রান্ত হওয়ার কোন ফুটেজ কোথাও দেখা যায়নি। ব্যাঙ্কশাল আদালতে আন্দোলনকারীদের হয়ে মামলা লড়ছেন সিপিআই(এম) সাংসদ বিকাশ রজ্ঞন ভট্টাচার্য।  সওয়ালে বিকাশ রজ্ঞন ভট্টাচার্য বলেন, শান্তিপূর্ন আন্দোলনে পুলিশের ভূমিকা অভাবনীয়। ডিএ’ও দেবে না, আন্দোলনও করতে দেবে না সরকার? সরকারি কর্মচারী শিক্ষক সহ আন্দোলনকারিরা কোন সিংসার পথে যায়নি। তারপেও তাদের তুলে নিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। পুলিশ হেপাজতে আটকে রাখার যুক্তি কি? 

0 Comments

Login to leave a comment